‘সিলেটের ১৯টি আসন প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দিতে চাই’

বাংলারজমিন

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি | ৮ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
 সিলেট-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, ২০০৮ সালের নির্বাচনের মতো আগামী নির্বাচনেও বিশ্বনাথ এবং ওসমানীনগরের সর্বস্তরের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করে সিলেট-২ আসন ফের প্রধানমন্ত্রী, শেখ হাসিনাকে উপহার দিতে চাই। উপহার দিতে চাই সিলেটের অন্য ১৮টি আসনও। সে লক্ষ্যে সকল ভেদাভেদ ভুলে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে সকলকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে। আরো শক্তিশালী করতে হবে বাংলার সফল প্রধানমন্ত্রী, জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে।
মঙ্গলবার বাদ সন্ধ্যা বিশ্বনাথের রামপাশা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন আয়োজিত বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি কাওছার আহমদের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হরমুজ আলী, বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সমছু মিয়া, যুগ্ম সম্পাদক আমির আলী চেয়ারম্যান, মকদ্দছ আলী, রামপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলমগীর, সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ার খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল আজিজ সুমন, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাস্টার ফখর উদ্দিন, কার্যনির্বাহী সদস্য নিজাম উদ্দিন, মহানগর কৃষক লীগের সহ-সভাপতি শেখ মো. আজাদ প্রমুখ।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

গণভবনে এরশাদ-বি. চৌধুরী

এবারের নির্বাচনে বিশেষ কোনো দলের প্রতি সমর্থন নেই ভারতের

প্রার্থী তালিকায় বড় পরিবর্তনের সম্ভাবনা কম

আমাদের নির্বাচনের দিনটি চুরি-ডাকাতির দিন হয়ে গেছে

সচিব, ডিএমপি কমিশনারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা দাবি

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আজ

রফিকুল ইসলাম মিয়া গ্রেপ্তার

এতোগুলি মানুষের স্বাধীনতাকে ভালোবাসাই আশার জায়গা

ইশতেহারে ডিজিটাল আইন সংশোধনের প্রতিশ্রুতি অন্তর্ভুক্তির আহ্বান

নির্বাচন সামনে রেখে পর্যবেক্ষণে বিনিয়োগকারীরা

বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশীদের শপথ

সশস্ত্র বাহিনী দিবস আজ

ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিতে পারেন সামাদ আজাদপুত্র ডন

দশ মাসে ৪৩৭ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড

‘আমি বেশি দিন রাজনীতি করমু না’ -শামীম ওসমান

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘুরে গেলেন মিলার