গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য বিরোধী দলের অংশগ্রহণ প্রয়োজন

শেষের পাতা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | ২৩ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৫৩
গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য শক্তিশালী বিরোধী দলের অংশগ্রহণ প্রয়োজন বলে মন্তব্য  করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট। গতকাল সচিবালয়ে বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক শেষে এ কথা বলেন তিনি।

মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে অস্থিতিশীল পরিবেশ চায় না যুক্তরাষ্ট্র। অবাধ, নিরপেক্ষ, স্বচ্ছ এবং অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন গণতন্ত্রের মূল চাবিকাঠি উল্লেখ করে তিনি বলেন, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব যদি সব দল ভোটে অংশ নেয় এবং শান্তিপূর্ণভাবে সভা-সমাবেশ করতে পারে এবং নির্বাচন প্রক্রিয়া নিয়ে কোনো সহিংসতা না হয়। গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য অবশ্যই গ্রহণযোগ্য বিরোধীদল থাকতে হবে।

বিএনপি অংশ না নিলে সেটাকে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন বলবেন কী না- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সব দল নির্বাচনে অংশ নেবে আমরা সেটাই চাই।

বিএনপির নির্বাচনে অংশ নেয়ার বিষয়ে বলেছেন কি না- জানতে চাইলে রাষ্ট্রদূত বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচনে অংশ নিন, সবার প্রতিই আমাদের এই আহ্বান। গণতন্ত্রের স্বার্থে গণমাধ্যমগুলোকে সঠিক তথ্য দিয়ে প্রতিবেদন তৈরিরও আহ্বান জানান বার্নিকাট।
যুক্তরাষ্ট্রের বাংলাদেশে বিনিয়োগের প্রসঙ্গ তুলে ধরে তিনি বলেন, যা বিনিয়োগ হয়েছে তাতে আমরা সন্তুষ্ট নই, আমরা আরো বিনিয়োগ করতে চাই। রানা প্লাজা ধসের পর পোশাক কারখানার উন্নয়নে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রশংসা করেন তিনি।
বাংলাদেশে প্রায় তিন বছর দায়িত্ব পালন করে আসা বার্নিকাট বাংলায় বলেন, আবার দেখা হবে, অনেক অনেক ধন্যবাদ।
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা যুক্তরাষ্ট্রে সব থেকে বেশি রপ্তানি করি। বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্রে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ৭.৭৬ বিলিয়ন ডলার, ব্যবসা-বাণিজ্য আরো বৃদ্ধি পাবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল বলেন, ঐক্যজোট হয়েছে নির্বাচন করার জন্যই, এটা আমার বিশ্বাস। তারা সিলেটে ২৪ তারিখ থেকে শুরু করছে, সেখানে জনসভা করবে। চট্টগ্রাম যাবে, রাজশাহী যাবে- নির্বাচনী প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। সুতরাং ভাববেন না যে নির্বাচনে কেউ আসবে না।

বিএনপি কামাল হোসেনের নেতৃত্ব মেনে নিয়েছে এবং তারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার জন্যই এই জোট করেছে। আমরাও চাই আগামী নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হোক, সেই লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি।

একাদশ সংসদ নির্বাচন নিয়ে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে জানিয়ে তোফায়েল বলেন, তিনি বাংলাদেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার ওপর জোর দিয়ে বলেছেন, একটা দেশ অস্থিতিশীল হলে অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

আমাদের প্রত্যাশা যতই জোট করুক এটার মূল লক্ষ্য হলো নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা। রাষ্ট্রদূতকে বলেছি, সংবিধানের বাইরে আমরা যাব না। সংবিধানের বাইরে যাওয়ার কোনো ?সুযোগ নেই।

ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্য নয়, ঐক্যজোট হয়েছে মন্তব্য করে মন্ত্রী বলেন, জাতীয় ঐক্য হলে সকল দল একমত হয়ে যায়। ঐক্যজোটের দাবিগুলো সংবিধান সম্মত ও গ্রহণযোগ্য নয় জানিয়ে তিনি বলেন, এই সংসদই বহাল থাকবে, মধ্যবর্তী নির্বাচন হলে সংসদ বাতিল হয়।

বিএনপি না এলেও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হবে কি না- এই প্রশ্নে তোফায়েল বলেন, কোনো দলকে বাদ দিয়ে আমরা নির্বাচনে অংশ নিতে চাই না। কোনো দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে কি করবে না সেটা তাদের সিদ্ধান্ত।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো ক্ষমতাসীন সরকারই নির্বাচনকালীন সরকারে থাকবে।
মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকে অহেতুক গ্রেপ্তার নিয়েও কথা হয়। এ সময় বাণিজ্যমন্ত্রী আশ্বস্ত করেন, সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়া কাউকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

তাদের সবাইকে জেলে ভরে রাখা উচিত: জয়

ব্রেক্সিট: পদত্যাগ করেছেন উত্তর আয়ারল্যান্ড বিষয়ক মন্ত্রী

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিক্ষোভ, শ্লোগান

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে অনিশ্চিত মাশরাফি

ধানের শীষে লড়বে ঐক্যফ্রন্ট

আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মনোনয়ন ফরম নিলেন যারা

বিএনপিতে ফিরলেন সাবেক এমপি আব্দুর রশিদ

জোটবদ্ধ নির্বাচন হলেও সম্মানজনক আসন পাবো

নেতা-কর্মীরাই সামলাচ্ছেন সড়কের জট

চীন বা রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে হেরে যেতে পারে যুক্তরাষ্ট্র!

গ্যাটকো মামলায় খালেদার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ১০ জানুয়ারি

‘ছাত্রলীগ ও যুবলীগ কর্মীরা পুলিশের গাড়িতে আগুন দেয়’

পল্টনে হামলা বিএনপির পূর্ব পরিকল্পিত

ফেনীতে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার রায় যুবকের যাবজ্জীবন

শমসের মবিন সিলেট-৬, এমএম শাহীন মৌলভীবাজার-২ এর মহাজোটের প্রার্থী!

বিকেল ২টায় রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন শুরু