তবে কি আলিসের বিপিএল শেষ?

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৯ জানুয়ারি ২০১৯, শনিবার
নেট বোলার থেকে রাতারাতি খ্যাতি অর্জন করেন আলিস আল ইসলাম। বিপিএলে ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে অভিষেক ম্যাচেই হ্যাটট্রিক করে বিশ্বব্যাপী সাড়া ফেলে দেন ২২ বছর বয়সী এই অফস্পিনার। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে অভিষেক ম্যাচে কোনো বোলারের এটাই প্রথম হ্যাটট্রিকের রেকর্ড। কিন্তু হাঁটুতে চোট পেয়ে আলিসের বিপিএলের পথচলা অনিশ্চিত হয়ে পড়লো। গতকাল সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে লং-অনে ফিল্ডিং করার সময় বল কুড়িয়ে ফেরতে পাঠানোর সময় হাঁটুতে টান লাগলে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন আলিস। পরে ইনিংসের নবম ওভারে বোলিংয়ে এসে ডেলিভারির আগে আবারো হাঁটুতে টান লাগে। এরপর বাধ্য হয়েই তাকে মাঠ ছাড়তে হয়। তার আগে ১ ওভার বোলিং করে ২ রান দেন আলিস।
প্রাথমিক পর্যবেক্ষণের পর আলিসের চোট নিয়ে ঢাকার টিম ম্যানেজার আজম ইকবাল বলেন, ‘আলিসের চোট আমরা যা দেখেছি তাতে একটু বেশিই মনে হচ্ছে। এক্স-রে, এমআরআই করানোর আগ পর্যন্ত নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছি না। মনে হচ্ছে না, সে ভালো অবস্থায় আছে।’ গত ১১ই জানুয়ারি মিরপুরে রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে হ্যাটট্রিকসহ ৪ উইকেট নিয়ে ঢাকাকে জেতান আলিস। কিন্তু বল হাতে নজর কাড়লেও ওই ম্যাচেই তার বোলিং অ্যাকশন প্রশ্নবিদ্ধ হয়। তার সব ধরনের ডেলিভারিই সন্দেহজনক বলে রিপোর্ট দেন আম্পায়াররা। আর সন্দেহজনক বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগ মাথায় নিয়েই খেলে যাচ্ছিলেন বিপিএল। আগামী ২৬শে জানুয়ারি আলিসের বোলিং পরীক্ষা হওয়ার কথা। কিন্তু তার আগেই পড়লেন হাঁটুর ইনজুরিতে। সাধারণত কোনো বোলার বোলিং অ্যাকশনের দায়ে অভিযুক্ত হলে ১৪ দিন পর্যন্ত ম্যাচ খেলতে পারেন। আর বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষার পর বৈধতার ছাড়পত্র পেলেই ফিরতে পারেন ম্যাচ খেলায়। চোটে পড়ায় পেছাতে পরে আলিসের বোলিং পরীক্ষাও।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন