বিয়ে হলো তারিক-নিমার ছেলে আরিকের

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ২০ জানুয়ারি ২০১৯, রোববার
মঞ্চ, টিভি নাটক ও চলচ্চিত্রের বিশিষ্ট অভিনেতা ও নির্দেশক তারিক আনাম খান এবং অভিনেত্রী ও নির্মাতা নিমা রহমানের একমাত্র ছেলে আরিক আনাম খান দীপ্র’র বিয়ে হলো। পাত্রী এগনেস র‌্যাচেল প্যারিস (প্রিয়াংকা)। দুজনের বিয়ে সম্পন্ন হয় মুসলিম ও খ্রিষ্টান মতে। গত বৃহস্পতিবার সকালে তাদের আক্দ হয়েছে বনানীর এক রেস্তরাঁয়। আর রমনা চার্চে খ্রিষ্টান মতে বিয়ে হয়েছে শনিবার। এরপর একই দিন সন্ধ্যায় রাজধানীর ঢাকা সেনানিবাসের সেনাকুঞ্জে তাদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠান টিভি, চলচ্চিত্র, মঞ্চ আর সংগীত জগতের তারকাদের এক মিলনমেলায় পরিণত হয়। এর আগে গত বুধবার পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাবে হয়েছে গায়ে হলুদ ও মেহেদি অনুষ্ঠান।
উল্লেখ্য, আরিক আনাম খান সম্প্রতি লন্ডন ফিল্ম স্কুল থেকে ডিরেকশনের ওপর স্নাতকোত্তর করেছেন। তিনি নিজেও মঞ্চ ও টিভি নাটকে অভিনয় করছেন। আর তার স্ত্রী এগনেস র‌্যাচেল প্যারিস নৃত্যশিল্পী। তিনি এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃত্যকলা বিভাগের প্রভাষক। নাচের ওপর পড়াশোনা করেছেন কলকাতার রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে। সেখান থেকে তিনি স্নাতকোত্তর ও এমফিল করেছেন। সামনে সেখানেই পিএইচডি করবেন। এগনেস র‌্যাচেল প্যারিসের সঙ্গে আরিক আনাম খানের পরিচয় হয় ২০১৫ সালের মার্চ মাসে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

২০১৯-০১-২০ ০৭:২৩:৩২

দেশ টা নাস্তিকে ভরে গেছে

আপনার মতামত দিন

নতুনদের কাছে কোনটা প্রিয়; ফেসবুক নাকি লিটল ম্যাগাজিন?

ফেসবুকে পরিচয়,প্রেম-বিয়ে অত:পর

পরিবারের সবাইকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে শ্যালিকাকে ধর্ষণ

ভারতের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক ডিএনএতে: ক্রাউন প্রিন্স

গ্যাস সরবরাহ বন্ধ, দুর্ভোগ

এবার দল থেকে পদত্যাগ করলেন ৩ কনজারভেটিভ এমপি

চট্টগ্রামে পিকনিক বাসে ট্রেনের ধাক্কা, আহত ১৩

পদকপ্রাপ্তদের মাঝে একুশে পদক প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী

র‌্যাগিংয়ের অভিযোগে ইবির ৫ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ের অভিনব সাজা

আড়ং মোড়ে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণ, ২ গাড়িতে আগুন, দগ্ধ ৫

পাবনায় হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

অর্থনৈতিক সফলতায় বাংলাদেশি রেসিপি

প্রশ্নফাঁস ও ফলাফল পরিবর্তন করে দেয়ার নামে প্রতারণা, গ্রেপ্তার ৪

৪র্থ ধাপে ১২২ উপজেলায় নির্বাচন ৩১শে মার্চ

নিভৃতচারী এক ভাষাসৈনিক খলিলুর রহমান, মেলেনি রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি