মিরাজের কাছেই সাকিবের প্রথম হার

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৭ জানুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার
দেশের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার ও অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার রংপুর রাইডার্সকে হারায় মেহেদী হাসান মিরাজের রাজশাহী কিংস। এবার মিরাজের রাজশাহী কিংসের শিকার হলো বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিবের দলও।
মিরপুরে টানা চার জয়ে উড়ছিল ঢাকা ডায়নামাইটস। বিশেষ করে তাদের ব্যাটিংয়ের সামনে যেন পাত্তাই পাচ্ছিল না কেউ। তবে সেই ডায়নামাইটসকে সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে দেখা গেল ভিন্ন রূপে। গতকাল রাজশাহী কিংসের ৬ উইকেট হারিয়ে করা ১৩৬ রান তাড়া করতে নেমে তারা হার দেখে ২০ রানে। হাতে ১ উইকেট রেখে ১১৬ রান তুললেও শেষ হয়ে যায় নির্ধারিত ওভার। সিলেটে রান উৎসব হবে এমনটাই আশা ছিল সবার কিন্তু সেখানে বইছে উল্টো স্রোত। খুলনা টাইটান্স ঢাকায় টানা চার হারের পর সিলেটে এসে পেয়েছে প্রথম জয়ের স্বাদ। কুমিল্লার জন্যও যেন শুভ হয়েছে সিলেটের উইকেট। সিলেট সিক্সার্সকে ৮ উইকেটে হারিয়ে জয়ে ফিরেছে তারা। বলার অপেক্ষা রাখে না এখানেই বদলে যেতে পারে বিপিএলের ৬ষ্ঠ আসরের পয়েন্ট টেবিলের হিসাবনিকাশ। সিলেটে দ্বিতীয় দিনও বোলাররা ধরে রেখেছে দাপট। এদিন ঢাকাকে হারিয়ে নায়ক হয়েছেন কিংসের স্পিনার আরাফাত সানি। ৪ ওভারে মাত্র ৮ রান খরচ করে নিয়েছেন ৩ উইকেট। অন্যদিকে বিপিএলে সর্বকনিষ্ঠ অধিনায়ক মেহেদী হাসান মিরাজ যেন চমক দেখিয়েই চলছেন।
সিলেট পর্বে মঙ্গলবার প্রথম ম্যাচে দুই ইনিংসে এসেছিল ৬ ছক্কা ও ১২ চারের মার। গতকাল দ্বিতীয় দিন আরো বেশি হতাশ হয়েছে দর্শকরা। প্রথম ম্যাচে দুই ইনিংস মিলিয়ে ছক্কা এসেছে মাত্র ৫টি। যেখানে ঢাকা ২ ও রাজশাহীর ব্যাটসম্যানরা হাঁকিয়েছেন ৩টি ছক্কা। এ ছাড়াও এদিন দুই ইনিংসে চারের মার ১৭টি। যেখানে রাজহীর ব্যাটসম্যানরা হাঁকিয়েছেন ১০টি। বলার অপেক্ষা রাখে না চার-ছক্কার লড়াই দেখতে আসা দর্শকরা হতাশা নিয়েই মাঠ ছাড়ছেন। টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন রাজশাহীর অধিনায়ক  মিরাজ। কিন্তু দলকে তিনি বিপদেই ফেলেন ১০ বল মোকাবিলায় ১ রান করে আউট হয়ে। তবে সেখান থেকে দলের হাল ধরেন শাহরিয়ার নাফীস ও মার্শাল আইয়ুব। বিপিএলে নিলামে দলই পাননি নাফীস। কিন্তু রাজশাহী তাকে দলে টানেন। তবে সিলেটেই প্রথম মাঠে নামেন তিনি। ২৫ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে দলকে ভরসা দেন। আউট হওয়ার আগে ২৭ বলের ইনিংসে হাঁকান ৩টি চারের মার। তবে তাকেও ছাড়িয়ে গেছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে আরেক অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মার্শাল আইউব। সিলেটের কঠিন উইকেটে তার ৩১ বলে করা ৪৫ রানের ইনিংসকে ঝড়ই বলা যায়। চলতি আসরে প্রথমবারের মতো একাদশে সুযোগ নিয়ে ব্যাট হাতে হাঁকিয়েছেন ৩ চারের সঙ্গে ২ ছয়ের মারও। তার বিদায়ের পর রায়ান টেন ডেসকাটা ১৬ ও উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান জাকির ২০ রানের ছোট ছোট অবদান রাখেন। ১৭ ওভারে ১১৮ রান তুলতে কিংসরা হারায় ৫ উইকেট। অবশেষে হাতে চার উইকেট অবশিষ্ট থাকলেও শেষ ৩ ওভারে রাজশাহী মাত্র ১৮ রানই যোগ করতে পারে।
জবাব দিতে নেমে সাকিবের শক্তিশালী ঢাকাকে দেখা যায় দারুণভাবে ধুঁকতে। ২৩ রানের মধ্যেই হারায় তিন উইকেট। এর মধ্যে দুই ওপেনার জাজাই ৬ ও নারিন আউট হন ১ রান করে। এরপর আন্দ্রে রাসেল ১১, রনি তালুকদার ১৪, সাকিব আল হাসান ১৩ রান করে আউট হন। এই তিনজনকে  সাজঘরের পথ দেখিয়ে ঢাকার মেরুদণ্ড একেবারেই গুঁড়িয়ে দেন কিংসের স্পিনার আরাফাত সানি। দলকে প্রথম উইকেট উপহার দিয়েছিলেন অধিনায়ক মিরাজ তাও ভয়ঙ্কর জাজাইকে ফিরিয়ে। দলের পক্ষে প্রথম ছক্কাটি হাঁকান এই আফগান। এরপর দলের হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৭ রান করা নাইম শেখকেও আউট করেন কিংস অধিনায়ক। শেষ দিকে ২১ রান করে নূরুল হাসান সোহানকে থামান মোস্তাফিজুর রহমান। ঢাকার ইনিংসে দ্বিতীয় ও শেষ ছক্কাটি আসে তার ব্যাট থেকেই। ১৪ বলের ইনিংসে আছে ২টি চারে  মারও। তার চেষ্টাতে শুধু হারের ব্যবধানই কমাতে পেরেছে ডায়নামাইটসরা। ৬ ম্যাচে ৩ জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে রাজশাহীর অবস্থান এখন পয়েন্ট তালিকার চতুর্থ স্থানে। ফর্মহীনতায় গতকাল ড্রেসিংরুমে বসে খেলা দেখতে হয় রাজশাহীর দুই শীর্ষ ব্যাটসম্যান মুমিনুল হক ও সৌম্য সরকারকে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ডেঙ্গুতে প্রাণ গেল আরেক মায়ের

ওরা যাবে কোথায়?

জয়শঙ্কর ঢাকায়

বঙ্গবন্ধু হত্যায় আওয়ামী লীগ নেতারাই জড়িত

২ ভারতীয় সেনাসহ নিহত ৪

দেড় মাসে স্বর্ণের দাম বাড়লো ৫ বার

মশক নিধনকর্মীদের দেখা মেলে কম

২০২৩ সালের মধ্যে সব প্রাথমিকে ‘স্কুল মিল’

চট্টগ্রামে কিশোরী ধর্ষণ, ভণ্ডপীর গ্রেপ্তার

গারো তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টা, গ্রেপ্তার ১

কাঁচা চামড়া বেচা-কেনা শুরু

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের সরকার পুনর্বাসন করবে- ওবায়দুল কাদের

গ্রাহক নয়, উবার পাঠাওকে ৫% ভ্যাট দিতে হবে- এনবিআর

ব্রিজ-কালভার্ট মেরামতে রেলওয়ের ব্যর্থতায় হাইকোর্টের রুল

পারভেজ পুলিশি রিমান্ডে

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সারা দেশে র‌্যালি করবে বিএনপি