সহকারী রিটার্নিং অফিসারদের ব্রিফিং

আচরণবিধির বিষয়ে কঠোর হওয়ার নির্দেশ ইসি’র

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৫ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
প্রার্থীদের নির্বাচনী আচরণবিধি প্রতিপালনের বিষয়ে কঠোর হওয়ার জন্য সহকারী রিটার্নিং অফিসারদের নির্দেশনা দিয়েছে ইসি। গতকাল নির্বাচন ভবনের অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত ওই ব্রিফিংয়ে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের আইনের মধ্যে থেকে সমস্যা সমাধানের নির্দেশনাও দেয়া হয়। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ধারাবাহিক ব্রিফিংয়ের অংশ হিসেবে গতকাল ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের সহকারী রিটার্নিং অফিসারদের ব্রিফ করে ইসি। অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী সেশনে নিরপেক্ষতার সাথে নির্বাচন পরিচালনার জন্য সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নূরুল হুদা। তিনি বলেন, যে যেই অবস্থানে থাকুক না কেন, অত্যন্ত নিরপক্ষেতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে হবে। সকল প্রার্থীকে প্রার্থী হিসেবে বিবেচনা করতে হবে। আইনগতভাবে যেন কেউ কোনকিছু থেকে বঞ্চিত না হয়, কেউ যেন অতিরিক্ত কোনো সুযোগ-সুবিধা না পায়, সে ব্যাপারে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে। প্রার্থীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রেখে নির্বাচন পরিচালনার তাগিদ দেন সিইসি।
আইনের মাধ্যমে প্রার্থীরা কি ধরনের সুযোগ-সুবিধা পাবেন, তা তাদের বুঝাতে হবে। তাদের সহযোগিতা নিয়েই নির্বাচন পরিচালনা করতে হবে। অত্যন্ত নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে নির্বাচন পরিচালনা করতে হবে। কেউ যেন আচরণবিধি অমান্য না করে সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখার পরামর্শ দেন তিনি। সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে সিইসি বলেন, নির্বাচন পরিচালনার কেন্দ্রে আপনারা অবস্থান করবেন, তাই আপনাদের দায়িত্ব অনেক বেশি। নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করার দায়িত্ব আপনাদের। প্রতিটি পরিপত্র, আদেশ, চিঠি ও গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের ওপর ভিত্তি করেই যেন নির্বাচন পরিচালিত হয়, সেটি আপনাদের আয়ত্ত করতে হবে। ব্রিফিংয়ে উপস্থিত একাধিক সহকারী রিটার্নিং অফিসারের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আচরণবিধি প্রতিপালনে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণের কথা জানিয়েছে। সহকারী রিটার্নিং অফিসারদের তরফে নানা প্রশ্নের উত্তর দেন ইসি’র ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। সংসদ বহাল থেকে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় নানা প্রশ্ন ছিল প্রশাসনের মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের। তারা জানতে চান, নির্বাচনের মধ্যেই ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় দিবস পালন করা হবে দেশব্যাপী। এ সময় এমপি-মন্ত্রীরাও এলাকায় থাকবেন। তারা কিভাবে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নিবেন। নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়, সাধারণ রাজনৈতিক নেতা হিসেবে মন্ত্রী-এমপিরা এসব অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারবেন। তবে তারা সেখানে কোনোভাবেই ভোট চাইতে পারবেন না। সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তারা আরও জানতে চান, শীতকালে গ্রামেগঞ্জে ওয়াজ-মাহফিল অনুষ্ঠান বেড়ে যায়। এক্ষেত্রে বিশেষ কোনো নির্দেশনা আছে কি-না। ইসি থেকে বলা হয়েছে, ওয়াজ-মাহফিলে ভোট চাইলে কিংবা কোনো রাজনৈতিক দলের পক্ষে-বিপক্ষে কথা হলে ওই অনুষ্ঠান ভণ্ডুল করে দিতে হবে। গোয়েন্দা সংস্থার চাপ নিয়ে কথা হয় সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের ব্রিফিংয়ে। কোনো প্রকার চাপ গ্রহণ না করে আইনের মধ্যে থেকে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নিজ দায়িত্ব পালনের নির্দেশনা দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দিন আহমদ জানান, প্রার্থীদের ব্যানার-পোস্টার সরিয়ে নেয়ার জন্য আরও তিনদিন সময় বাড়ানো হয়েছে। তিনি বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে আমরা একটি লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড করার জন্য ঘোষণা দিয়েছি যেন আচরণবিধি পরিপন্থি কোনো কাজ না হয়। ব্যানার-পোস্টারগুলো তুলে দেয়ার জন্য আমরা বলেছি, আজকে (গতকাল) শেষদিন ছিল। আমরা আরও তিনদিন সময় বাড়াবো। যারা নির্বাচন করবে তাদের ব্যানার পোস্টার লাগানোর জন্য তো জায়গা থাকতে হবে। তিনি বলেন, কোনো উপজেলা থেকে কোনো কর্মকর্তাকে সরানো যাবে না। কেননা তারা পোলিং অফিসার হিসেবে নিযুক্ত হবেন। ইসি সচিবালয়ের যুগ্মসচিব এসএম আসাদুজ্জামান জানান, নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের পোস্টার, ব্যানার, দেয়াল লিখন, বিলবোর্ড, গেইট, তোরণ বা ঘের, প্যান্ডেল ও আলোকসজ্জা ইত্যাদি প্রচার সামগ্রী ও নির্বাচনী ক্যাম্প থাকলে তা আগামী তিনদিনের মধ্যে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নিজ খরচে অপসারণ করতে হবে। এ লক্ষ্যে সিটি করপোরেশন, পৌরসভাসহ বিভিন্ন স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহকে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক মোস্তফা ফারুক।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভোট হয়েছে রাতেই, নেতাদের প্রতিও ক্ষোভ

নাটেশ্বরের ঘরে ঘরে কান্না

গাড়িতে গাড়িতে ‘গ্যাস বোমা’

রাসায়নিকের গোডাউন ওয়াহেদ ম্যানশন

সরকারকে দায়ী করে বিএনপির মন্তব্য দায়িত্বজ্ঞানহীন: তথ্যমন্ত্রী

চ্যালেঞ্জ ছুড়ে সিলেটে মাঠে ৫ বিদ্রোহী আওয়ামী লীগে দ্বিধাবিভক্তি

সড়কে মৃত্যুর মিছিল যেন স্বাভাবিক

বাংলাদেশের জনগণ ভালো থাকলে কিছু মানুষ অসুস্থ হয়ে যায়

গা ঢাকা দিয়েছেন গোডাউন মালিকরা

চার জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৫

কোথায় হারালো দুই বোন

আজিমপুরে শোকের মাতম

কান্নায় ভারি হয়ে উঠেছে বাতাস

কন্যার স্মৃতিতে পিতা

বাংলাদেশের জনগণ ভালো থাকলে কিছু মানুষ অসুস্থ হয়ে যায়

দরিদ্র্যতা নয় লোভের বলি