মাটির নিচের গুপ্তধন

বাংলারজমিন

তোফায়েল হোসেন জাকির, সাদুল্লাপুর (গাইবান্ধা) থেক | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার
গাইবান্ধা জেলার সবজির ভাণ্ডার হিসেবে খ্যাত সাদুল্লাপুর উপজেলা। এ উপজেলার উঁচুভূমি ধাপেরহাট, ভাতগ্রাম ইদিলপুর ও রসুলপুর এলাকায় প্রচুর পরিমাণে বিভিন্ন জাতের সবজিসহ উৎপাদিত হয় গোল আলু। অন্যান্য ফসলের চেয়ে কৃষকদের আলু চাষাবাদে লাভজনক। ফলে আলুর উপর নির্ভরশীল এ অঞ্চলের কৃষকরা। উৎপাদিত আলু বিক্রি করেই পরিবারের চাহিদা মেটান তারা। তাই মাটির নিচে বড় হওয়া আলুই যেন কৃষকদের গুপ্তধন।   
গতবারের তুলনায় এবার বাম্পার ফলন সম্ভাবনায় কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে। সম্প্রতি আলুর দামও ভালো পাচ্ছেন তারা।
উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আবু তাহের মিয়া জানান, এ অঞ্চলের কৃষকরা দেশি জাতের আলু ছাড়াও হাইব্রিড জাতের কার্ডিনাল, ডায়মন্ড, স্ট্রিট এবং গ্যানোলা জাতের আলু বেশি চাষ করেছেন।
মাস খানেক পরই কৃষকরা জমি থেকে আলু তুলতে শুরু করবেন কৃষক। সাদুল্লাপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা খাজানুর রহমান জানান, চলতি মৌসুমে ১ হাজার ৫৭ হেক্টর জমিতে আলু চাষাবাদ হয়েছে। মৌসুমের শুরু থেকে কৃষকদের সার্বিকভাবে পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে। ধাপেরহাটের আরাজী ছত্রগাছা গ্রামের আলুচাষি সোহেল মিয়া জানান, প্রতি একরে আলু চাষাবাদে খরচ হয় প্রায় ৫০ হাজার টাকা। যার উৎপাদন হয়েছে ২৫০ মণ। বর্তমান বাজারে প্রতি মণ আলু (প্রকারভেদে) ৫০০ থেকে ৫৫০ টাকা দরে বিক্রি হবে। এতে করে ভাল মুনাফা অর্জন করা সম্ভব। হাসানপাড়া গ্রামের আলুচাষি এন্তাজ আলী জানান, ধাপেরহাট আরভি হিমাগারের এক বস্তা আলু সংরক্ষণ করতে ৩০০ থেকে ৩৩০ টাকা খরচ হয়।
দেশীয় পদ্ধতিতে কৃষকরা বাড়িতে আলু সংরক্ষণ করলে খরচ পড়বে প্রতি বস্তা মাত্র ২০ থেকে ২৫ টাকা। ৬-৭ মাস পর ওই আলু বের করলে প্রতি মণ আলু ৬০০-৭০০ টাকা দরে বিক্রি করা সম্ভব।
অন্যান্য ফসলের চেয়ে আলু চাষ অত্যন্ত লাভজনক বলে জানান রসুলপুরের বড় দাউদপুর গ্রামের আলু চাষি আজিজার রহমান। হিমাগার ছাড়াই বাড়িতে আলু সংরক্ষণের পদ্ধতির বর্ণনা দিয়ে তিনি জানান, জমি থেকে উত্তোলনকৃত আলু তুলনামূলকভাবে ঠাণ্ডা ও বায়ু চলাচল করে এমন শুষ্ক স্থানে সংরক্ষণ করতে হবে। বাঁশের চাটাইয়ের বেড়া এবং ছনের ছাউনি দিয়ে ভূমি থেকে বাঁশের খুঁটি দিয়ে উঁচু করে ঘর তৈরি করতে হবে। আলুর শ্বাস-প্রশ্বাসের তাপ বের হওয়া এবং বায়ু চলাচলের ব্যবস্থা করতে হবে। মেঝেতে বাঁশের চাটাই কিংবা বালু বিছিয়ে আলু রাখতে হবে। এভাবে দেশীয় পদ্ধতিতে ৬ থেকে ৭ মাস আলু সংরক্ষণ করা যায়।





এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘জৈশ-ই-মোহাম্মদ’ নিয়ে চীনের আগ্রহ কোথায়?

সিরিয়ায় আইএস নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়ার দাবি

ভীতুদের দায়িত্ব ছাড়তে বললেন গয়েশ্বর

প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করতে নুর-আখতারের আপত্তি

নরসিংদীতে স্কুলছাত্র নিহতের প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ

রাজাপুরে আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহীদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১০

খালেদার মুক্তির দাবিতে ছাত্রদলের মিছিল

আওয়ামী লীগ একুশের চেতনা বিরোধী: মির্জা ফখরুল

প্রেসিডেন্ট হতে চান ইভানকা, হোয়াইট হাউসের প্রত্যাখ্যান

শরণখোলায় ঘুমন্ত স্বামীকে হত্যাচেষ্টা

ঢাকা সহ ১৩ রুটে ফ্লাইট স্থগিত করেছে ইন্ডিয়ান জেট এয়ারওয়েজ

চট্টগ্রামে দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

ক্রাইস্টচার্চ: সন্তানের লাশ দাফন শেষে হার্র্টঅ্যাটাকে মায়ের মৃত্যু

বিজেপি দুই দফাতেও অর্ধেক আসনে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করতে পারেনি

২৮ বছর পর ডাকসু নির্বাহী কমিটির সভা, দায়িত্ব নিলেন নুর-রাব্বানী

জম্মু ও কাশ্মীরে এবার নিষিদ্ধ জেকেএলএফ