আশরাফুলের সেঞ্চুরি, ডাবলের পথে রনি

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১২ ডিসেম্বর ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:১৫
আগের ইনিংসেই রানে ফেরেন মোহাম্মদ আশরাফুল। এবার প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ২০তম সেঞ্চুরি পেয়ে গেলেন এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। গতকাল রাজশাহীতে বাংলাদেশ ক্রিকেট লীগের (বিসিএল) চতুর্থ রাউন্ডে আশরাফুলের সঙ্গে আলো কাড়েন ডাবল সেঞ্চুরির পথে থাকা রনি তালুকদার। আর নর্থ জোনের বিপক্ষে প্রথম দিন শেষে ইস্ট জোনের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৩৫৪/৩। শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে ২৪১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে মাঠ ছাড়েন রনি (১৮৩*) ও আশরাফুল (১০৭*)। তৃতীয় রাউন্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে সেন্ট্রাল জোনের বিপক্ষে বল হাতে ৪ উইকেট ও ৬৪ রান করেছিলেন আশরাফুল। ওই ম্যাচের প্রথম ইনিংসে বোলিং পাননি। ব্যাটিংয়ে শূন্য রানে ফেরেন।
বিসিএলের এবারের আসরে ওটাই ছিল আশরাফুলের প্রথম ম্যাচ। অন্যদিকে, গত অক্টোবরে জাতীয় ক্রিকেট লীগে (এনসিএল) ডাবল সেঞ্চুরি করার পর থেকে ভালো শুরুর পর ইনিংস বড় করতে পারছিলেন না রনি তালুকদার। সেই আক্ষেপ ঘুচিয়ে তার সামনে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে চতুর্থ ডাবল সেঞ্চুরির হাতছানি। এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ইনিংস ২২৮*। গতকাল রনির ২৪১ বলে ১৮৩ রানের ইনিংসটি ১৯টি চার ও ৫ ছক্কায় সাজানো। ১৪৭ বল মোকাবিলায় ১২টি চার ও ২টি ছয়ের সাহায্যে দশম সেঞ্চুরি পূরণ করেন তিনি। আশরাফুলের ১৮৬ বলে ১০৭ রানের ইনিংসে ছিল ১৩টি চারের মার। দলীয় ১১৩ রানে তিন উইকেট হারানোর পর উত্তরাঞ্চল বোলারদের শাসন করে রনি-আশরাফুল জুটি। টস জিতে পূর্বাঞ্চলকে ব্যাটিংয়ে পাঠান নর্থ জোন অধিনায়ক জহুরুল ইসলাম। স্কোরবোর্ডে ১ রান তুলতেই উইকেট খোয়ায় ইস্ট জোন। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনার সাদিকুর রহমানকে (০) বোল্ড করেন পেসার ইমরান আলী। ফরহাদ রেজার অনুপস্থিতিতে অধিনায়কের দায়িত্ব পান মুমিনুল হক। ১৬তম ওভারে সোহাগ গাজীর বলে মুমিনুলকে (২৬) স্টাম্পিং করেন ধীমান ঘোষ। দলীয় ৪১ রানে দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটে। আর ৩৫তম ওভারে সানজামুল ইসলামের স্পিনে ধীমানের গ্লাভসে আটকা পড়েন মাহমুদুল হাসান (২৯)।
চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সাউথ জোনের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে অস্বস্তিতে সেন্ট্রাল জোন। প্রথম দিনে ৮ উইকেটে ২৩৪ রান তোলে পূর্বাঞ্চল। সর্বোচ্চ ৬০ রান করে রানআউট হন ওপেনার সাদমান ইসলাম। মার্শাল আইয়ুব ৪৪, অধিনায়ক শুভাগত হোম ২৭, জাকের আলী ১৯, মোশাররফ হোসেন রুবেল ২১ রান করে বিদায় নেন। তাইবুর রহমান ৪৩ ও ইয়াসিন আরাফাত ব্যক্তিগত ৫ রানে অপরাজিত থাকেন। এ ম্যাচেও টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন দক্ষিণাঞ্চল অধিনায়ক আবদুর রাজ্জাক। বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের হয়ে ৩ উইকেট নেন পেসার আল আমিন হোসেন। দুইটি করে উইকেট পান রাজ্জাক ও মেহেদী হাসান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
ইস্ট জোন-নর্থ জোন
টস: নর্থ জোন (ফিল্ডিং)
ইস্ট জোন: ৯০ ওভারে ৩৫৪/৩
সেন্ট্রাল জোন-সাউথ জোন
টস: সাউথ জোন (ফিল্ডিং)
সেন্ট্রাল জোন: ৯২ ওভারে ২৩৪/৮



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ড. কামাল মাঠ ফাঁকা করে দিলেন, আমরা গোল দিলাম

সংসদ থেকে বের হয়ে যাওয়ার হুমকি বাদলের

ফিঞ্চ - ওয়ার্নারের রেকর্ড

দ্রুত বিচার আইনের মেয়াদ ৫ বছর বাড়াতে সংসদে বিল

এফআর টাওয়ার নির্মাণে দুর্নীতি ২৫ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

রাসেলকে মাসে দিতে হবে ৫ লাখ, জানাতে হবে আদালতকে

‘স্কুলের ভিতরে নেশায় বাধা দেয়ায় শিক্ষককে মারপিট’

ফেনীতে ধর্ষণ মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন, চারজনের ১৪ বছর কারাদণ্ড

ইংলিশবধ করে সেমিতে অস্ট্রেলিয়া

প্রথমবারের মতো সফল লিভার প্রতিস্থাপন বিএসএমএমইউতে

৩১ ইটভাটা মালিকের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে, হাইকোর্টকে পুলিশ

বেরোবির প্রশাসনিক ভবনে তালা

নির্যাতক মাদ্রাসা শিক্ষককে বাঁচাতে মরিয়া প্রভাবশালী মহল

লোকসভার সদস্য হিসেবে শপথ নিলেন নুসরাত ও মিমি

নড়বড়ে ও পুরনো সেতু দ্রুত মেরামতের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

লক্ষ্মীপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শ্রমিক নিহত