এস এ গ্রুপের মালিক শাহাবুদ্দিন ২ দিনের রিমান্ডে

অনলাইন

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ২১ অক্টোবর ২০১৮, রোববার, ৫:৪৮
চেক জালিয়াতির ২৪ মামলার আসামি চট্টগ্রামের এস এ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. শাহাবুদ্দিন আলমকে দুই দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছেন আদালত।

রবিবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আবু সালেম মোহাম্মদ নোমানের আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ২০১৭ সালে নগরীর ইপিজেড থানায় দায়ের করা চেক জালিয়াতির একটি মামলায় রাষ্ট্র পক্ষের ৫ দিনের রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে আদালত এ আদেশ দেন।
আসামি পক্ষের আইনজীবিরাও তার জামিন আবেদন করেন। আদালত শুনানি শেষে জামিন না মঞ্জুর করেন বলে জানান সহকারী পুলিশ কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাবুদ্দীন আহমেদ।

তিনি বলেন, ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে আতœসাৎ করার অভিযোগে নগরীর ইপিজেড থানায় দায়ের করা মামলায় (মামলা নং ১৫ (১১) ১৭) আসামি শাহাবুদ্দিন আলমকে আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। কিন্তু আদালত শুনানি শেষে ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে ঋণ জালিয়াতির অভিযোগে ব্যাংক এশিয়া লিমিটেডের করা একটি মামলায় গত ১৭ অক্টোবর দুপুর ১২টায় গুলশানের একটি হোটেল থেকে দেশের শীর্ষ ঋণ খেলাপী হিসেবে পরিচিত এস এ গ্রুপের মালিক শাহাবুদ্দিন আলমকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি।

শাহাবুদ্দিন আলম বাণিজ্যিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংক ও ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে বিভিন্ন সময়ে মোট ৩ হাজার ৬২২ কোটি ৪৮ লাখ ৪৫ হাজার ৫৯ টাকার ঋণ সুবিধা গ্রহণ করেন।

তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে তা আর ফেরত না দেয়ার অভিযোগ করা হয়েছে বিভিন্ন ব্যাংক ও প্রতিষ্ঠানের ২৪টি মামলায়। এর মধ্যে চট্টগ্রামের ব্যাংক এশিয়া লিমিটেডের সিডিএ অ্যাভিনিউ শাখা থেকে তার নেওয়া ঋণের পরিমাণ ৭০৯ কোটি ২৭ লাখ ৩৫ হাজার টাকা।

এ ছাড়া চট্টগ্রামের ইসলামী ব্যাংক আগ্রাবাদ শাখা থেকে ৯৪০ কোটি ১০ লাখ ৫১ হাজার টাকা, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের আগ্রাবাদ শাখা থেকে ৩৬ কোটি ১১ লাখ ৪১ হাজার টাকা, ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেডের আগ্রাবাদ শাখা থেকে ৭০১ কোটি ৪৯ লাখ ৩১ হাজার টাকা, পূবালী ব্যাংকের আগ্রাবাদ শাখা থেকে ২৯৭ কোটি ১১ লাখ ৪৮ হাজার টাকা, কৃষি ব্যাংকের ষোলোশহর শাখা থেকে ১৭৯ কোটি ৬৮ লাখ ৩৭ হাজার টাকা, অগ্রণী ব্যাংক কর্পোরেট শাখা থেকে ৫৪৮ কোটি ৪৪ লাখ টাকা, জনতা ব্যাংক শেখ মুজিব রোড করপোরেট শাখা থেকে ১১৮ কোটি ২২ লাখ ৭১ হাজার টাকা, প্রাইম ব্যাংকের আগ্রাবাদ শাখা থেকে ৫৫ কোটি ২৫ লাখ ৫২ হাজার টাকা ঋণ নিয়েছেন তিনি।

এছাড়াও ইউনাইটেড এন্টারপ্রাইজের নুরুল আমিন লাবলুর কাছ থেকে ১০ কোটি টাকা, মেওয়া ওয়েল অ্যান্ড ফ্যাডস থেকে ২৬ কোটি ৭৭ লাখ ৭৪ হাজার টাকা ঋণ নিয়েছেন তিনি।

শাহাবুদ্দিন আলম চট্টগ্রামের এস এ গ্রুপের চেয়ারম্যানের পাশাপাশি এস এ অয়েল রিফাইনারি ও সামান্নাজ সুপার অয়েল কো¤পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্বও পালন করছেন।।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে ইসির অনাপত্তি, মুহিতকে নিষেধ

নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের স্ট্যাটাস কী হবে জানতে চান কূটনীতিকরা

বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টের উদ্বেগ

কারাগারে থেকে ভোটের প্রস্তুতি

শহিদুল আলমের জামিন

ধানের শীষে লড়বে ঐক্যফ্রন্ট

নিপুণ রায় চৌধুরী গ্রেপ্তার

আতঙ্ক উপেক্ষা করে পল্টনে ভিড়

বিশ্ব ইজতেমা স্থগিত

কুলাউড়ায় সুলতান মনসুরের বিপরীতে কে?

ঢাকার প্রচেষ্টা ব্যর্থ

নির্বাচন পেছাবে না ইসির সিদ্ধান্ত

ঝিনাইদহে ৩৭৪ মামলায় আসামি ৪১ হাজার

বিএনপি আবার আগুন সন্ত্রাস শুরু করেছে

বড় জয়ে সিরিজে সমতা

উত্তেজনায় ফুটছে বৃটিশ রাজনীতি, চার মন্ত্রীর পদত্যাগ