অ্যাটলেটিকো-জুভেন্টাসের লড়াই আজ

মাদ্রিদে রোনালদোর প্রত্যাবর্তন

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:২০
রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার পর স্পেনে প্রত্যাবর্তন সুখকর ছিল না ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর। এবার চিরচেনা মাদ্রিদে মাঠের লড়াইয়ে দেখা যাবে পর্তুগিজ সুপারস্টারকে। ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শেষ ষোলো রাউন্ডের প্রথম লেগে আজ রোনালদোর জুভেন্টাসকে আতিথ্য দেবে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানো স্টেডিয়ামে রাত ২টায় হাইভোল্টেজ ম্যাচটি শুরু হবে। এই মাঠেই হবে এবারের আসরের ফাইনাল। গত মৌসুম শেষে ৯ বছরের রিয়াল অধ্যায়ের ইতি টেনে জুভেন্টাসে পাড়ি জমান রোনালদো। আর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে গ্রুপপর্বের প্রথম ম্যাচ দিয়ে স্পেনে ফিরেছিলেন পাঁচবারের বর্ষসেরা খেলোয়াড়। কিন্তু রেফারির বিতর্কিত সিদ্ধান্তে প্রথমার্ধেই সরাসরি লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন রোনালদো। তবে, ম্যাচে ২-০ গোলে জয় কুড়ায় জুভেন্টাস। পেনাল্টি থেকে দু’টি গোলই করেন মিডফিল্ডার মিরালেম পিজানিক। আজ অ্যাটলেটিকোর মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠতে পারেন রোনালদো। রিয়ালের হয়ে অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে ৩১ ম্যাচে ২২ বার বল জালে পাঠান সিআর সেভেন। আর জুভেন্টাসের হয়ে দারুণ ফর্মে আছেন ৩৩ বছর বয়সী রোনালদো। সিরি আ’তে ২৪ ম্যাচে ১৯ গোল নিয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। জুভেন্টাস ম্যাচকে ফাইনালের সঙ্গে তুলনা করেন অ্যাটলেটিকোর আর্জেন্টাইন কোচ দিয়েগো সিমিওনি। তিনি বলেন, ‘দু’দলেরই একটা লক্ষ্য আছে এবং কেউই ভীত নয়। এটা ফাইনালের মতো ম্যাচ। বিন্দুমাত্র ভুলে চড়া মূল্য দিতে হবে।’
চ্যাম্পিয়ন্স লীগের বিগত পাঁচ মৌসুমে জুভেন্টাস ও অ্যাটলেটিকো দু’বার করে ফাইনাল খেলে। কিন্তু একবারও শিরোপার দেখা পায়নি তারা। আর জুভেন্টাসের বিপক্ষে মুখোমুখি লড়াইয়ে দু’বারের সাক্ষাতে অপরাজিত অ্যাটলেটিকো। ২০১৪-১৫ মৌসুমের গ্রুপপর্বে নিজ মাঠে ১-০ গোলে জয়ের পর তুরিনে গোলশূন্য ড্র করে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। ওই মৌসুম শেষেই অ্যাটলেটিকো ছেড়ে জুভেন্টাসে যোগ দেন ক্রোয়েশিয়ান তারকা মারিও মানজুকিচ। বিপরীতে আজ অ্যাটলেটিকোর হয়ে সাবেক ক্লাব জুভেন্টাসের মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন স্প্যানিয়ার্ড স্ট্রাইকার আলভারো মোরাতা। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে ২০১৪ ও ২০১৬ সালের ফাইনালে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের কাছে স্বপ্নভঙ্গ হয় অ্যাটলেটিকোর। আর জুভেন্টাসকেও হতাশায় ডোবায় দুই স্প্যানিশ জায়ান্ট। ২০১৫ সালে বার্সেলোনা ও ২০১৭ সালের ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হার দেখে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। রিয়ালের কাছে হেরেই (৪-৩ অ্যাগ্রিগেট) গত মৌসুমের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নেয় জুভেন্টাস। সেবার জুভিদের ঘাতক ছিলেন রোনালদো। প্রথম লেগে রোনালদোর জোড়া গোলেই ইতালি থেকে ৩-০ গোলের জয় নিয়ে ফেরে রিয়াল। আর সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে ৬১ মিনিটের মধ্যে ৩ গোল পরিশোধ করে দেয় জুভেন্টাস। কিন্তু ইনজুরি সময়ে পেনাল্টি পেয়ে জুভিদের ছিটকে দেন রোনালদো। এবারের আসরে ম্যানইউকে পেছনে ফেলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউট পর্বে পা রাখে জুভেন্টাস (৪ জয়, ২ হার)। আর বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের সমান ১৩ পয়েন্ট (৪ জয়, ১ ড্র, ১ হার) হলেও গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় গ্রুপে দ্বিতীয় হয় অ্যাটলেটিকো।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মোদিকে হাসিনার ফোন

অসন্তোষ ‘কমেছে’ ২০ দলে

যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ইউএনও’র মামলা

মমতার দুর্গেও বিজেপির হানা

ফল মেনে নিয়ে পদত্যাগের ইঙ্গিত রাহুলের

রাষ্ট্র মেরামতে সুজনের ১৮ প্রস্তাব

আতঙ্কের জনপদ ‘শাহপরাণ থানা’

আঞ্জুমানের ভবন নির্মাণে সহায়তা দিতে ব্যাংকগুলোর প্রতি সালমান এফ রহমানের আহ্বান

‘হাইকোর্টকে হাইকোর্ট দেখাচ্ছেন’

জমে উঠেছে ঈদ বাজার

মোদিকে বিএনপি’র অভিনন্দন

রাজশাহী বিমানবন্দরে পিস্তল ও গুলি জব্দ

গাড়ি পাচ্ছেন সংসদের উপ-সচিবরা: বাজেট ৬ কোটি টাকা

গোপন ভোটাভুটিতে নির্বাচিত হবেন শীর্ষ ৫ নেতা

কর্মকর্তাদের সতর্ক করে সব মিশন প্রধানকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি

নেহরু ও ইন্দিরার পর পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় ফেরা একমাত্র প্রধানমন্ত্রী মোদি