সিলেটে মোমেনের প্রচারণায় মুহিত

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ১২ ডিসেম্বর ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫৯
বড় ভাই ড. আবুল মাল আবদুল মুহিতকে সঙ্গে নিয়ে প্রচারণা শুরু করলেন ড. একে আবদুল মোমেন। গতকাল সিলেটের ওলিকুল শিরোমণি হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজার এলাকা থেকে এই প্রচারণা শুরু করেন। এ সময় তার সঙ্গে সিলেট আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতারাও উপস্থিত ছিলেন। প্রতীক পাওয়ার পর সোমবার সকাল থেকেই সিলেটে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করার কথা ছিল ড. মোমেনের। কিন্তু তিনি প্রথম দিন কোনো প্রচারণা করেননি। নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন ও কয়েকটি সভা করেই প্রথম দিনের পর্ব সমাপ্ত করেন।

গতকাল সকালে সিলেটের মণিপুরি রাজবাড়ীতে একটি অনুষ্ঠানে যান ড. একে আব্দুল মোমেন। এরপর দুপুরের ফ্লাইটে ঢাকা থেকে সিলেটে আসেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।
সিলেটের নেতাকর্মীরা গিয়ে বিমানবন্দর  
থেকে অর্থমন্ত্রীকে মাজার এলাকায় নিয়ে আসেন। সেখানে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মাজার জিয়ারত করেন অর্থমন্ত্রী। এরপর দরগাহ এলাকার ব্যবসায়ীদের মধ্যে তিনি নৌকার লিফলেট বিতরণ করেন। এ সময় অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন- এবারের নির্বাচনের হাওয়া আওয়ামী লীগের পক্ষে রয়েছে। এদিকে- প্রচারণা শুরু করে সন্ধ্যায় সিলেটে মহাজোটের শরিকদের নিয়ে সুধী সমাবেশ করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

সিলেট-১ আসনটি হচ্ছে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের আসন। এ আসনে ২০০৮ সালে প্রথমবারের মতো নির্বাচিত হন তিনি। এরপর তিনি ২০১৪ সালের নির্বাচনেও জয়লাভ করেন। প্রায় দুই বছর আগে থেকেই অর্থমন্ত্রী জানিয়ে গিয়েছিলেন আর নির্বাচন করবেন না। রাজনীতি এবং সরকারি দায়িত্ব থেকে অবসরে যাবেন। তার এই ঘোষণার পর এই আসনে রাজনীতিতে নামেন জাতিসংঘ ফেরত কূটনীতিবিদ ড. একে আবদুল মোমেন। এ আসনে মোমেনের সঙ্গে একাধিক নেতা প্রার্থিতার ব্যাপারে প্রতিযোগিতা করলেও শেষ মুহূর্তে ড. মোমেনই হন সিলেট-১ আসনে মহাজোটের প্রার্থী।

প্রার্থী হলেও বড় ভাই অর্থমন্ত্রী ড. আবুল মাল আবদুল মুহিতকে রেখে কোনো কাজেই তিনি পা বাড়াচ্ছেন না। নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের দিনও অর্থমন্ত্রী ঢাকা থেকে আসার পর ভাইকে নিয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এরপর সিলেটে বসেই ড. মোমেনের নির্বাচনের ছক সাজিয়ে দিয়ে যান অর্থমন্ত্রী। তিনি আওয়ামী লীগের সব পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। অর্থমন্ত্রীর নির্দেশ অনুসারে সিলেটে ড. মোমেনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটি ও কার্যালয় উদ্বোধন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিলেট আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা। তারা জানিয়েছেন- ‘অর্থমন্ত্রী আমাদের মুরব্বি। তার কথা মতোই আমরা পরিচালিত হচ্ছি। তাকে জানিয়েই আমরা সব কার্যক্রম পরিচালনা করছি।’

গতকাল অর্থমন্ত্রী সিলেটে আসার পর ড. মোমেনের নির্বাচনী প্রচারণা আনুষ্ঠানিক সূচনা করা হয়েছে। অর্থমন্ত্রী লিফলেট বিতরণের আগে সিলেটের কোথাও কেউ লিফলেট বিতরণ করে ভোট চাননি। এদিকে- গতকাল সিলেট-১ আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী ড. একে আবদুল মোমেন সাংবাদিকদের কাছে জানিয়েছেন- সিলেটে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত অভুতপূর্ব উন্নয়ন কাজ চালিয়েছেন। তার উন্নয়ন কর্মকান্ডের কারনেই সিলেটের মানুষ আওয়ামী লীগের পক্ষে রয়েছে। আগামী ৩০শে ডিসেম্বরের নির্বাচনে আওয়ামী লীগই শেষ হাসি হাসবে বলেও দাবি করেন তিনি। ড. মোমেন জানান- ‘আমাদের উপর প্রশাসনেরও দৃষ্টি রয়েছে। একটু হেরফের হলেই প্রশাসন সক্রিয় হয়ে ওঠে। ফলে প্রচারণা চালাতে আমাদের খুবই সতর্ক থাকতে হচ্ছে।’

এদিকে- শুধু অর্থমন্ত্রীই নয়, ড. মোমেনের সঙ্গে ছায়ার মতো আছেন গত সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ কামরানও। তিনি সিলেটে ড. মোমেনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, মহানগর সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদও সক্রিয় রয়েছেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ড. কামাল মাঠ ফাঁকা করে দিলেন, আমরা গোল দিলাম

সংসদ থেকে বের হয়ে যাওয়ার হুমকি বাদলের

ফিঞ্চ - ওয়ার্নারের রেকর্ড

দ্রুত বিচার আইনের মেয়াদ ৫ বছর বাড়াতে সংসদে বিল

এফআর টাওয়ার নির্মাণে দুর্নীতি ২৫ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

রাসেলকে মাসে দিতে হবে ৫ লাখ, জানাতে হবে আদালতকে

‘স্কুলের ভিতরে নেশায় বাধা দেয়ায় শিক্ষককে মারপিট’

ফেনীতে ধর্ষণ মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন, চারজনের ১৪ বছর কারাদণ্ড

ইংলিশবধ করে সেমিতে অস্ট্রেলিয়া

প্রথমবারের মতো সফল লিভার প্রতিস্থাপন বিএসএমএমইউতে

৩১ ইটভাটা মালিকের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে, হাইকোর্টকে পুলিশ

বেরোবির প্রশাসনিক ভবনে তালা

নির্যাতক মাদ্রাসা শিক্ষককে বাঁচাতে মরিয়া প্রভাবশালী মহল

লোকসভার সদস্য হিসেবে শপথ নিলেন নুসরাত ও মিমি

নড়বড়ে ও পুরনো সেতু দ্রুত মেরামতের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

লক্ষ্মীপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শ্রমিক নিহত