সেপ্টেম্বরে খাসোগি হত্যার নীলনকশা করা হয়- এরদোগান

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২৩ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৪৯
সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে ওই সাংবাদিককে হত্যার নীল নকশা তৈরি করা হয়। তুরস্কের পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে ‘নগ্ন সত্য’ প্রকাশ করতে গিয়ে প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়্যিপ এরদোগান এ কথা বলেছেন। তিনি আরো বলেছেন, আমরা শুরুতেই বলেছিলাম ইস্তাম্বুলে সৌদি আরবের কনসুলেটের ভিতরেই খাসোগিকে হত্যা করা হয়েছে। এ নিয়ে আমরা তদন্ত অব্যাহত রাখবো। তা থেকে আমাদেরকে কেউ থামাতে পারবে না। তিনি আরো বলেন, আন্তর্জাতিক কোনো আইন এমন হত্যাকান্ডকে সমর্থন করতে পারে না। তিনি এ বক্তব্য রাখার সময়ে তুরস্কের পার্লামেন্ট ছিল কানায় কানায় পূর্ণ।
এ সময় তিনি বলেন, আমরা সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলাম এ হত্যায় যারা জড়িত তাদের নাম প্রকাশ করতে। এ হত্যাকান্ড নিয়ে কেন এত সাংঘর্ষিক বক্তব্য দেয়া হচ্ছে তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। জানতে চান, নিহত সাংবাদিক খাসোগির মৃতদেহটি কোথায়? আমাদেরকে বলা হয়েছে, মৃতদেহ স্থানীয় একজনকে দেয়া হয়েছে। কে সেই স্থানীয় ব্যক্তি? প্রশ্ন করেন এরদোগান। তিনি বলেন, আমাদের এসব প্রশ্ন করার ও তার উত্তর পাওয়ার অধিকার আছে। তিনি যখন এ বক্তব্য রাখছিলেন তখন পার্লামেন্ট সদস্যদেরকে বার বার হাততালি দিয়ে তাকে উজ্জীবিত করতে দেখা যায়। তিনি বলেন, সৌদি বাদশার বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে আমার কোন সন্দেহ নেই। তবে আমি এ ঘটনায় একটি নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি করি। তুরস্কে আমরা এ ঘটনা নিয়ে তদন্ত করবো। কারণ, এর আদ্যোপান্ত মানুষ জানতে চান।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নির্বাচন বর্জন নয়, কেন্দ্র পাহারা দিন

হঠাৎ কবিতা খানমের সুর বদল

ফাঁকা মাঠে গোল নয়

রেজা কিবরিয়া ঐক্যফ্রন্টে

সংখ্যালঘু নির্যাতনকারীদের নির্বাচনে মনোনয়ন না দেয়ার দাবি

‘ফের বাংলাদেশের বিরুদ্ধে’

মামলার বাদী যখন খুনি

ক্ষমতায় গেলে যেসব কাজ করবে ঐক্যফ্রন্ট জানালেন ডা. জাফরুল্লাহ

‘নতুন করে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে’

বিএনপিতে মনোনয়ন যুদ্ধে সাবেক ছাত্র নেতারা

তলাফাটা নৌকা নিয়ে কতদূর যেতে পারেন দেখাতে চাই

সিলেটে জামায়াতকে ছাড় দিতে চায় না বিএনপি

রাষ্ট্র ভিন্নমতাবলম্বীদের সহ্য করতে পারছে না

নয়া মার্কিন দূত মিলার ঢাকা আসছেন আজ

দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে নাগরিক ঐক্য

ভোট পর্যবেক্ষণের আবেদন ২১ নভেম্বরের মধ্যে