জোড়া কলায় যমজ সন্তান

ষোলো আনা

ফাহিম দেওয়ান | ১৯ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:২৬
নিলিমা রহমান (ছদ্মনাম), বাড়ি মানিকগঞ্জ। বিয়ের পাঁচ বছর কেটে গেছে। কিন্তু এখনো কোলজুড়ে আসেনি সন্তান। শ্বশুরবাড়ির গঞ্জনা, পাড়া-প্রতিবেশীদের ভর্ৎসনার শিকার হতে হয় প্রায়শই। নিলিমার মা মেয়ের দুঃখের অবসান করতে কোনো এক স্থানীয় পীরের কাছে ছুটে যান। পীর দেন মন্ত্র পড়া জোড়া কলা। যা খেলে নাকি যমজ সন্তানের মা হবে সে। মা হননি তিনি।
তবে বেশ মোটা অঙ্কের টাকা হাদিয়া নিয়েছিলেন সেই পীর। শুধু তাই নয়, জোড়া কলায় যমজ বাচ্চা হতে পারে এই ধারণায় অনেকেই এড়িয়ে চলেন জোড়া কলা।

যমজ বাচ্চা হওয়ার পেছনে জোড়া কলার যে ছিটেফোঁটা সম্পর্ক নেই তার প্রমাণ পাই আধুনিক বিজ্ঞানে।  বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা বলে, একজন নারীর ঋতুচক্রের সময় যদি দুটি ডিম্বাণু নির্গত হয়। আর তা যদি আলাদা আলাদা দুটি শুক্রাণু দ্বারা নিষিক্ত হয়, তবে যমজ সন্তান হতে পারে।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

কাবুলে বাংলাদেশ মিশন পুনরায় খোলার অনুরোধ আফগান দূতের

লুকিয়ে পরীক্ষা দিতে গিয়েও রেহাই পেলো না চবির ছাত্রদল নেতা

নির্বাচনের অনিয়ম, রাখাইন সংকট ও জুলহাজের বিচার নিয়ে ওয়াশিংটনে আলোচনা

জামিন বহাল সাবেক দুই আইজিপির

সীমান্ত হত্যার ঘটনায় ফখরুলের উদ্বেগ

ইউনিপের এমডিসহ ছয়জনের ১২ বছর কারাদন্ড

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে দুদকের চিঠি

ঢাকা উত্তরে মেয়র পদে মনোনয়ন ২৬ জানুয়ারি: কাদের

ফেব্রুয়ারিতে একসঙ্গে দু’পক্ষের বিশ্ব ইজতেমা

তারা মিয়ার জামিন

অন্ত:স্বত্তা গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগে এসআইয়ের বিরুদ্ধে মামলা

২৪ ঘন্টায় কমলা হারিসের তহবিলে দেড় লাখ ডলার

প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে রাজনীতিতে এনে কংগ্রেসের মাস্টারস্ট্রোক

পুলিশ পেটানোর মামলায় সেই ছাত্রলীগ নেতা রিমান্ডে

চট্টগ্রামে ভাড়া বাসায় যুবদল নেতার গলিত লাশ

ময়মনসিংহে শিক্ষককে মারধর, শিক্ষার্থীদের থানায় হামলা-ভাংচুর, সংঘর্ষে আহত ১৫