ফেসবুকে নায়িকা বাস্তবে...

বিনোদন

এন আই বুলবুল | ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:২৮
নায়িকা মানেই যেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের বিভিন্ন অশ্লীল ছবি পোস্ট করা। নির্মাণ হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই এমন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়া। আর নায়িকা মানেই যেন একটি-দু’টি মিউজিক ভিডিও বা নাটকে অভিনয় করে প্রচারে আসার চেষ্টা চালানো। বলা হচ্ছে কেবল ফেসবুকেই নায়িকা হিসেবে পরিচিত এমন তরুণীদের কথা। কিন্তু বাস্তবে এরা নায়িকা হওয়া তো দূরের কথা, অভিনয় অঙ্গনে তেমন একটা দেখাও মেলে না তাদের। এদের মধ্যে কারো কারো রয়েছে লক্ষাধিক বা আরো বেশি ফলোয়ার। ফেসবুকে এদের ব্যাপক বিচরণ দেখে আজকাল সাধারণ অনেক মানুষই তাদের মনে করেন দেশের চলচ্চিত্র বা টিভি নাটকের ব্যস্ত নায়িকা। বছরের পর বছর মিডিয়াতে কাজ করে কবরী, শাবানা, ববিতা, চম্পা, সুবর্ণা মুস্তাফা, বিপাশা হায়াত, শমী কায়সার,  মৌসুমী, শাবনুর, পপি, অপি করিম,  দীপা খন্দকার, নাদিয়া আহমেদ, সুমাইয়া শিমু ও নুসরাত ইমরোজ তিশাদের মতো নায়িকাদের অর্জন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এই হাইব্রিড নায়িকাদের কারণে।
ফেসবুকে বরাবরই বাড়ছে এই স্বঘোষিত নায়িকাদের সংখ্যা। অনেকেই বলেন, নামের সঙ্গে নায়িকা শব্দটি যোগ করে তারা নিজেদের স্বার্থ উদ্ধার করছেন। আসলে অভিনয়ের প্রতি তাদের কোনো আগ্রহই নেই। শোবিজ মানেই তাদের কাছে রাতারাতি বাড়ি-গাড়ির মালিক হওয়া। অনেকে সফলও হচ্ছেন। কিন্তু প্রশ্ন থেকে যায়, তাদের এই বেহায়াপনা ও অসভ্যতার কারণে আমাদের মিডিয়াতে কি আগামীতে ভালো কিছু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে? না কি একটি স্বাধীন দেশের সংস্কৃতির অধঃপতন ঘটছে? প্রায় দেখা যায়, ফেসবুকে স্বঘোষিত অনেক নায়িকা নগ্ন ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে লেখেন-নগ্নতাই অশ্লীলতা নয়। তবে কি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে নগ্ন ছবি পোস্ট করা মানেই শিল্প? অনেক সিনিয়র শিল্পী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এসব প্রতিকারে কি আমাদের দেশে কোনো ব্যবস্থা নেই? বিশিষ্ট অভিনেত্রী লাকী ইনাম বলেন, নামের আগে নায়িকা শব্দ যোগ করলেই নায়িকা হওয়া যায় না। যারা এমনটা করছেন তাদের দেখতে হবে সুবর্ণাদের মতো অভিনেত্রী কিভাবে আজকের এই অবস্থানে এসেছেন। রাষ্ট্রীয় সম্মান পাচ্ছেন কিসের যোগ্যতায়? সত্যি বলতে, যে যত বেশি শিক্ষিত সে তত বিজ্ঞ হবে। এখন আমাদের এই সময়ের অনেক অভিনেত্রীর মধ্যেই সচেতনতা ও শিক্ষার অভাব আছে। এ ছাড়া যারা শোবিজে নিয়মিত কাজ করছেন তাদেরও দেখতে হবে কে শিল্পী আর কে শিল্পীর নাম ভাঙিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন। সবার একটু সচেতনতায় এরা নিজেরাই ভুল বুঝতে পারবে। এক সময় নিজেরাই আড়ালে চলে যাবে। নাট্যকার ও নিদের্শক জিনাত হাকিম বলেন, সম্প্রতি দেখা কিছু বিষয়ে নিজেকেই লজ্জায় মুখ ঢাকতে হয়। সানাই, রেশমী বা নায়লাসহ আরো কিছু অসুস্থ মানসিকতার মেয়ে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে সমাজকে কলুষিত করার স্পর্ধা দেখিয়ে যাচ্ছে। সাংস্কৃতিক কর্মীর লেবাসের আড়ালে অনৈতিক কাজের সুবিধা নিতে নিজের বাজার তৈরি করার চতুরতায় সেলিব্রেটি ভাব ধরে মিডিয়ার সম্ভ্রান্ত ঘরের মেয়েদের বিব্রত করছে। এ ধরনের কিছু মেয়ের অসভ্যতায় নানা আপত্তিকর কথা শুনতে হয় প্রকৃত শিল্পীদের। এই সব কথিত স্বঘোষিত শিল্পীদের ব্যাপারে কেন কোনো পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে না? অনৈতিক অসভ্য আচরণের মাধ্যমে সমাজের অবক্ষয় ডেকে আনার জন্য তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যাবস্থার প্রতিবাদে সবাই কেন সোচ্চার হচ্ছে না তা বোধগম্য নয়। শিল্পীদের সম্মান ক্ষুণ্নকারী যারা তাদের অনৈতিক কর্মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ হোক। এই সব অ-শিল্পীদেরও আইনের আওতায় আনা হোক। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত অভিনেত্রী পপি বলেন, এটা আমাদের জন্য সত্যি লজ্জার বিষয় এবং ইন্ডাস্ট্রির জন্যও ক্ষতিকর। ফেসবুকের এই নায়িকাদের কারণে প্রকৃত শিল্পীরা কোথাও গেলে তাদের নানা নেতিবাচক কথা শুনতে হয়। এখন অনেক মেয়ে শোবিজে আসে কোটিপতি বা শিল্পপতিদের ছেলেদের বিয়ে করতে। ভাবে নায়িকা হলেই এটি তাদের জন্য সহজ হয়ে যাবে। আমি মনে করি, আমাদের শোবিজে যারা বিনিয়োগ করছেন, তাদের ভালোভাবে জানা প্রয়োজন কারা প্রকৃত শিল্পী। কার পেছনে বিনিয়োগ করলে শোবিজের উন্নতি হবে। তাহলে হয়তো এ অবস্থার পরিবর্তন আসবে। আমরা অনেক পরিশ্রম করে আজকের এপর্যায়ে এসেছি। সোশ্যাল মিডিয়ার তথাকথিত নায়িকাদের নিজের সম্পর্কে যেভাবে ঢাকঢোল পেটাতে দেখা যায় সত্যিকারের নায়িকা হওয়া তেমন সহজ নয়। শোবিজ বোদ্ধাদের মতে, ফেসবুকে নায়িকার ছড়াছড়ি। এ সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। সত্যিকার অর্থে তাদের কারণে প্রকৃত শিল্পীদের সম্মান-মর্যাদা নষ্ট হচ্ছে। অভিনয়-মেধা ও কাজের মধ্য দিয়ে যারা প্রতিষ্ঠিত হতে চান তারা কখনো এমনটা করেন না।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সালাউদ্দিন লাভলু হাসপাতালে

জামায়াতের গন্তব্য কোথায়?

সড়কের শৃঙ্খলা ফেরাতে শাজাহান খানের নেতৃত্বে কমিটি

গণশুনানিতে অনড় ঐক্যফ্রন্ট

ঢাকায় যত বাগ

টিকিট বুকিংয়ের নামে প্রতারণা

আমিরাতের প্রতিরক্ষা প্রদর্শনীতে যোগ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে আরো ৭ প্রার্থী

যেভাবে নাসায় ডাক পেলেন পাঁচ তরুণ

ভোগান্তির পর গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক

অর্থ প্রাপ্তি সাপেক্ষে দুই হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি

সানাইয়ের ভুল স্বীকার

ভালোবাসা দিবসের রাতে সাভারে পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষণ

বৃহত্তর ঐক্যে বাম জোট ভোট পেছানোর দাবিতে ছাত্রদল, নির্বাচনমুখী ছাত্রলীগ

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, নির্বাচন কমিশন, জনপ্রশাসন সচিবসহ ৪৪ কর্মকর্তা ফ্ল্যাট পেলেন

এসডিজি অর্জনে সক্ষমতার পথে বাংলাদেশ: স্পিকার