আলাপন

‘এ ব্যাপারে আমি এখনো কাউকে কিছু বলিনি’

বিনোদন

কামরুজ্জামান মিলু | ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:৪৯
গেল বছর প্রিয়দর্শিনীখ্যাত অভিনেত্রী মৌসুমী অভিনীত ‘আমি নেতা হব’, ‘পবিত্র ভালোবাসা’, ‘লিডার’, ‘নায়ক’ ও ‘পোস্টমাস্টার ৭১’ নামের ছবিগুলো মুক্তি পায়। একটির গল্প অন্যটির চেয়ে ছিল আলাদা। এসেছে নতুন বছর। এবার নতুন বছরে গত সপ্তাহে দেশের ১৭টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে নির্মাতা হাবিবুল ইসলাম হাবিব পরিচালিত ‘রাত্রির যাত্রী’ ছবিটি। এতে অভিনয় করেছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় মুখ মৌসুমী। ‘রাত্রির যাত্রী’ ছবিটি নিয়ে তিনি বলেন, মুক্তির পর বেশ ভালো সাড়া পাচ্ছি। ছবির গল্প আর দশটা বাণিজ্যিক ছবির মতো নয়। ছবিটি দেখে এ কথাটা অনেকে বলেছেন। একটি মেয়ের জীবনের এক রাতের গল্প নিয়ে ছবিটি। এই শহরে এক রাতে একা হয়ে যাওয়া একটি মেয়ের চলার পথে কত যে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হয়, তা ছবির কাহিনীতে উঠে এসেছে। যারা এখনো ছবিটি দেখতে যাননি তারা সিনেমা হলে গিয়ে দেখতে পারেন। ছবিটি ভালোলাগার মতো। মৌসুৃমী আরো বলেন, কলকাতায় সম্প্রতি শেষ হওয়া বাংলাদেশের দ্বিতীয় চলচ্চিত্র উৎসবে আমার অভিনীত ‘পোস্টমাস্টার ৭১’ ছবিটি প্রদর্শিত হয়। এ ছবিতে আমার বিপরীতে ফেরদৌস অভিনয় করেছেন। এ ছবির গল্পটিও ভালো ছিল।  নতুন ছবিতে কবে দেখা যাবে? এ বিষয়ে মৌসুমী বলেন, নতুন ছবি নিয়ে কথা চলছে। ২-১ দিনের মধ্যে চুড়ান্ত হবে, সব ফাইনাল হলে জানাবো। আর আমি ভালো ছবিতে কাজের জন্য অপেক্ষা করছি। এর মধ্যে বিজ্ঞাপনচিত্র, স্টেজ শো ও পণ্য প্রচারের কিছু কাজ করছি। নতুন বছরে নতুন কোনো কাজ কি করেছেন ? এর উত্তরে তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক ভাষা দিবস ২১শে ফেব্রুয়ারি। এ দিবসকে ঘিরে একটি ভিডিওচিত্রে কাজ করলাম। এর নাম ‘লাইজু’। এটি পরিচালনা করেছেন ফাহমিদা প্রেমা। আরএফএল স্টোভ এটি প্রযোজনা করেছে। সামনে প্রচার হবে। শোনা যাচ্ছে, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির এবারের নির্বাচনে আপনি সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হবেন? মৌসুমী বলেন, আমি এখনো প্রস্তুত নই। এ ব্যাপারে আমি এখনো কাউকে কিছু বলিনি। আমি এবার নির্বাচন করব কি না, তা এখনো ঠিক হয়নি। এখনো সময় আছে, করতেও পারি। দেখা যাক। সামনে মৌসুমী অভিনীত ‘নোলক’ নামে একটি ছবি মুক্তি পাবে। এ ছবিতে ওমর সানীর বিপরীতে দর্শকরা তাকে দেখতে পাবেন। বর্তমানে চলচ্চিত্রের চলমান সংকট থেকে মুক্তির উপায় কি কোনো আছে? এ বিষয়ে মৌসুমী বলেন, কৌশল করে সংকট থেকে তো অবশ্যই আমাদের বের হতে  হবে। ইন্টারনেটের কারণে বিনোদন এখন কম টাকায় হাতের মুঠোতে পাচ্ছেন অনেকে। তারপরও সিনেমা হলে গিয়ে কোনো নতুন ছবি দেখার আনন্দটাই আলাদা। আর আমি একজন শিল্পী হিসেবে বলতে চাই, ভালো কাজের বিকল্প নেই। কিন্তু ভালো কাজ দেখার জন্য দর্শকদের সর্বত্র উন্নত প্রযুক্তির সিনেমা হল নেই, সুন্দর পরিবেশ সব জেলা বা থানাশহরে নেই। তাই দেশের বিভিন্ন জায়গায় ডিজিটাল সিনেমা হল যেটা কম টাকায় দর্শকরা দেখতে পাবেন সেটা নির্মাণ জরুরী। আর সিনেপ্লেক্স, ই-টিকেটিং সিস্টেম খুব বেশি বেশি দরকার এখন আমাদের। ঢাকায় সিনেপ্লেক্স থাকলে শুধু হবে না সারাদেশে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় ভালো প্রযুক্তির উন্নত মানের সিনেমা হল দরকার। হয়তো সামনে বাস্তবায়ন হবে। তখন আর চলচ্চিত্রের সংকট থাকবে না। প্রযোজকরাও সিনেমা নির্মাণের পর চিন্তিত হয়ে পড়বেন না। মৌসুমী আরো বলেন, সংকট কাটিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হবে আমাদের। চলচ্চিত্র আমাদের দেশের বড় একটি শিল্প। এই শিল্পকে নিয়ে চিন্তা করি আমি। কারণ চলচ্চিত্র থেকেই আজ আমি তারকাখ্যাতি বা নাম পেয়েছি। তাই সকলের প্রচেষ্টায় সব সংকট কাটিয়ে উঠতে পারব বলে মনে করি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এবার মালিবাগে পুলিশকে লক্ষ্য করে হামলা

বগুড়ায় নুরের ওপর হামলা

ধানের দাম নেই, চালে ছাড় নেই

বৃষ্টিতেও দৃঢ় মনোবল টাইগারদের

খালেদার মামলায় আদালত স্থানান্তরের বৈধতা নিয়ে রিট

তরুণ সাংবাদিক ফাগুনের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যা মামলা

ট্রাভেল পারমিটে কড়াকড়ি জটিলতার আশঙ্কা

গতবছর ফেসবুকের কাছে ১৯৫ ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়েছিল বাংলাদেশ

রঙ লাগিয়ে ঈদে সড়কে নামছে লক্করঝক্কড় বাস

তারেকের স্মৃতি হাতড়ে ফেরেন নুরুন নাহার

রাজাকারদের তালিকা সংরক্ষণের সুপারিশ

মামলার আগেই গ্রেপ্তার, শাহপরাণে তোলপাড়

ইতালিতে প্রদর্শিত হলো ড. ইউনূসের জীবনীভিত্তিক অপেরা

৩০শে মে সন্ধ্যায় শপথ নেবেন মোদি

পদত্যাগ করলেন মহারাষ্ট্র কংগ্রেস প্রধান

চিকিৎসকদের আরো দায়িত্বশীল হওয়ার আহ্বান ডা. এ আর খানের