আজ নাকি ভালোবাসার দিন?

ষোলো আনা

ষোলো আনা ডেস্ক | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৫৯
ছবিঃ জীবন আহমেদ
আজ বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে দিনটি। এই দিনে সকলের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করা হলেও প্রেমিক-প্রেমিকাদের জন্য বিশেষ একটি দিন।

ইতিহাসে বেশ কয়েকটি কথা প্রচলিত থাকলেও সর্বাধিক আলোচিত ইতিহাসটি হচ্ছে- রোম সম্রাট দ্বিতীয় ক্লডিয়াসের সাম্রাজ্য টিকে রাখতে চাই বিপুল পরিমাণ সেনাসদস্য। আর বিপুলসংখ্যক যুবকের সেনাবাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত করার উদ্দেশ্যে বিবাহের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে সম্রাট। এই সিদ্ধান্ত স্বাভাবিকভাবে মেনে নিতে পারেননি তখনকার যুবক-যুবতীরা। বিরোধিতা করেন ধর্মযাজক সেন্ট ভ্যালেন্টাইনও। তিনি গোপনে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ করাতে শুরু করেন তাদের। ধীরে ধীরে ভ্যালেন্টাইনের পরিচিতি ঘটে ভালোবাসার বন্ধু হিসেবে।
ভ্যালেন্টাইনের নাম চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে এবং সম্রাটও বিষয়টি জানতে পারেন। সম্রাট তাকে গ্রেপ্তার করে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেয়। ২৭০ খ্রিস্টাব্দের ১৪ই ফেব্রুয়ারি তার এই মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়। সেই থেকেই ১৪ই ফেব্রুয়ারিকে ভ্যালেন্টাইন ডে বা বিশ্ব ভালোবাসা দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

বাংলাদেশে ভালোবাসা দিবস চালু হয় ১৯৯৩ সালে। দিনটিকে দেশে প্রচলিত করেন বিশিষ্ট সাংবাদিক শফিক রেহমান। বিলেতে পড়ালেখা শেষ করে এসে বাংলাদেশে দিবসটি পালনের চিন্তা ছড়িয়ে দেন। তরুণ প্রজন্ম দিবসটিকে বেশ গুরুত্বের সঙ্গে গ্রহণ করে।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ছেলেধরা সন্দেহে এবার পাঁচ এনজিও কর্মীকে গণপিটুনি

বিএনপি নেতা জাপায়

নিন্দা বর্ষণের মধ্যেও শাসকদলের নরম মনোভাব

ট্রান্সফার :বার্সেলোনায় আসতে পারেন যারা

ভর্তি যুদ্ধ, টপকাতে হবে ২১ জনকে

গণপিটুনি দিয়ে মানুষ মারলে আইনগত ব্যবস্থা: আইনমন্ত্রী

এক আসামির স্বীকারোক্তি, ৩ জন রিমান্ডে

মিন্নির চিকিৎসার আবেদন নামঞ্জুর

ডিসিসি’র দুই স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে হাইকোর্টে তলব

গুজব গণপিটুনি নিয়ে পুলিশেও উদ্বেগ, সারাদেশে সতর্কবার্তা

একমাত্র আসামীর ফাঁসি

সিরিয়ার অখণ্ডতা রক্ষায় আসাদের পাশে থাকবে রাশিয়া: পুতিন

আ.লীগ নেতাদের মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষার পরামর্শ রিজভীর

ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলা

শিশুকে গলা কেটে হত্যা

‘ছেলেধরা’ সন্দেহে এবার মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে গাছে বেঁধে নির্যাতন