তীব্র সমালোচনার পরেও ট্রাম্পের জরুরি অবস্থা জারি

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, রোববার
মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণ প্রকল্পে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার অর্থ প্রবাহ নিশ্চিত করতে অবশেষে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। এর ফলে তিনি কংগ্রেসকে পাশ কাটিয়ে দেয়াল নির্মাণের জন্য যেকোনো পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ করতে পারবেন। যদিও পরবর্তীতে তার একতরফাভাবে নেয়া এসব পদক্ষেপ আইনি জটিলতার মুখে পড়তে পারে। এর আগে, কয়েক সপ্তাহ ধরে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার শীর্ষ কর্মকর্তারা যুক্তি দেখিয়েছেন যে, দক্ষিণাঞ্চলীয় মেক্সিকো সীমান্ত সংকটের মধ্যে রয়েছে। বিপরীতে ডেমোক্রেটরা বলেছেন, মানবিক সংকট ছাড়া সীমান্তে কোনো নিরাপত্তা ঘাটতি  নেই। কাস্টমস ও সীমান্ত নিরাপত্তা বিভাগ গত অর্থবছরে দক্ষিণ-পূর্ব সীমান্ত থেকে প্রায় ৪ লাখ মানুষকে আটক করেছে। এদের অনেকেই যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছেন। শুক্রবার  হোয়াইট হাউসের রোজ গার্ডেনে বক্তৃতা করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এসময় তিনি আবারো সীমান্তে মাদক ও অবৈধ অভিবাসীদের ঢলের কথা উল্লেখ করেন। তবে সেখানে জরুরি অবস্থা জারি করার মতো সংকট রয়েছে এই দাবির পক্ষে কোনো তথ্য বা পরিসংখ্যান দেখাতে পারেন নি তিনি। বরং তিনি পরিসংখ্যানের সুস্পষ্ট তথ্য অস্বীকার করেন। যাতে বলা হয়েছে, সীমান্ত অতিক্রম করে যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হয়ে আসা মানুষের সংখ্যা এখন রেকর্ড পরিমাণ কমে গেছে। আরো বলা হয়েছে, স্থানীয় অধিবাসীদের তুলনায় অভিবাসী আমেরিকানরা তুলনামূলক কম অপরাধ ঘটায়। শুক্রবার রোজ গার্ডেনে অনেকটা একতরফাভাবেই ট্রাম্প জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা দেন। এসময় তিনি চীনের সঙ্গে আলোচনায় অগ্রগতি ও উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে ফলপ্রসূ বৈঠকের কথাও উল্লেখ করেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন