এমন হারে হতবাক সেরেনাও

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার
ম্যাচ নির্ধারণী তৃতীয় সেটে ৫-১ গেমে এগিয়ে ছিলেন তিনি। ওই পর্যায় থেকে সেরেনা উইলিয়ামস হেরে যাবেন, এমন বাজি ধরার লোক হয়তো খুঁজে পাওয়া যাবে না। কিন্তু গতকাল অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে সেই অকল্পনীয় ঘটনাই ঘটলো। সেরেনার বিপক্ষে অবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তনে এমন অভাবনীয় জয় ক্যারোলিনা প্লিসকোভার ক্যারিয়ারে অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। মেলবোর্নের রড লেভার অ্যারেনায় চারবার ম্যাচ পয়েন্ট হাতছাড়া করেন সাবেক ওয়ার্ল্ড নাম্বার ওয়ান সেরেনা। আর তৃতীয় সেটে টানা ৬টি গেম জিতে ইতিহাস গড়েন চেক প্রজাতন্ত্র তারকা। তিন সেটের লড়াইয়ে সপ্তম বাছাই প্লিসকোভার বিপক্ষে এগিয়ে থেকেও ৬-৪, ৪-৬, ৭-৫ গেমে হারের হতাশায় নিমজ্জিত হন ১৬তম বাছাই মার্কিন সুপারস্টার। আর টেনিসের নারী এককে অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি মার্গারেট কোর্টের সর্বকালের রেকর্ড ২৪টি গ্র্যান্ড স্লাম ছোঁয়ার অপেক্ষাও বাড়লো ৩৭ বছর বয়সী সেরেনার। হাতের নাগাল থেকে এভাবে জয় হাতছাড়া হওয়ায় সেরেনা নিজেই হতবাক। ক্যারিয়ারে এমন হার কখনো দেখেননি বলেও অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি। পাশাপাশি প্লিসকোভার ভূয়সী প্রশংসা করতেও ভোলেননি। তবে হারের কারণ হিসেবে গোড়ালির ইনজুরিকে বড় করে দেখতে নারাজ সেরেনা। একইসঙ্গে চাপের মুখে ভেঙে পড়ার কথাও উড়িয়ে দেন তিনি। তৃতীয় সেটে ৫-১ গেম ও ৪০-৩০ পয়েন্টে এগিয়ে থেকে প্রথম ম্যাচ পয়েন্টের জন্য সার্ভিস করার সময়ই বাম পায়ের অ্যাঙ্কেলে অস্বস্তি অনুভব করেন সেরেনা। এরপর সার্ভিস থেকে আর এক পয়েন্টও জিততে পারেননি প্রতিযোগিতার ৭ বারের চ্যাম্পিয়ন। ম্যাচ শেষে সেরেনা বলেন, ‘ম্যাচ পয়েন্টের সময় আমি কোনো ভুল করিনি। আমি ভেঙে পড়েছি সে কথাও বলতে পারি না। প্লিসকোভা অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্স দেখিয়েছে। সে পাগলের মতো খেলেছে। আমার অ্যাঙ্কেল নিয়ে কিছু করার ছিল না। অবশ্যই আমি কিছু ভুল করেছি এবং প্লিসকোভা তার ক্যারিয়ারের সেরা খেলা প্রদর্শন করেছে।’ বয়সে সেরেনার চেয়ে ১১ বছরের ছোট প্লিসকোভার সামনে প্রথমবার গ্র্যান্ডস্লাম শিরোপা জয়ের হাতছানি। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘৫-১ গেমে পিছিয়ে থেকে আমি প্রায় লকার রুমে চলে গিয়েছিলাম। মানসিকভাবেও ভেঙে পড়েছিলাম। কিন্তু সেরেনা কিছুটা নড়বড়ে ছিল। আর আমি সেই সুযোগটাই কাজে লাগায় এবং শেষ পর্যন্ত বিজয়ী হিসেবে দাঁড়িয়েছি। আমার ক্যারিয়ারে এটাই সেরা প্রত্যাবর্তন।’ মাতৃত্বকালীন অবকাশের কারণে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের গত আসরে অংশ নেননি ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন সেরেনা। এবার বিশ্বের এক নম্বর খেলোয়াড় রুমানিয়ার সিমোনা হালেপকে তিন সেটে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিলেন তিনি। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে জাপানিজ তরুণী নাওমি ওসাকার মুখোমুখি হবেন প্লিসকোভা। ইউক্রেনের এলিনা ভিতোলিনাকে সরাসরি সেট ৬-৪, ৬-১ গেমে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের বাধা পার করেন ওসাকা। সেমিফাইনালের প্রতিপক্ষ নিয়ে প্লিসকোভা বলেন, নাওমি ওসাকা বিপজ্জনক কিন্তু সেরেনার চেয়ে কেউই বেশি বিপজ্জনক নয়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে সিবিআই

ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী চিদাম্বরম গ্রেপ্তার

বিএনপি-জামায়াতের পৃষ্ঠপোষকতায় ২১শে আগস্ট হামলা

পরিচ্ছন্নতা অভিযানের পরের দিন আগের চিত্র

কাশ্মীর ইস্যু ভারতের অভ্যন্তরীণ

কাশ্মীরের যে এলাকা এখনো মুক্ত

সর্ষের মধ্যে ভূত থাকতে নেই: হাইকোর্ট

ফেসবুক গ্রুপ ‘গার্লস প্রায়োরিটি’র অ্যাডমিন কারাগারে

বিতর্ক দমাতে ফুটেজ চান মেয়র আরিফ

ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক ইতিবাচক পথেই রয়েছে: জয়শঙ্কর

কে হচ্ছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও মুখ্য সচিব

তারেকের সর্বোচ্চ শাস্তির জন্য আপিল করা হবে

ডেঙ্গু পরিস্থিতি: রোগী কমে-বাড়ে ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি ১৬২৬

এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় দুই সিটিতে ৩৯০০০০ টাকা জরিমানা

মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে নতুন করে অস্থিরতা নিহত ১৯

৫ বছরে আমানত ৫ হাজার কোটি টাকা