মনোনয়নপত্র কিনলেন মুহিত-মোমেন

শেষের পাতা

ওয়েছ খছরু, সিলেট থেকে | ১০ নভেম্বর ২০১৮, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৩১
সব জল্পনার অবসান ঘটালেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। মনোনয়ন ফরম কিনেছেন তিনি। তবে প্রথমে অনুজ ড. একে আবদুল মোমেনের জন্য মনোনয়ন ফরম কিনেন তিনি। অর্থমন্ত্রীর দেয়া টাকায়ই মনোনয়ন কিনলেন ড. একে আবদুল মোমেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রীও। এদিকে সন্ধ্যার পর  অর্থমন্ত্রীর  পক্ষে ছেলে  সাহেদ  মুহিত মনোনয়ন ফরম কিনেন। তবে আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতারা অর্থমন্ত্রীকেই সিলেট-১ আসনে চাচ্ছেন দলের প্রার্থী হিসেবে।

অর্থমন্ত্রী পরিবারের ঘনিষ্ঠ রাজনৈতিক নেতারা গতকাল বিকেলে মানবজমিনকে জানিয়েছেন- আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন না অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।
কয়েকদিন আগে তিনি নির্বাচন করার ঘোষণা দিলেও পরবর্তীতে তার অবস্থান থেকে সরে এসেছেন। এই আসনের দায়িত্ব তুলে দিয়েছেন তারই ছোটো ভাই ড. একে আবদুল মোমেনকে। এখন দল মনোনয়ন দিলে ড. একে আবদুল মোমেন সিলেট থেকে নির্বাচন করবেন। তারা জানান- গতকাল জুমার নামাজের পর সিলেটের কয়েকজন নেতা অর্থমন্ত্রীর ঢাকার বাসায় যান। এ সময় সেখানে ছিলেন ড. একে আবদুল মোমেনও। অর্থমন্ত্রী দলীয় কার্যালয় থেকে মনোনয়ন কিনতে এ সময় ড. মোমেনের হাতে ৩০ হাজার টাকার একটি চেক হস্তান্তর করেন। ড. মোমেনের হাতে অর্থমন্ত্রীর চেক হস্তান্তরের দৃশ্য ক্যামেরায় ধারণ করে নিজের ফেসবুক আইডিতে আপলোড করেছেন নেতারা।

চেক হস্তান্তরের পর ড. মোমেনকে সঙ্গে নিয়ে নিজ বাসা থেকে বের হন অর্থমন্ত্রী। যান দলীয় কার্যালয়ে। সেখানে অর্থমন্ত্রীকে সঙ্গে করে নিয়ে ড. মোমেন সিলেট-১ আসনের জন্য দলীয় মনোনয়ন ক্রয় করেন। এ সময় ড. একে আবদুল মোমেন বলেন- প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা তাকে এ আসনে মনোনয়ন দিলে তিনি নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করবেন। আর অর্থমন্ত্রীও দৃঢ় আশা ব্যক্ত করেন ড. মোমেনের মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে। সিলেট মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক ও অর্থমন্ত্রী পরিবারের ঘনিষ্ঠজন আলম খান মুক্তি মানবজমিনকে জানিয়েছেন- ‘আগামী নির্বাচনে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত নির্বাচন করছেন না- এটা প্রায় নিশ্চিত। এ কারণে তিনি তার ছোট ভাই ড. মোমেনকে নিজে টাকা দিয়ে মনোনয়ন কিনেছেন। আমরা সবাই এ সময় তাদের সঙ্গে উপস্থিত ছিলাম।’ সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা জাবেদ সিরাজ বলেন- অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সঙ্গে গিয়ে ড. মোমেনের নামে সিলেট-১ আসনের মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন। আগামী নির্বাচনে সিলেট থেকে ড. মোমেন নির্বাচন করবেন। এ সময় তাদের সঙ্গে সিলেটের নেতারাও উপস্থিত ছিলেন বলে জানান তিনি।

মর্যাদাপূর্ণ সিলেট-১ আসনে প্রার্থী হতে গত তিন বছর ধরে মাঠে চষে বেড়াচ্ছেন ড. একে আবদুল মোমেন। মাঠ চষে বেড়ালেও অর্থমন্ত্রীর অবসর ঘোষণার পর সিলেট থেকে প্রার্থী হওয়ার প্রতিযোগিতায় নামেন অনেকেই। এর মধ্যে আছেন সাবেক নির্বাচন কমিশনার ছহুল হোসাইন, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. ফরাস উদ্দিন, সিলেটের সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ কামরান, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ। অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে তারা প্রতিযোগী না হলেও ড. মোমেনকে ছাড় দিতে নারাজ ছিলেন। এ কারণে দলের ভেতরে মনোনয়ন নিয়ে প্রতিযোগিতা শুরু করেছিলেন। কিন্তু কয়েকদিন আগে অর্থমন্ত্রী ফের নির্বাচন করার ঘোষণা দিলে সিলেটের ভোটের মাঠে দৃশ্যপট পাল্টে যায়। প্রতিযোগিতায় থাকা নেতারা পিছু হটেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অর্থমন্ত্রী মনোনয়ন না কিনে তার অনুজ ড. মোমেনকে দিয়ে মনোনয়নপত্র কিনেছেন। তবে দলের একটি অংশ এখনো অর্থমন্ত্রীকে সিলেট-১ আসনে প্রার্থী করতে চাইছেন। আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা তোফায়েল আহমেদসহ সিনিয়ররা বার বার অর্থমন্ত্রীকে নির্বাচনে থাকার অনুরোধ জানাচ্ছেন। কিন্তু নির্বাচন না করার ব্যাপারে অনড় রয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

ঢাকায় অবস্থানরত সিলেট আওয়ামী লীগের নেতারা জানিয়েছেন, সিলেট-১ আসন থেকে নির্বাচনে প্রার্থী হতে দলের কাছে মনোনয়ন চান সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ কামরান ও অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ। তারা দু’জন এখন ঢাকায় অবস্থান করছেন। তারাও এই আসনে দলীয় টিকিট পেতে মনোনয়নপত্র ক্রয় করবেন। সিলেটের সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ কামরান মানবজমিনকে জানিয়েছেন, দলীয় ফোরামের কাছে প্রার্থী হতে এই মনোনয়নপত্র কেনা হচ্ছে। তিনি নিজেও মনোনয়নপত্র কিনবেন। এবং আগামী নির্বাচনে সিলেট-১ আসন থেকে প্রার্থী হতে দলীয় ফোরামে আবেদন জানাবেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাতে থমথমে নয়াপল্টন

দলের সিদ্ধান্ত না মানলে আজীবন বহিষ্কার

তাহলে বলে দিক, নির্বাচন করো না

৩ সপ্তাহ ভোট পেছানোর দাবি ঐক্যফ্রন্টের বিবেচনার আশ্বাস ইসির

ফের হেলমেট বাহিনী!

নয়াপল্টনে শোডাউন আচরণবিধির লঙ্ঘন নয়: ইসি সচিব

হামলাকারীরা ছাত্রলীগের

মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে পুলিশের ওপর হামলা

ভোট একদিনও পেছানো ঠিক হবে না

পুলিশের ওপর হামলা পরিকল্পিত- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে জটিলতা

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের খসড়া ইশতেহারে ৫ প্রতিশ্রুতি

ঘরের আগুনে পুড়ছে আওয়ামী লীগ, বিকল্প নেই খসরুর

নবীগঞ্জে মহাজোট প্রার্থী নিয়ে চমক

মনিরুল হক চৌধুরী অসুস্থ, জামিন মেলেনি

অর্ধশতাধিক ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব এবার নির্বাচনী মাঠে