বরিশাল-৫

সরোয়ারের প্রতিদ্বন্দ্বী ১২ জন

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল থেকে | ১৮ নভেম্বর ২০১৮, রোববার
বরিশাল-৫ আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মজিবর রহমান সরোয়ারের মনোনয়ন ছিল প্রায় নিশ্চিত। প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে প্রতি বছরের ন্যায় এবায়েদুল হক চান বা আহসান হাবিব কামাল থাকতেন। কিন্তু এবার সরোয়ারকে মনোনয়ন পেতে একডজন দলীয় নেতার সঙ্গে লড়তে হবে। এ তালিকায় যেমন আছেন বেশ কয়েক পরিচিত মুখ। তেমনি অপরিচিতরাও রয়েছেন। সরোয়ারের সঙ্গে যারা দিন-রাত রাজনীতির মাঠ দাপিয়েছেন, সিটি নির্বাচনে যারা সরোয়ারের মনোনয়নের জন্য তীব্র লড়াই করেছেন তারাও এবার বরিশাল-৫ আসনে মনোনয়ন কিনে চমকে দিয়েছেন সবাইকে। সরোয়ারের দাবি পত্র-পত্রিকায় নিজের নাম প্রচারের জন্য কেউ কেউ মনোনয়ন কিনেছেন। তবে এবায়েদুল হক চানের দাবি বিএনপি জনপ্রিয় একটি দল, প্রচুর যোগ্য নেতা- তাই মনোনয়ন যে কেউ চাইতে পারেন।
আর বিলকিস আক্তার শিরিন বলেছেন এ নেতা প্রতিটি নির্বাচনে মনোনয়ন পাবেন- এটি হতে পারে না।
গতকাল মনোনয়নপত্র ক্রয়ের শেষ দিনে বরিশাল-৫ আসনে ১৩ জন মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন বলে জানান মনোনয়ন বিক্রি স্থানে থাকা সাবেক ছাত্রদল নেত্রী আফরোজা খানম শিরিন। মনোনয়ন ক্রয়কারীদের মধ্যে অন্যতম সাবেক সংসদ সদস্য, মহানগর বিএনপির সভাপতি মজিবর রহমান সরোয়ার, জেলা বিএনপির সভাপতি এবায়েদুল হক চান, সাবেক মেয়র আহসান হাবিব কামাল, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস আক্তার জাহান শিরিন, কেন্দ্রীয় নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম শাহীন, মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) জিয়াউদ্দিন সিকদার,  জাকির হোসেন নান্নু, মহসিন মন্টু, আতাহার ইসলাম চৌধুরী (বাবুল চৌধুরী) অন্যতম।
এদের বেশির ভাগই মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।  কেউ কেউ মনোনয়ন জমা দিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ফেসবুকে ছবি ছেড়েছেন। বরিশাল-৫ আসনে এতগুলো মনোনয়ন ক্রয় নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। কেউ কেউ বলছেন বেশির ভাগই মনোনয়ন কিনেছেন রসিকতা করে। তবে মজিবর রহমান সরোয়ারের সামনে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে চান-কামাল-শিরিন এবং আলাল রয়েছেন। তবে বেশ কয়েকজন রয়েছেন যারা মনোনয়ন বোর্ডে সাক্ষাৎকালে সরোয়ারের পক্ষে কথা বলবেন এজন্য দলীয় মনোনয়ন কিনেছেন।
দলের নির্ভরযোগ্য নেতা হিসেবে পরিচিত মজিবর রহমান সরোয়ারকে প্রতিবছরই মনোনয়ন দেয়ার দাবিতে রাস্তায় সোচ্চার হয় বিএনপি নেতাকর্মীরা। এ কারণে বিগত সিটি নির্বাচনে তাকে প্রার্থী করা হয়। তবে আওয়ামী লীগের কাছে সে নির্বাচনে তার অসহায় আত্মসমর্পণ নিয়ে নানা গুঞ্জন ওঠে। বিষয়টি ভালো নজরে দেখেননি কেন্দ্রীয় নেতারা। বরিশাল থেকে লন্ডনে তারেক রহমানের কাছে নালিশও যায় এমন কথা চাউর হয়েছে। সাবেক মেয়র আহসান হাবিব কামাল ২০১৩ সালের সিটি নির্বাচনে মনোনয়ন পাওয়ার জন্য দলীয় পদ ত্যাগ করেন এবং অঙ্গীকার করেছিলেন আর কখনো নির্বাচন করবেন না। এটিই তার শেষ নির্বাচন। কিন্তু আকস্মিকভাবে তিনিও দলীয় মনোনয়ন ক্রয় করেন এবং তা জমাও দেন।
এতগুলো মনোনয়নপত্র ক্রয় করা নিয়ে মজিবর রহমান সরোয়ার মানবজমিনকে জানান, বেশির ভাগই প্রচার- প্রচারণার জন্য মনোনয়ন কিনেছেন। তবে তিনি শীর্ষ ২/১ নেতার মনোনয়ন ক্রয় নিয়ে কিছুটা অসন্তুষ্ট বলে মনে হয়েছে। জেলা বিএনপির সভাপতি এবায়েদুল হক চান দাবি করেছেন, বরিশাল বিএনপিতে এখন অনেক যোগ্য নেতা রয়েছেন। তাই এ মনোনয়ন ক্রয় অস্বাভাবিক বলে তিনি মনে করছেন না। সদ্য সাবেক মেয়র আহসান হাবিব কামাল মানবজমিনকে জানান, তাকে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। তাদের নির্দেশেই তিনি মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন বলে দাবি করেন। এখন তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ বলেও জানান। মনোনয়নের অন্যতম দাবিদার কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস আক্তার জাহান শিরিন বলেন, বিএনপির এই দুঃসময়ে একমাত্র তিনি রাজপথে ছিলেন। এমনকি তারেক রহমানের রায় প্রদানের সময়ও তিনি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। একজন লোক মেয়র/এমপি সব পদে মনোনয়ন পাবে আর অন্যরা রাজপথে লড়াই করবে- সেটি হতে পারে না। সব মিলিয়ে বরিশাল-৫ আসনে মনোনয়ন লড়াইটা জমে উঠেছে বলেই ভোটাররা মনে করছেন। এবার সরোয়ারকে সহজে কেউ ছাড় দেবে না বলে প্রতীয়মান হচ্ছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

পাকিস্তানকে ভেঙে ৩ টুকরো করার পরামর্শ রামদেবের, বেলুচিস্তানের বিদ্রোহীদের অস্ত্র দেয়ার আহ্বান

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ২২ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত

মুখোমুখি মোদি-ইমরান

যে কারণে পাকিস্তান থেকে সরাসরি ভারত গেলেন না সালমান

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানোর কমিটি প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়

‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ বাজার থেকে সরানোর নির্দেশ হাইকোর্টের

তুরাগতীরে ফরিয়াদ

ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানি শুক্রবার

৭ বিলিয়ন ডলার ঋণের অধীনে ‘কানেকটিভিটি’

নতুন বাজারে বাড়ছে পোশাক রপ্তানি

সরগরম ক্যাম্পাস প্রথম দিন মনোনয়নপত্র নেননি আলোচিত কেউ

করবিনের সাদামাটা জীবন

নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হলে গণতন্ত্রও প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে যায়

মাদক রুট, তদন্তে ঢাকায় আসছেন শ্রীলঙ্কান গোয়েন্দারা

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর তৎপরতা নেই

আমরা প্রেসের ফ্রিডমকে ইউকে’র পর্যায়ে নিতে চাই