সরকার না বিরোধী দলে অবস্থান জানতে চায় ১৪ দলের শরিকরা

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার
জাতীয় সংসদে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের নির্বাচিত সদস্যদের অবস্থান স্পষ্ট করার দাবি উঠেছে জোটের সভায়। সেই সঙ্গে ১৪ দলের সব শরিক দলকে মূল্যায়নের দাবি করা হয়েছে। গতকাল ১৪ দলের সভায় এ দাবি তোলা হয়। বৈঠক সূত্র জানায়, ১৪ দলের সভায় জাসদের সভাপতি সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু সংসদে ১৪ দলের অবস্থান নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ১৪ দলের শরিক আমরা যারা সংসদ সদস্য, আমরা যদি ১৪ দলে থাকি তাহলে তো আমাদের সংসদে সরকারি দলের বেঞ্চে বসার কথা। আর আমাদের বিরোধী দলে বসতে হলে ১৪ দলে থাকা কেন? আবার আমরা যদি ১৪ দলগতভাবে না-ই থাকি, তাহলে আর সরকারি দলের বেঞ্চেই বা বসা কেন? আমরা সরকারি না বিরোধী দলে আছি, আমাদের অবস্থান কোথায়? সেটি স্পষ্ট হওয়া দরকার। সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক সাবেক মন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া বলেন, ১৪ দলে থাকা ছোট-বড় দল সবাইকে মূল্যায়ন করা দরকার। অনেকে বড় দল থেকে এমপি হয়েছেন, এমপি হওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন, মন্ত্রী হয়েছেন।
সর্বশেষ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও কয়েকটি দল থেকে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। কিন্তু অপেক্ষাকৃত ছোট দলগুলো কিছুই পায়নি। এদের মূল্যায়ন হওয়া দরকার। কোনো কোনো দল একেবারে মূল্যায়ন না হলে হতাশ হবে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে ১৪ দলের শরিক বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়ার সামপ্রতিক এক বক্তব্যের সমালোচনা করেন জোটের কয়েকজন নেতা। সভায় এ বিষয়ে তরীকত ফেডারেশনের সভাপতি নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী বলেন, ১৪ দলের শরিক হয়েও সমপ্রতি একটি টেলিভিশনের টকশোতে শরীফ নুরুল আম্বিয়া নির্বাচনের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়েছে কি না তা নিয়েও সংশয় জানিয়েছেন তিনি। এতে মানুষের মধ্যে নির্বাচন নিয়ে একধরনের সন্দেহ দেখা দিয়েছে। এ সময় সভায় উপস্থিত বাংলাদেশ জাসদের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান বলেছেন, এটা আমাদের জাতীয় পরিষদের সভার মূল্যায়ন, সেটাই আমাদের দলের সভাপতি বলেছেন। এটা আমাদের জাতীয় পরিষদের সিদ্ধান্ত, এটা তো এখন আমরা রিভিউ করতে পারবো না।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

পর্নো তারকা মিয়া খলিফার পক্ষ নিলেন নাইজেরিয়ার মিউজিক মুঘল

উত্তাল সমুদ্রে ১৩০০ যাত্রী নিয়ে জাহাজের বিপদসংকেত, উদ্ধারে ৫ হেলিকপ্টার ও কয়েকটি জাহাজ

সিলেটে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে বাস থেকে ফেলে ‘হত্যা’

প্রধানমন্ত্রীকে আজীবন সদস্য করার প্রস্তাব নুরের আপত্তি

যারা ভয় পান তারা দায়িত্ব ছেড়ে দেন

ঢাকায় গাড়ি চোরের ৫০ সিন্ডিকেট

গণহত্যা বিষয়ক জাতিসংঘ দূত ঢাকায়

মাসুদ উদ্দিন চৌধুরীকে নিয়ে নানা জল্পনা

তৃতীয় ধাপের ১১৭ উপজেলায় ভোট আগামীকাল

স্বর্ণ আমদানির দুয়ার খুলছে

দেনমোহরের দাবিতে বাংলাদেশে ফিলিপাইনের নারী

দু’দশকে বন্ধ হয়েছে এক হাজারের বেশি সিনেমা হল

ঢাকায় সড়ক পারাপারে বিশৃঙ্খলা কমছে না

শীর্ষ আলেমদের জন্য দেহরক্ষী চাইলেন আল্লামা শফী

যারা ভিন্নমত সহ্য করতে পারে না তারা কীভাবে গণতন্ত্রের কথা বলে

চিকিৎসা নিতে গিয়ে আটক ছিনতাইকারী