ঠাকুরগাঁওয়ে বিজিবির গুলিতে নিহত ৪ আহত ১৪

অনলাইন

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি | ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, মঙ্গলবার, ৫:০৯ | সর্বশেষ আপডেট: ৭:০৫
গরু নিয়ে কথা কাটাকাটির জের ধরে ঠাকুরগাঁও হরিপুর উপজেলার বহরমপুর গ্রামে বিজিবি ও গ্রামবাসীর মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় বিজিবির গুলিতে চার জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১৪ জন। আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে বিজিবি ও গ্রামবাসীর মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়। আহতদের মধ্যে ২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। নিহতেরা  হলেন নবাব (৩০), সাদেক (৪০), জয়নুল (১৫) অন্য এক জনের পরিচয় জানা যায়নি।  নবাব হরিপুর রুহিয়া গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে ও সাদেক একই গ্রামের জহিরউদ্দিনের ছেলে। এ ঘটনায় বিজিবির দুই সদস্যও আহত হয়েছেন।  

এলাকাবাসী জানান, রাণীশংকৈল উপজেলার যাদুরাণীহাটে স্থানীয়রা হাটে বিক্রির উদ্দেশ্যে গরু নিয়ে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে ঠাকুরগাঁও ৫০ বিজিবির বেতনা সীমান্ত ফাঁড়ির সদস্যরা গরুগুলোকে চোরাই ভারতীয় গরু বলে চ্যালেঞ্জ করেন। এ নিয়ে বিজিবি সদস্যদের সাধে তাদের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। এ সময় বিজিবি গুলিবর্ষণ শুরু করে। প্রায় আধা ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষে বিজিবি শতাধিক রাউন্ড গুলি চালায়। এতে ৩ জন নিহত হয় ও আহত হয় কমপক্ষে ১৪ জন।

গুরুতর আহতদের রংপুর ও দিনাজপুর মেডেকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বিজিবির ঠাকুরগাঁও ৫০ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল তুহিন মোহা. মাসুদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, বিজিবি সদস্যরা কয়েকটি অবৈধ গরু আটক করে নিয়ে আসার সময় বহরমপুর এলাকায় চোরাকারবারীরা ধারালো অস্ত্রসস্ত্রসহ সংঘবদ্ধভাবে হামলা চালায়। ফলে বিজিবি সদস্যরা আত্মরক্ষার্থে গুলি ছুড়তে বাধ্য হন। এতে ঘটনাস্থলেই দুজন নিহত হন। চোরাকারবারীদের হামলায় দুজন বিজিবি সদস্য আহত হয়েছে বলেও তিনি জানান। কত রাউন্ড গুলি বর্ষন করা হয়েছে এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, গুলির হিসাব এখনো শেষ হয়নি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Mohammed Ali

২০১৯-০২-১২ ১০:৩৩:১৫

পৃথিবীর মধ্যে বাংলাদেশের মানুষের জীবন সবচেয়ে সস্তা। আমি মনে করি এই দেশে জন্ম নেওয়াটাই পাপ।

আপনার মতামত দিন

ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে সিবিআই

ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী চিদাম্বরম গ্রেপ্তার

বিএনপি-জামায়াতের পৃষ্ঠপোষকতায় ২১শে আগস্ট হামলা

পরিচ্ছন্নতা অভিযানের পরের দিন আগের চিত্র

কাশ্মীর ইস্যু ভারতের অভ্যন্তরীণ

কাশ্মীরের যে এলাকা এখনো মুক্ত

সর্ষের মধ্যে ভূত থাকতে নেই: হাইকোর্ট

ফেসবুক গ্রুপ ‘গার্লস প্রায়োরিটি’র অ্যাডমিন কারাগারে

বিতর্ক দমাতে ফুটেজ চান মেয়র আরিফ

ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক ইতিবাচক পথেই রয়েছে: জয়শঙ্কর

কে হচ্ছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও মুখ্য সচিব

তারেকের সর্বোচ্চ শাস্তির জন্য আপিল করা হবে

ডেঙ্গু পরিস্থিতি: রোগী কমে-বাড়ে ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি ১৬২৬

এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় দুই সিটিতে ৩৯০০০০ টাকা জরিমানা

মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে নতুন করে অস্থিরতা নিহত ১৯

৫ বছরে আমানত ৫ হাজার কোটি টাকা