৩ মাস পর কাজে ফিরল মধুপুর রাবার বাগানের শ্রমিকরা

অনলাইন

মধুপুর (টাঙ্গাইল) থেকে | ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, রোববার, ১০:৫৭ | সর্বশেষ আপডেট: ৬:১৭
টাঙ্গাইলের মধুপুর জোনের ৫ রাবার বাগানে ধর্মঘটের ৩ মাস পর অবশেষে কাজে ফিরল শ্রমিকরা। বাগানের পিচমিল টেপিং শ্রমিকরা ৪ দফা দাবিতে টানা ৩ মাস ধরে ধর্মঘট পালন করে আসছিল। স্থানীয় সাংসদ কৃষিমন্ত্রি ড.আবদুুর রাজ্জাকের নির্দেশক্রমে তার প্রতিনিধি দল, বশিউক প্রশাসন এবং পুলিশ প্রশাসন শ্রমিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে গতকাল শনিবার বিকালে আলোচনা করে দীর্ঘদিনের এই শ্রমিক অসন্তোষ নিরসন হলো। আজ থেকে শ্রমিকরা কাজে যোগ দিয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ বন শিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশন(বশিউক) এর মধুপুর জোনের জেনারেল ম্যানেজার তারেক মো.আজাদ।

শনিবার পীরগাছা রাবার বাগানে বসে আলোচনা করে শ্রমিকদের দাবি পূরণের জন্য অর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অনুরোধ জানিয়ে শ্রমিকদের আশ^স্ত করা হয়। আলোচনা সভায় শ্রমিকরা ধর্মঘট প্রত্যাহার করে কাজে ফেরার ঘোষণা দেন।
জানা যায়, বাংলাদেশ বন শিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশন (বশিউক) এর আওতাধীন মধুপুর-শেরপুর জোনের ৫ রাবার বাগান পীরগাছা, চাঁদপুর, কমলাপুর, সন্তোষপুর ও কর্নজোড়া রাবার বাগানের পিচমিল টেপিং শ্রমিকরা গত ১৩ই অক্টোবর থেকে টেপিং বন্ধ রেখে ধর্মঘট শুরু করেছে। ২০০০ সাল থেকে পিচমিল শ্রমিক হিসেবে নিয়োগ প্রাপ্ত যে সকল শ্রমিক বর্তমানে টেপিং কাজে সংযুক্ত আছে এবং কষ প্রক্রিয়াজাতকরন কারখানায় কর্মরত শ্রমিকদের স্থায়ী শ্রমিক হিসেবে নিয়োগ, অস্থায়ীভাবে পিচমিল নিয়ম বাতিল করে মাসিক মাষ্টার রোল ভিত্তিক নিয়মিত শ্রমিকের সমপরিমাণ মজুরী প্রদান, কারখানায় শ্রমিকদের মাষ্টার রোলে মাসিক ১৫ হাজার টাকা মজুরী প্রদান ও বাগানের যাতায়াতের জন্য মেইন রোড মেরামত পূর্বক ইট বিছানোসহ ৪ দফা দাবীতে পাঁচ রাবার বাগানের প্রায় ১৬শ শ্রমিক ১৪ দিন ধরে ধর্মঘট চালিয়ে যাছ্ছিলেন।

শ্রমিকরা জানিয়েছিল, তাদের সাপ্তাহিক ছুটি নেই, ঈদের ছুটি নেই, মাতৃত্বকালীন ছুটি নেই, বৃষ্টি হলে আমাদের কাজ নেই।
চাকরির শেষে এককালীন ভাতা নেই। বাগানে কাজ করতে গিয়ে সাপে কামড় দিলে ও চোখে কষ ও ছাল গেলে কোনো চিকিৎসা দেয়া হয়না। চাকরি শেষে  ভিক্ষার থলি হাতে নিয়ে বাড়ি ফিরতে হবে। তারা বলেন, শ্রম আইনে বেতন ভাতা প্রদান করতে হবে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মালয়েশিয়ার নতুন রাজা আবদুল্লাহ

‘জলবায়ু পরিবর্তনের লড়াইয়ে হেরে যাচ্ছে বিশ্ব’

খালেদার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ৭ ফেব্রুয়ারি

ঘরোয়া কলহ-কোন্দলের জন্যই বিএনপি ভাঙবে

ছাত্রলীগ আহবায়ক বাবলু কারাগারে

২৪ মার্চ থাইল্যান্ডে নির্বাচন

ভোলার সেই ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার

ডিএনসিসি নির্বাচনের তফসিল পুনঃনির্ধারণের দাবি সিপিবি’র

নাওমি ক্যাম্পবেলময় ফ্যাশনশো

নরপিশাচ পিতা!

শ্যামনগরে সড়ক দূর্ঘটনায় ৬ বছরের শিশু নিহত

ড্রাগপ্রতিরোধী সংক্রমণ বিশ্বস্বাস্থ্যের জন্য জরুরি অবস্থার মতো

ফেসবুক হ্যাক করে ব্ল্যাকমেইল, গ্রেপ্তার ৩

লক্ষ্মীপুরে দূর্ঘটনায় শিক্ষক নিহত, সড়ক অবরোধ

দুর্যোগ সম্পর্কে জনগণ এখন অত্যন্ত সচেতন: প্রধানমন্ত্রী

ওয়াসায় অব্যবস্থাপনা আর নয়