আলাপন

‘নেতৃত্বের পরিবর্তন না এলে চলচ্চিত্রশিল্প পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে যাবে’

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৫৮
দেশীয় চলচ্চিত্রে বর্তমানে পরিচিত এক নাম আবদুল আজিজ। তিনি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার চেয়ারম্যান ও বর্তমান সময়ের অন্যতম একজন চলচ্চিত্র প্রযোজক। ২০১১ সালে তার পরিকল্পনায় গড়ে ওঠে জাজ মাল্টিমিডিয়া। ডিজিটাল চলচ্চিত্রের সঙ্গে তিনি দর্শকদের নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেন। তার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে ‘ভালোবাসার রঙ’, ‘পোড়ামন’, ‘ভালোবাসা আজকাল’, ‘অগ্নি’, ‘অগ্নি টু’, ‘অনেক সাধের ময়না’, ‘দেশা দ্য লিডার’, ‘লালচর’, ‘রক্ত’, ‘নিয়তি’, ‘ডুব’, ‘শিকারি’, ‘বাদশা’, ‘বস টু’, ‘পোড়ামন টু’, ‘দহন’সহ যৌথ ও দেশীয় মিলে ৪৪টি ছবি দর্শকদের উপহার দিয়েছে জাজ। এসেছে নতুন বছর। এ বছরে সিনেমা প্রযোজনা নিয়ে পরিকল্পনা জানতে চাইলে আবদুল আজিজ বলেন, এই বছরও গত বছরের  মতো বেশকিছু ছবি উপহার দেয়ার ইচ্ছে রয়েছে। এরমধ্যে জাজ থেকে ‘প্রেম আমার টু’, ‘বেপরোয়া’, ‘শনিবার বিকেল’ নামের ছবিগুলো দর্শক সামনে প্রেক্ষাগৃহে দেখতে পাবেন।
আর জাজ থেকেই এ বছর ‘জ্বীন’, ‘আয়াত’, ‘মাসুদ রানা’সহ  আরো ছয়টি ছবির নির্মাণ কাজ শুরু হবে। গত বছর কান চলচ্চিত্র উৎসবে দর্শকরা ‘পোড়ামন টু’ দেখেছেন, এবার কি ছবি যাবে? উত্তরে এই প্রযোজক বলেন, এ বছর কান চলচ্চিত্র উৎসবের প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার মতো কোনো সিনেমা রেডি নেই আমাদের। তাই সিনেমা জমা দেয়া হচ্ছে না। ‘শনিবার বিকেল’ ছবিটি সেন্সর থেকে ছাড়পত্র পাওয়ার পর মুক্তির তারিখ ঠিক করবো। এর আগে ‘প্রেম আমার টু’ ছবিটি মুক্তি পাবে। যৌথ প্রযোজনার এ ছবিতে কলকাতার আদৃত ও বাংলাদেশের পূজা চেরি অভিনয় করেছেন। দূর্দান্ত প্রেমের গল্পের ছবি এটি। জাজ থেকে বাপ্পি, মাহি, নুসরাত ফারিয়া, রোশান, পূজা চেরিসহ নতুন মুখ হিসেবে এসে অনেকেই দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছেন। সেক্ষেত্রে এ বছর জাজ থেকে নতুন মুখ আসবে কি? এ প্রশ্নের উত্তরে আবদুল আজিজ বলেন, হ্যাঁ। জাজ  থেকে এ বছর বেশকিছু নতুন মুখ আসবে। এরা আমাদের কঢেকটি সিনেমায় কাজ করবে। জাজের ৪৪টি সিনেমার মধ্যে ১৩টি ছিল যৌথ প্রযোজনার, বাকিসব দেশীয় প্রযোজনায় নির্মাণ। জাজ নতুন গল্প নিয়ে গবেষণা করে। এ বছর কি ধরনের ছবি দর্শকরা দেখতে পাবেন? এর উত্তরে তিনি বলেন, মৌলিক ও আমাদের চার পাশের ঘটনা নিয়েই জাজ সিনেমা বানাবে এই বছর। মৌলিক গল্পের প্রাধান্য থাকছে সবচেয়ে বেশি। এ পর্যন্ত জাজের সিনেমা থেকে ৯টি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এসেছে বলে জানান তিনি। চলচ্চিত্রে প্রযোজনার পাশাপাশি আসছে গ্রন্থমেলার জন্য আবদুল আজিজ ‘কিছু কথা কিছু ব্যাথা’ নামের একটি গ্রন্থ রচনা করেছেন। এ বিষয়ে তিনি বলেন, চলচ্চিত্রের সঙ্গে আট বছরের এই পথচলায় যে অভিজ্ঞতা সঞ্চার করতে পেরেছি তা এবার বই আকারে প্রকাশ করতে যাচ্ছি। ‘কিছু কথা কিছু ব্যথা’র ভূমিকা লিখেছেন কথাসাহিত্যিক ও কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন। যা দেখেছি, যা বিশ্বাস করেছি, তা-ই বইয়ে তুলে ধরেছি। শোবিজের বাইরের মানুষ বইটি পড়লে চলচ্চিত্র সম্পর্কে একটা ধারণা পাবেন। বইটি প্রকাশ করবে বেহুলা বাংলা প্রকাশনী। চলচ্চিত্রের কল্যাণে জাজ নিজেকে টিকিয়ে রাখবে। আর জাজ থাকলেই বাংলাদেশ চলচ্চিত্র থাকবে। চলচ্চিত্রের অবস্থা ভালো না। সামনের দিনগুলো নিয়ে কিছু বলুন? উত্তরে আবদুল আজিজ বলেন, জাজ এখন বন্ধ হয়ে গেলে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রও বন্ধ হয়ে যাবে বলে মনে হয় আমার। চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি ও শিল্পী সমিতি গত বছর চলচ্চিত্রের নেতৃত্ব দিয়েছে, আর তাদের ভুল নেতৃত্ব এবং ব্যক্তিস্বার্থের কারণেই গত বছর চলচ্চিত্রের জন্য খুব খারাপ সময় গেছে। এখন নেতৃত্বের পরিবর্তন না এলে চলচ্চিত্রশিল্প পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে যাবে ।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

খালেদার মুক্তির বিষয়ে আন্তর্জাতিকভাবে পদক্ষেপ নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে: ফখরুল

ডেঙ্গুতে মৃত্যু থামছে না

উফ! কী মর্মান্তিক

‘হাত-পা বেঁধে নাইমকে শ্বাসরোধ করে খুন করি’

চামড়া বিক্রি করছেন না আড়তদাররা

ঢাকায় সড়কে বাড়ছে মৃত্যু

কাশ্মীর সংকট গুরুতর, উদ্বেগজনক

জিএম কাদেরকে সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা হওয়ার প্রস্তাব

আয়কর বিতর্কে কলকাতার দুর্গাপূজো

ডেঙ্গু আক্রান্ত মেয়ে হাসপাতালে এদিকে ঘর পুড়ে ছাই

ওদের সব পুড়ে শেষ

‘কাজ চাই রিলিফ চাই না’

লণ্ডভণ্ড শিডিউল ঠিক হয়নি এখনো

৭ বছর পর পরিবারকে ফিরে পেয়ে আবেগাপ্লুত খাদিজা

ডেঙ্গু কেড়ে নিয়েছে কিশোরগঞ্জের ছয় প্রাণ

প্রশ্নকারী মডারেটর পরীক্ষক খুঁজছে পিএসসি