৩ মাস পর কাজে ফিরল মধুপুর রাবার বাগানের শ্রমিকরা

অনলাইন

মধুপুর (টাঙ্গাইল) থেকে | ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, রোববার, ১০:৫৭ | সর্বশেষ আপডেট: ৬:১৭
টাঙ্গাইলের মধুপুর জোনের ৫ রাবার বাগানে ধর্মঘটের ৩ মাস পর অবশেষে কাজে ফিরল শ্রমিকরা। বাগানের পিচমিল টেপিং শ্রমিকরা ৪ দফা দাবিতে টানা ৩ মাস ধরে ধর্মঘট পালন করে আসছিল। স্থানীয় সাংসদ কৃষিমন্ত্রি ড.আবদুুর রাজ্জাকের নির্দেশক্রমে তার প্রতিনিধি দল, বশিউক প্রশাসন এবং পুলিশ প্রশাসন শ্রমিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে গতকাল শনিবার বিকালে আলোচনা করে দীর্ঘদিনের এই শ্রমিক অসন্তোষ নিরসন হলো। আজ থেকে শ্রমিকরা কাজে যোগ দিয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ বন শিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশন(বশিউক) এর মধুপুর জোনের জেনারেল ম্যানেজার তারেক মো.আজাদ।

শনিবার পীরগাছা রাবার বাগানে বসে আলোচনা করে শ্রমিকদের দাবি পূরণের জন্য অর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অনুরোধ জানিয়ে শ্রমিকদের আশ^স্ত করা হয়। আলোচনা সভায় শ্রমিকরা ধর্মঘট প্রত্যাহার করে কাজে ফেরার ঘোষণা দেন।
জানা যায়, বাংলাদেশ বন শিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশন (বশিউক) এর আওতাধীন মধুপুর-শেরপুর জোনের ৫ রাবার বাগান পীরগাছা, চাঁদপুর, কমলাপুর, সন্তোষপুর ও কর্নজোড়া রাবার বাগানের পিচমিল টেপিং শ্রমিকরা গত ১৩ই অক্টোবর থেকে টেপিং বন্ধ রেখে ধর্মঘট শুরু করেছে। ২০০০ সাল থেকে পিচমিল শ্রমিক হিসেবে নিয়োগ প্রাপ্ত যে সকল শ্রমিক বর্তমানে টেপিং কাজে সংযুক্ত আছে এবং কষ প্রক্রিয়াজাতকরন কারখানায় কর্মরত শ্রমিকদের স্থায়ী শ্রমিক হিসেবে নিয়োগ, অস্থায়ীভাবে পিচমিল নিয়ম বাতিল করে মাসিক মাষ্টার রোল ভিত্তিক নিয়মিত শ্রমিকের সমপরিমাণ মজুরী প্রদান, কারখানায় শ্রমিকদের মাষ্টার রোলে মাসিক ১৫ হাজার টাকা মজুরী প্রদান ও বাগানের যাতায়াতের জন্য মেইন রোড মেরামত পূর্বক ইট বিছানোসহ ৪ দফা দাবীতে পাঁচ রাবার বাগানের প্রায় ১৬শ শ্রমিক ১৪ দিন ধরে ধর্মঘট চালিয়ে যাছ্ছিলেন।

শ্রমিকরা জানিয়েছিল, তাদের সাপ্তাহিক ছুটি নেই, ঈদের ছুটি নেই, মাতৃত্বকালীন ছুটি নেই, বৃষ্টি হলে আমাদের কাজ নেই।
চাকরির শেষে এককালীন ভাতা নেই। বাগানে কাজ করতে গিয়ে সাপে কামড় দিলে ও চোখে কষ ও ছাল গেলে কোনো চিকিৎসা দেয়া হয়না। চাকরি শেষে  ভিক্ষার থলি হাতে নিয়ে বাড়ি ফিরতে হবে। তারা বলেন, শ্রম আইনে বেতন ভাতা প্রদান করতে হবে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

তৃতীয় ধাপের ১১৭ উপজেলায় ভোট আগামীকাল

শীর্ষ আলেমদের জন্য দেহরক্ষী চাইলেন আল্লামা শফী

জুয়ার ঘর ভেঙে দিল বিক্ষুদ্ধ জনতা

ঝুঁকির মুখে ফেসবুকের ৬০ কোটি ব্যবহারকারীর পাসওয়ার্ড

ছবিতে আজকের শিক্ষক আন্দোলন

চিকিৎসা নিতে এসে আটক আহত ছিনতাইকারী

গাজীপুরে বাসচাপায় ২ বন্ধু নিহত

চট্টগ্রামে এক রাতে প্রাণ গেল ৫ জনের

রাজনৈতিক প্রভাবে পরিবহন খাতে বিশৃঙ্খলা: কামাল

রাজধানীতে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ১

‘জৈশ-ই-মোহাম্মদ’ নিয়ে চীনের আগ্রহ কোথায়?

কাদের আউট, রওশন উপনেতা

সিরিয়ায় আইএস নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়ার দাবি

ভীতুদের দায়িত্ব ছাড়তে বললেন গয়েশ্বর

প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করতে নুর-আখতারের আপত্তি

নরসিংদীতে স্কুলছাত্র নিহতের প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ