আদালতের নির্দেশের পরও চিকিৎসা পাচ্ছেন না অসুস্থ ছাত্রদল নেতা নয়ন

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ৯ নভেম্বর ২০১৮, শুক্রবার
আদালতের নির্দেশের পর সুচিকিৎসা পাচ্ছেন না কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি ছাত্রদল ঢাকা মহানগর পূর্ব শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল ইসলাম নয়ন। দুদফা রিমান্ডে নির্মম নির্যাতনের পর কারাগারে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। কারাগারের চিকিৎসক তাকে সিটিস্ক্যান, এমআরআই, এক্স-রে সহ নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা দিয়েছেন। কিন্তু কারা কর্তৃপক্ষ তাকে চিকিৎসা না দিয়ে বন্দি সেলে পাঠিয়ে দিয়েছেন। এমন কি কারাবিধি অনুযায়ী স্বজনদের সাক্ষাৎ করতে দেয়া হচ্ছে না। এ অবস্থায় নয়নের জীবন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন তার পরিবার। কারাবন্দি নয়নের আইনজীবী এড. সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, ১২ই অক্টোবর গ্রেপ্তারের পর নয়নকে দুদফা ৫ দিন রিমান্ডে নেয়া হয়। রিমান্ডে নির্মম নির্যাতনের কারণে তিনি  নিজের পায়ে ভর দিয়ে হাঁটতে পারেন না।
পা ফুলে গেছে। প্রশ্রাবের রাস্তা দিয়ে রক্ত বের হয়। খেতেও পারেন না। এতে দিন দিন তার শারীরিক অবস্থা খারাপ হচ্ছে। মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক নয়নের সুচিকিৎসার জন্য কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন। এরপর কারাগারের চিকিৎসক তাকে সিটিস্ক্যান, এমআরআই, এক্স-রে সহ নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা দিয়েছেন। কিন্তু কারা কর্তৃপক্ষ তাকে কোন চিকিৎসা দেয়নি। এমনকি একটি পরীক্ষাও করেনি। অবিলম্বে তাকে বিশেষায়িত কোন হাসপাতালে ভর্তির আবেদন জানাচ্ছি। উল্লেখ্য, গত ১২ই অক্টোবর হাইকোর্টের সামনে থেকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে যায় নয়নকে। ৩দিন পর তাকে আদালতে হাজির করা হয়। এরপর দুদফা ৫ দিন রিমান্ডে নেয়া হয়।  প্রায় দেড় শতাধিক রাজনৈতিক মামলার আসামি নয়ন বিগত দুদফা আন্দোলনে বেশ কয়েকদফা কারাবরণ করেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বাংলাদেশকে এখন সবাই সম্মানের চোখে দেখে

এরপরও মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট পেলাম না

রাজনৈতিক গোষ্ঠী ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে ধর্মের অপব্যবহার করছে

সেই চালক-হেলপারের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা

তৃতীয় ধাপে ভোট পড়েছে ৪১ দশমিক ৪১ শতাংশ

কালরাত স্মরণে ব্ল্যাকআউট

সরকার ছদ্মবেশে একদলীয় বাকশাল প্রতিষ্ঠা করেছে

শহিদুল আলমের মামলায় হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত হয়নি

সাহসিকতা ও সেবায় পুরস্কার পাচ্ছেন ৫৯ সদস্য

ঘুষ না খাওয়ার শপথ পড়ালেন অর্থমন্ত্রী

মৌলভীবাজার যুবলীগের কমিটিতে ছাত্রদল নেতা!

মঠবাড়িয়ায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

মাদক পাচার ও বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শরণার্থী

ফেল থেকে পাস ৮ হাজার শিক্ষার্থী

ক্রাইস্টচার্চের ঘটনায় সর্বোচ্চ পর্যায়ের তদন্তের ঘোষণা

ভিকারুননিসায় অধ্যক্ষ নিয়োগে বাধা নেই