স্বজনদের কান্নায় ভারি মর্গের বাতাস (ভিডিও)

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৩:২২
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে ভোর থেকেই আসতে থাকে একের পর এক লাশ। বেলা বাড়ার সঙ্গে বাড়তে থাকে লাশের সারি। সকাল থেকেই সেখানে ভিড় করেন অগ্নিকান্ডের পর নিখোঁজ হওয়া মানুষদের স্বজনেরা। তারা কেউ কাঁদছিলেন। কেউ ছুটছিলেন এদিক ওদিক। কেউ কেউ প্রিয় স্বজনের আগুনে পোড়া মৃত দেহটি পেয়ে বিলাপ করছিলেন। স্বজন হারানোদের এমন বিলাপে সকাল থেকে ভারি হয়ে আছে ঢামেক হাসপাতালের মর্গের বাতাস।  মর্গে রাখা অধিকাংশ লাশই সনাক্ত করার মতো নয়। লাশগুলো পুড়ে অঙ্গার হয়ে গেছে।
তবে স্বজনদের কেউ কেউ আকার আকৃতি ও বিভিন্ন হিহ্ন দেখে তাদের লাশ শনাক্তের চেষ্টা করছেন। ভাইয়ের সন্ধানে গভীর রাত থেকে মর্গে অবস্থান করছিলেন অ্যাডভোকেট সুমাইয়া আক্তার। কান্না করতে করতে তিনি বলেন, ‘আমার ভাইয়ের হাত ভেঙে গিয়েছিল। তার হাতের ভেতর অপারেশন করে রড দেয়া হয়। শরীর পুড়ে গেলেও হাতের রড ও কোমরের বেল্ট দেখে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। এদিকে পরিচয় সনাক্তের পর দুটি লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

পর্নো তারকা মিয়া খলিফার পক্ষ নিলেন নাইজেরিয়ার মিউজিক মুঘল

উত্তাল সমুদ্রে ১৩০০ যাত্রী নিয়ে জাহাজের বিপদসংকেত, উদ্ধারে ৫ হেলিকপ্টার ও কয়েকটি জাহাজ

সিলেটে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে বাস থেকে ফেলে ‘হত্যা’

প্রধানমন্ত্রীকে আজীবন সদস্য করার প্রস্তাব নুরের আপত্তি

যারা ভয় পান তারা দায়িত্ব ছেড়ে দেন

ঢাকায় গাড়ি চোরের ৫০ সিন্ডিকেট

গণহত্যা বিষয়ক জাতিসংঘ দূত ঢাকায়

মাসুদ উদ্দিন চৌধুরীকে নিয়ে নানা জল্পনা

তৃতীয় ধাপের ১১৭ উপজেলায় ভোট আগামীকাল

স্বর্ণ আমদানির দুয়ার খুলছে

দেনমোহরের দাবিতে বাংলাদেশে ফিলিপাইনের নারী

দু’দশকে বন্ধ হয়েছে এক হাজারের বেশি সিনেমা হল

ঢাকায় সড়ক পারাপারে বিশৃঙ্খলা কমছে না

শীর্ষ আলেমদের জন্য দেহরক্ষী চাইলেন আল্লামা শফী

যারা ভিন্নমত সহ্য করতে পারে না তারা কীভাবে গণতন্ত্রের কথা বলে

চিকিৎসা নিতে গিয়ে আটক ছিনতাইকারী