ফেঞ্চুগঞ্জে চূড়ান্ত হয়নি আওয়ামী লীগ প্রার্থী

বাংলারজমিন

হাসান চৌধুরী ফেঞ্চুগঞ্জ থেকে | ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:১২
শিল্পশহর ফেঞ্চুগঞ্জ্‌ উপজেলায় বইছে নির্বাচনী হাওয়া। তফসিল ঘোষণার পর পরই নির্বাচনী তোড়ে ভেলা ভাসিয়েছেন প্রায় ডজনখানেক প্রার্থী। আসন্ন নির্বাচনে প্রার্থী হতে এই উপজেলায় আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী দোড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। দলীয় প্রতীকে নির্বাচন অনুষ্ঠানে সরকারীদল আওয়ামী লীগ সিন্ধান্ত নিলেও এখনো চূড়ান্ত হয়নি এই উপজেলার প্রার্থী নাম। অপরদিকে  কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের আলোকে দলীয় প্রার্থী মনোনীত করেনি উপজেলা বিএনপি। নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন জামায়াতে ইসলামী মনোনীত বর্তমান  ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাইফুল্লাহ আল হোসাইন। নির্বাচনে অংশ নিতে দলীয় সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগের নুরুল ইসলাম এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাসিত টুটুল। বিগত উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ছিলেন আব্দুল বাসিত টুটুল এবং বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন নুরুল ইসলাম।
আজকালের মধ্যেই প্রার্থী মনোনীত হবেন বলে জানান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সমপাদক মুহিব উদ্দিন বাদল। সেই লক্ষ্যে গতকাল ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি, সেক্রেটারি স্বাক্ষরিত প্রস্তাবে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ৪ জনের নাম্‌ উল্লেখ করে লিখিত প্রস্তাব জেলায় প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি জানান, জেলা কমিটির মাধ্যমে তা কেন্দ্রে প্রেরণ করা হবে। আওয়ামী লীগ হাইকমান্ড যাকে মনোনীত করবে উপজেলা আওয়ামী লীগ তার পক্ষেই কাজ করবে বলে তিনি জানান। উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তাবে যাদের নাম রয়েছে তারা হলেন- সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও সাংবাদিক শাহ মুজিবুর রহমান জকন, প্রাক্তণ ছাত্রলীগ সম্পাদক জাহিদ ইকবাল সুনাম, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ডিএম ফয়সল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আউয়াল কয়েস। অপরদিকে আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে যারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন বলে শোনা যাচ্ছে তারা হলেন- সিলেট জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাংবাদিক আব্দুল আহাদ খান জামাল, বিএনপি নেতা ওহিদুজ্জামান ছুফি চৌধুরী এবং প্রবাসি কমিউনিটি নেতা হারুন চৌধুরী। ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক তছলিম আহমদ নিহার জানান, দলীয় সিদ্ধান্তকে শ্রদ্ধা জানিয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা বিএনপি  এই নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী দেয়নি এবং নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে না। নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, আগামী ২৪শে মার্চ ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ব্যাপক প্র্‌স্তুতি গ্রহণ করেছে। ফেঞ্চুগঞ্জে বর্তমান ভোটার ৭২ হাজার ৬৫৪ জন। ৫টি ইউনিয়নে কেন্দ্র রয়েছে ৩৬টি। ২০০৯ সালের ২২শে জানুয়ারি ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনে জামায়াত নেতা সাইফুল্লাহ আল হোসাইন সাড়ে ৪ হাজার ভোট বেশি পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন্‌ ।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

JK

২০১৯-০২-১০ ২০:০৪:৫৫

সাইফুল্লাহ ভাই কে আমারা আবার উপজেলা নির্বাচনে নির্বাচিত দেখতে চাই।

আপনার মতামত দিন

নতুনদের কাছে কোনটা প্রিয়; ফেসবুক নাকি লিটল ম্যাগাজিন?

ফেসবুকে পরিচয়,প্রেম-বিয়ে অত:পর

পরিবারের সবাইকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে শ্যালিকাকে ধর্ষণ

ভারতের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক ডিএনএতে: ক্রাউন প্রিন্স

'খালেদা জিয়া কবে মুক্তি পাবেন?'

গ্যাস সরবরাহ বন্ধ, দুর্ভোগ

এবার দল থেকে পদত্যাগ করলেন ৩ কনজারভেটিভ এমপি

চট্টগ্রামে পিকনিক বাসে ট্রেনের ধাক্কা, আহত ১৩

র‌্যাগিংয়ের অভিযোগে ইবির ৫ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ের অভিনব সাজা

আড়ং মোড়ে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণ, ২ গাড়িতে আগুন, দগ্ধ ৫

পাবনায় হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

অর্থনৈতিক সফলতায় বাংলাদেশি রেসিপি

প্রশ্নফাঁস ও ফলাফল পরিবর্তন করে দেয়ার নামে প্রতারণা, গ্রেপ্তার ৪

৪র্থ ধাপে ১২২ উপজেলায় নির্বাচন ৩১শে মার্চ

নিভৃতচারী এক ভাষাসৈনিক খলিলুর রহমান, মেলেনি রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি