রাজনীতি ছাড়ার ঘোষণা জিপি লিভনির

গণতন্ত্র এখন বিপদগ্রস্ত

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, মঙ্গলবার
রাজনীতি ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দিলেন ইসরাইলের খুব প্রভাবশালী নেত্রী ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিপি লিভনি। সোমবার ইসরাইলের রাজধানী তেলআবিবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দিতে গিয়ে তিনি কেঁদে ফেলেন। বলেন, গণতন্ত্র এখন বিপদগ্রস্ত। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে এর আগে তিনি শান্তি আলোচনায় মধ্যস্থতা করেছেন। যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত এ শান্তি আলোচনার অংশ হয়ে উঠার কারণে বিশ্বজুড়ে তিনি পরিচিতি পেয়েছেন। এই আলোচনার মাধ্যমে কয়েক দশক ধরে চলা ইসরাইল-ফিলিস্তিন দ্বন্দ্বের অবসান ঘটানোর চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু তা ভেঙে যায় ২০১৪ সালে।
তবে সাম্প্রতিক সময়ে তার ক্যারিয়ার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। বিশেষ করে মধ্যাপ্রাচ্য শান্তি প্রক্রিয়ায়। আগামী ৯ই এপ্রিল ইসরাইলে নির্বাচন। এরপর নতুন শান্তি পরিকল্পনা নিয়ে হাজির হওয়ার কথা যুক্তরাষ্ট্রের। এ সময়ে জিপি লিভনি রাজনীতি ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দিলেন। বললেন, আমি রাজনীতি ছেড়ে দিচ্ছি। আমি ইসরাইলকে শান্তির প্রত্যাশা থেকে ফেলে যাচ্ছি না। ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু তার বিরুদ্ধে আনীত দুর্নীতির তদন্ত নিয়ে সমালোচনা করেছেন। আক্রমণাত্মক হয়েছেন স্থানীয় মিডিয়ার ওপর। এ প্রসঙ্গে ইঙ্গিত দিয়ে জিপি লিভনি বলেন, বিগত বছরগুলো খুব কঠিন সময় গেছে আমার কাছে। আমি যেটা বিশ্বাস করি তা হলো শান্তি। এই শান্তি শব্দটি এখন নোংরা হয়ে গেছে। গণতন্ত্র পড়েছে বিপদে।
উল্লেখ্য, আসন্ন নির্বাচন নিয়ে এরই মধ্যে জনমত জরিপ হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে জিপি লিভনির মধ্যপন্থি হাতনুয়া পার্টি পার্লামেন্টে কোনো আসন পাবে না। তবে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর ডানপন্থি লিকুদ পার্টি আবার ক্ষমতায় আসতে পারে। পার্লামেন্টে জিওনিস্ট ইউনিয়ন ও ইসরাইলি লেবার পার্টির সঙ্গে বড় একটি জোটের শরীক ছিল হাতনুয়া।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন