আলাপন

‘সব ঠিক থাকলে ওয়েব সিরিজের কাজে আপত্তি নেই’

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ২১ জানুয়ারি ২০১৯, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:২৩
চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা দীর্ঘদিন পর চলচ্চিত্রে ফিরেছেন। গত বছরের ডিসেম্বরে এফডিসিতে ‘জ্যাম’ ছবির বিশাল সেট ফেলা হয়। সেটটি দেখে অনেক নির্মাতা বেশ প্রশংসা করেছেন। ঢাকা শহরের রাস্তার জ্যাম তুলে ধরার জন্যই মূলত এই সেটটি বানানো। ‘জ্যাম’-এর শুটিং করতে বাস, ট্রাক, প্রাইভেট কার, সিএনজি চালিত অটোরিকশার সমন্বয়ে একটি ব্যতিক্রমী আয়োজন করেন নির্মাতা। সেই শুটিংয়ে অংশ নেন পূর্ণিমা। অনেকদিন পর চলচ্চিত্রের কাজে ফিরেছেন তিনি। বর্তমানে নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূলের নির্দেশনায় ‘জ্যাম’ ছবির কাজ করছেন। এরপর একই নির্মাতার ‘গাঙচিল’ ছবির কাজ শুরু করবেন তিনি। পূর্ণিমা বলেন, এরইমধ্যে এফডিসিতে ‘জ্যাম’ ছবির বেশকিছু অংশের শুটিং শেষ হয়েছে। কাজটি করে খুব ভালো লাগছে। এ ছবিতে ভালো একটি গল্প রয়েছে। ফেরদৌস, আরিফিন শুভসহ অনেকে এতে কাজ করছেন। কাজ এখনো সাত-আটদিন বাকি। ছবিটি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘জ্যাম’ কোনো নায়ক বা নায়িকা কেন্দ্রিক না। পুরোটা গল্পনির্ভর ছবি। প্রয়াত জনপ্রিয় নায়ক মান্নার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান কৃতাঞ্জলী কথাচিত্রের ব্যানারে এটি নির্মাণ হচ্ছে। এরইমধ্যে এ ছবির কাজ শেষ করে নেয়ামূলের পরের ছবি ‘গাঙচিল’ এর কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন পূর্ণিমা। ‘গাঙচিল’ ছবিতে প্রধান চরিত্রে তিনি ও ফেরদৌস অভিনয় করবেন। নতুন এ ছবির বিষয়ে পূর্ণিমা বলেন, এর কাজ আগামী ৫ই ফেব্রুয়ারি থেকে নোয়াখালিতে শুরু হবে। টানা পাঁচদিন সেখানে শুটিং করব।

এরপর ঢাকা আসতে হবে আমাকে। কারণ আমার মেয়ে আরশিয়া স্কুলে ভর্তি হয়েছে। তার দেখাশুনা করতে হয় এখন। চাইলেও অনেক কাজ একসঙ্গে করতে পারি না এখন। এরইমধ্যে ভালোবাসা দিবসের জন্য নাটক, ওয়েব সিরিজের কাজের প্রস্তাব পেয়েছিলাম। তবে ‘গাঙচিল’ ছবিতে সময় দেয়ার কারণে অন্য কাজ হাতে নেয়া হয়নি এখন। কথার রেশ ধরেই জানতে চাওয়া ওয়েব সিরিজ তো এখন অনেক শিল্পীই কাজ করছেন। আপনার কি এসব ওয়েব সিরিজ নেটফ্লিক্স বা অন্য কোনো কোম্পানীর ইউটিউব চ্যানেলে দেখা হয়েছে? উত্তরে পূর্ণিমা বলেন, না। আমি এখনো কোনো নির্মাতার পরিচালনায় ওয়েব সিরিজ দেখার সময় পাইনি। তবে ওয়েব সিরিজে কাজ করার ইচ্ছে রয়েছে। ভালো গল্প, বাজেট সব ঠিক থাকলে ওয়েব সিরিজের কাজে আপত্তি নেই আমার। তবে কনটেন্ট বা এর গল্পটা শক্তিশালী হতে হবে। এদিকে ‘গাঙচিল’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য ঢাকায় কিছুদিন আগে স্কুটি চালানো শিখেছেন পূর্ণিমা। আর এক্ষেত্রে তাকে সহযোগিতা করেছেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস। সে বিষয়ে পূর্ণিমা বলেন, এ ছবিতে আমার চরিত্রের নাম মোহনা।

নোয়াখালীর সুবর্ণচরের বাসিন্দাদের জীবনের নানা ঘটনা এই ছবির প্রধান উপজীব্য। এই অঞ্চলে এনজিওকর্মী হিসেবে দর্শকরা বড়পর্দায় আমাকে দেখতে পাবেন। আর ফেরদৌস সাংবাদিক চরিত্রে অভিনয় করবেন। এ ছবিটি নিয়েও আমি বেশ আশাবাদী। ভালোভাবে কাজটি শেষ করতে চাই। দীর্ঘদিন পর চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি আরটিভিতে পূর্ণিমার উপস্থাপনায় ‘এবং পূর্ণিমা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানটি দর্শক বেশ পছন্দ করছেন। এরইমধ্যে এ অনুষ্ঠানটির সব পর্বের শুটিং শেষ হয়েছে বলেও জানান তিনি। এছাড়া ‘কে হবে মাসুদ রানা’ শিরোনামের রিয়েলিটি শোর বিচারক হয়েছেন পূর্ণিমা। চ্যানেল আইয়ের আয়োজনে এই শোর বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় বিচারক হিসেবে কাজ করেন তিনি। সামনে ‘গাঙচিল’ এর শুটিং নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন তিনি। এরপর গল্প, বাজেট সব মিললেই শুরু করবেন আবারো নতুন ছবির কাজ।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

দেশে ফিরতে অনীহা রোহিঙ্গাদের

২ মাসেও সন্ধান পাওয়া যায়নি হবিগঞ্জের সুমনের

লক্ষ্মীপুরে ব্যবসায়ীকে গলাকেটে হত্যা

বিয়ের ২২দিন পর একই রশিতে স্বামী-স্ত্রীর আত্মহত্যা

রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন পরিকল্পনা স্থগিত করার আহ্বান হিউম্যান রাইটস ওয়াচের

ফেনীতে নিখোঁজের ৭দিন পর স্কুুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

‘এটা আমাদের ইন্ডাস্ট্রির জন্য ইতিবাচক’

নানা চোখে জয়শঙ্করের ঢাকা সফর

এখনো যন্ত্রণা বয়ে বেড়াচ্ছে ওরা

ভয়াল ২১শে আগস্ট আজ

জন্মের পরই ডেঙ্গু যন্ত্রণায়

ডেঙ্গু পরীক্ষায় ব্যস্ত কর্মী এখন নিজেই ডেঙ্গু রোগী

এনআরসি ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়

ডেঙ্গুর সমাধান খুঁজতে ৩ সংস্থার প্রতিনিধি ঢাকায়

ধর্ষণের পর হত্যা

সড়কে আর কত মৃত্যু?