প্রতিটি ভোটই মূল্যবান

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব প্রতিনিধি | ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫০
সরকার গঠনে প্রত্যেকটি ভোটকে মূল্যবান আখ্যায়িত করে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আগামী প্রজন্মের জন্য সুন্দর ভবিষ্যৎ বিনির্মাণে নৌকায় ভোট দিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। গতকাল সড়কপথে গোপালগঞ্জ থেকে ঢাকায় ফেরার পথে বিভিন্নস্থানে নির্বাচনে পথসভায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

সকালে ফরিদপুরের ভাংগার মোড় এলাকায় একটি নির্বাচনী জনসভায় তিনি বলেন, প্রতিটি ভোট এবং আসনই মূল্যবান এবং আপনার একটি ভোটই আমাদের সরকার গঠনে সাহায্য করতে পারে। প্রয়োজনীয় সংখ্যক আসন থেকে একটি আসনও যদি কম হয়ে যায় তাহলেই আমরা সরকার গঠন করতে পারবো না। কাজেই আপনারা নৌকায় ভোট দিয়ে আমাদের বিজয় নিশ্চিতের সঙ্গে সঙ্গে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করুন। ফরিদপুর-৪ আসনের মহাজোট প্রার্থী (ভাংগা, সদরপুর, চরভদ্রাসন) কাজী জাফরউল্লাহও সমাবেশে বক্তৃতা করেন এবং বঙ্গবন্ধুর ছোট মেয়ে শেখ রেহানা সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ যদি আগামী নির্বাচনে ক্ষমতায় আসতে না পারে তাহলে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ বন্ধ হয়ে যাবে। কাজেই, এই উন্নয়ন কর্মকাণ্ড অব্যাহত রাখার জন্য একটি ভোটও আমাদের কাছে মূল্যবান। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ২০০১ সালে পদ্মা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিল।


কিন্তু বিএনপি-জামায়াত সরকারে এসেই সে কাজ বন্ধ করে দেয়। আওয়ামী লীগ সভাপতি এ সময় ’৯৬ পরবর্তী সময়ে সরকারের উন্নয়ন কর্মসূচিগুলো পরবর্তী বিএনপি-জামায়াত সরকার এসে বন্ধ করে দেয়ার বিভিন্ন উদাহরণ টেনে বলেন, বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ আপনাদের নানা কথায় বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করবে। কিন্তু আপনাদের সবাইকে যার যার নিজের ভোট দিতে হবে এবং জনমত সৃষ্টি করে ভোট কেন্দ্রগুলো পাহারা দিতে হবে। প্রধানমন্ত্রী পরে ফরিদপুরের কামারপুর আব্দুল আজিজ ইনস্টিটিউশন প্রাঙ্গণেও আরেকটি জনসভায় ভাষণ দেন।

এ ছাড়া রাজবাড়ী মোড়, মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড, ধামরাইয়ে রাবেয়া মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল প্রাঙ্গণ এবং সাভার বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পথসভায় বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী। বুধবার প্রধানমন্ত্রী টুঙ্গীপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে তাঁর নির্বাচনী প্রচার আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু করেন এবং সেদিন বিকালে কোটালীপাড়ার শেখ লুৎফর রহমান সরকারি ডিগ্রি কলেজ মাঠে জনসভায় ভাষণ দেন।

আওয়ামী লীগ সভাপতি জনসভায় সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ এবং দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার জন্য দেশবাসীকে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রতীক নৌকায় ভোট প্রদানের আহ্বান জানান। বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় থাকার সময় বাংলাদেশ পর পর পাঁচবার দুর্নীতিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখন দুর্নীতি উল্লেখযোগ্যভাবে কমে এসেছে এবং সেজন্য বিশ্বের স্বীকৃতিও আমরা পেয়েছি। তিনি বলেন, একটি দুর্নীতি, জঙ্গিবাদ এবং সন্ত্রাস মুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলাই আমার লক্ষ্য এবং এই লক্ষ্য অর্জনে নৌকা প্রতীকে আপনাদের ভোট একান্তভাবেই প্রয়োজন।

দেশের বিভিন্ন খাতের উন্নয়ন ও সাফল্যের চিত্র তুলে ধরে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের আলোর পথে যাত্রা শুরু হয়েছে এবং এই অগ্রযাত্রা আর কেউ রুখতে পারবে না।’ নবীন প্রজন্মের সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য তিনি তাঁর বর্তমানকে উৎসর্গ করেছেন উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, দেশের এই অগ্রগতিকে অব্যাহত রাখার জন্য এবং দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য সরকারের ধারাবাহিকতা বজায় থাকাটা অত্যন্ত জরুরি।

তিনি বলেন, যদি জনগণ আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়ে পুনঃনির্বাচিত করে তাহলে আগামীর বাংলাদেশ হবে দারিদ্র্য ও ক্ষুধা মুক্ত, যেখানে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম সুন্দর জীবনের নিশ্চয়তা পাবে। শেখ হাসিনা এ সময় নৌকায় ভোট দিবেন কিনা, জনগণের কাছে জানতে চাইলে উপস্থিত জনতা দু’হাত তুলে সম্মতি জানায়। জনগণের প্রতিশ্রুতির জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমিও প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি আপনারা ভোট দিয়ে আবার ক্ষমতায় আনলে একটি ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ আপনাদেরকে উপহার দিব।

কোমারপুর আব্দুল আজিজ ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত জনসভায় অন্যান্যের মধ্যে ফরিদপুর-৩ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এবং এলজিআরডি মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বক্তৃতা করেন।

মানিকগঞ্জের তিন মানিককে আমি কুড়িয়ে নিয়েছি: এদিকে গতকাল বিকালে মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড টার্মিনালে নির্বাচনী পথসভায় বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে পাটুরিয়া ঘাটে আরেকটি নির্বাচনী পথসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানিকগঞ্জে অনেক মানিক আছে। সেখান থেকে আমরা কয়েকটা মানিক কুড়িয়ে নিয়েছি। আজকে আমাদের এই অঞ্চলের প্রার্থী ক্রিকেট তারকা নাঈমুর রহমান দুর্জয় একটা মানিক। সেই সঙ্গে সংগীত জগতের মমতাজ সেও মানিক।

আর আছেন জাহিদ মালেক স্বপন। এই মানিকদের জন্য আপনাদের কাছে ভোট চাই। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা নৌকায় ভোট দেবেন ওয়াদা করেন। নৌকায় ভোট দিলে দেশের উন্নয়ন হয়। আমরা উন্নয়নের যে যাত্রা শুরু করেছি তা যেন থেমে না যায়। যারা লুটপাট করে, অর্থ আত্মসাৎ করে, যারা এদেশের সম্মান নষ্ট করে তারা কেউ যেন ভোট না পায়। নৌকা দেবে উন্নয়ন, নৌকা করবে এ দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন।

বিজয়ের মাসে নৌকায় ভোট চাইতে আপনাদের কাছে এসেছি: এদিকে ধামরাই পৌর আওয়ামী লীগ আয়োজিত নির্বাচনী সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট চাইতে আপনাদের কাছে এসেছি। ২০০৮ সাল থেকে ২০১৮ সাল এ ১০ বছরে উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। ২০০৮ সালে ঘোষণা দিয়েছিলাম ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার। আজ তা হয়েছে।

প্রতিজনের হাতে আজ মোবাইল ফোন তা দিয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার। ধামরাই নব্য সরকারি হার্ডিঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে পৌরসভার মেয়র গোলাম কবিরের সভাপতিত্বে সভায় প্রধানমন্ত্রী ঢাকা ২০ আসনের প্রার্থী ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ ও বায়রার সভাপতি বেনজীর আহমদকে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে নির্বাচিত করার আহ্বান জানান। নির্বাচনী জনসভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ঢাকা ২০ আসনের এমপি এমএ মালেকসহ জেলা উপজেলার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে গত বুধবার থেকেই বর্ণিল সাজে সাজানো হয় ধামরাই পৌর এলাকাকে। নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসব দেখা দেয়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মারা গেলেন মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোরসি

বালিশকাণ্ডে জড়িত প্রকৌশলী ছিলেন ছাত্রদল নেতা: প্রধানমন্ত্রী

একই দিনে সাকিবের মুকুটে দুই পালক

কাটারের কাটলো ৪৮ মাস

রামপালসহ বিতর্কিত সব প্রকল্প স্থগিত করার দাবি টিআইবির

আওয়ামী লীগ জিতলেও পরাজিত হয়েছে গণতন্ত্র:ফখরুল

‘মাশরাফিদের উপর বিশ্বাস রাখতে হবে’

আইএসআইয়ের নতুন প্রধান জেনারেল ফয়েজ

দেশে ফিরতে রাজি হয়েছেন সাগরে আটকে পড়া ৬৪ বাংলাদেশি

যে মাইলফলক হাতছানি দিচ্ছে সাকিবকে

জামিন নাকচ, কারাগারে ওসি মোয়াজ্জেম

পাকুন্দিয়ায় চোরাই মোটরসাইকেলসহ একজন গ্রেপ্তার

ভূঞাপুরে পরিত্যক্ত ভবনে চলছে পাঠদান

দ্বিতীয় দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচিতে ছাত্রদল

বিএনপির আরও অনেক নেতাকর্মীকে মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার করা হবে: রিজভী

৩০ বছরে বিশ্বে জনসংখ্যা বৃদ্ধি পাবে ২০০ কোটি