সাধারণ মানুষের পাশে থাকার প্রত্যাশায়

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ২২ জানুয়ারি ২০১৯, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:২৭
নতুন মেয়াদে সংরক্ষিত নারী আসনে সংসদ সদস্য হতে সরব হয়েছেন আওয়ামী লীগের অনেক নেত্রী। তবে এবার এক্ষেত্রে বিভিন্ন পেশাজীবী নারীর পাশাপাশি আলোচনায় এসেছেন টিভি ও চলচ্চিত্রের অভিনেত্রীরাও। এর কারণ হিসেবে তারা জানিয়েছেন, সংসদ সদস্য হয়ে সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে চান। এর আগে কোনো নির্বাচনে একসঙ্গে এত অভিনেত্রী সংরক্ষিত নারী আসনের প্রার্থী হতে দেখা যায়নি। বলতে গেলে এবার শোবিজের একঝাঁক তারকা সংরক্ষিত নারী আসনে সংসদ সদস্য হতে দৌড়ঝাঁপ করছেন। অভিনেত্রী সুজাতা অনেকদিন ধরেই জড়িত রয়েছেন আওয়ামী সাংস্কৃতিক জোটের সঙ্গে। এবার তিনি সংরক্ষিত নারী আসনে সংসদ সদস্য হতে চাচ্ছেন। তিনি এক কথায় জানান, সাধারণ মানুষের পাশে থেকে তাদের জন্য কাজ করতে চাচ্ছি।
২০০৮ সালে সংসদে সরাসরি ভোটে এমপি হয়েছিলেন রুপালি পর্দায় মিষ্টি মেয়েখ্যাত অভিনেত্রী কবরী। দীর্ঘদিন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। এবার তিনি সংরক্ষিত নারী আসনে এমপি হতে চান। দীর্ঘদিন ধরেই রাজনীতিতে সক্রিয় জনপ্রিয় অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচী। নিয়মিতই তাকে রাজপথে পাওয়া যায় আওয়ামী লীগের বিভিন্ন কার্যক্রমে। ফেনী-৩ আসনে নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীও ছিলেন এই অভিনেত্রী। তবে শেষ পর্যন্ত টিকিট পাননি। এবার তিনি আশা করছেন
সংরক্ষিত আসনে দল থেকে মনোনয়ন পাবেন ও নির্বাচিত হয়ে নারী সমাজের জন্য কাজ করবেন। শহীদ বুদ্ধিজীবী শহীদুল্লাহ কায়সারের মেয়ে ও অভিনেত্রী শমী কায়সার। তিনিও গেল কয়েক বছর ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় হয়েছেন। সরাসরি নির্বাচনের টিকিট না পেলেও তিনি আশা করছেন সংরক্ষিত নারী আসনের মনোনয়ন পেয়ে দেশ ও দশের জন্য কাজ করবেন। আলোচনায় আছেন চলচ্চিত্রের প্রিয়দর্শিনীখ্যাত অভিনেত্রী মৌসুমী। তিনি বলেন, আমি কখনো কোনো দল করিনি। অনেকদিন ধরেই নারী ও শিশুদের জন্য কাজ করে আসছি। সংরক্ষিত নারী আসনের জন্য আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র কিনেছি এবার। নারী, শিশুসহ আপামর সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে চাই। চলচ্চিত্রের অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস। সংরক্ষিত নারী আসনে এমপি হতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চান তিনি। এদের ছাড়াও এবার সংরক্ষিত নারী আসনে এমপি হতে অভিনেত্রী নূতন, অঞ্জনা, সুর্বণা মুস্তাফা, দিলারা, ফাল্গুনী হামিদ, অরুণা বিশ্বাস, তারিন, জ্যোতিকা জ্যোতি, সাহারা, শাহনূর, মিষ্টি জান্নাতসহ আরো অনেকে মনোনয়নপত্র কিনেছেন। এদের সবার একটাই কথা, সংসদ সদস্য হয়ে দেশ ও নারীদের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করবেন। আর সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে চান সবসময়। এদিকে জানা গেছে, ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি তফসিল দিয়ে মার্চের মধ্যে ভোটগ্রহণ করা হবে।





এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন