দুই উইকেট পড়ে গেছে আরো পড়বে

প্রথম পাতা

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি | ১৮ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৫৯
বিএনপি কীভাবে ড. কামাল হোসেনের কাঁধে ভর করলো এমন প্রশ্ন তুলেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বলেছেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট জগাখিচুরি। এ ফ্রন্টের ৭ দফা দাবি অবান্তর, অবাস্তব ও অসাংবিধানিক। তাদের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া দণ্ডিত, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হয়ে লন্ডনে পলাতক। বিএনপির অনেক সিনিয়র নেতা আছেন। তাদের বাদ দিয়ে ড. কামাল হোসেনের কাঁধে কিভাবে ভর করলো তা আমাদের বোধগম্য নয়। তিনি বলেন, তাদের ২ উইকেট পড়ে গেছে। আরও অনেক উইকেট পড়বে।
অপেক্ষা করুন। আমাদেরও ১৪ দল আছে। জাতীয় পার্টি আমাদের সঙ্গে আছে। জাকের পার্টি ও বামদল আমাদের জোটে ভিড়তে চায়। আমরা আমাদের ওয়ার্কিং কমিটিতে তাদের জোটে আসার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিব। রাজনীতিতে অনেক মেরুকরণ হবে। কখনও মেকিং হবে কখনও ব্রেকিং হবে। মেকিং ও ব্রেকিং চলতে থাকবে।

এটাকে আমরা স্বাগত জানাই। শেষ পর্যন্ত কি দাঁড়ায় সেটার জন্য সবাইকে অপেক্ষা করতে হবে। গতকাল দুপুর ১টায় কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট শ্রী শ্রী জগন্নাথ মন্দির কমপ্লেক্সের পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন শেষে হিন্দু সম্প্রদায়ের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সেতুমন্ত্রী বলেন, সারা বাংলাদেশে শারদীয় দুর্গোৎসব বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে পালিত হচ্ছে। আপনারা শান্তিপূর্ণভাবে উৎসব পালন করেন। সারা দেশে সরকারিভাবে ব্যাপক নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। আমরা আমাদের নেতাকর্মীদের বলেছি, ২৪ ঘণ্টা আপনাদের পাশে থাকার জন্য। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকেশ্বরী মন্দির পরিদর্শন করেছেন। আমি আজকে আপনাদেরকে আশ্বস্ত করছি শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগ আপনাদের পাশে আছে এবং থাকবে। হিন্দু, মুসলমান আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ।

শারদীয় দুর্গোৎসব হচ্ছে দুষ্টের দমন শিষ্টের পালন। আপনাদের শত্রু নিরীহ মুসলমান নয়। আপনাদের শত্রু সাম্প্রদায়িক শক্তি। সাম্প্রদায়িক শক্তিকে সমূলে উৎপাটন করতে হবে। আগামী নির্বাচনে সাম্প্রদায়িক শক্তিকে পরাজিত করে আমাদেরকে ক্ষমতায় আসতে হবে। পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মাস্টার মিলন কান্তি মজুমদারের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান বাদল, হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক অরবিন্দু ভৌমিক, নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প বিষয়ক সম্পাদক নাজমুল হক নাজিম, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আজম পাশা চৌধুরী রুমেল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ খিজির হায়াত খান, সাধারণ সম্পাদক নুর নবী চৌধুরী, স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদের সদস্য ফখরুল ইসলাম রাহাত, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক গোলাম ছারওয়ার, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নিজাম উদ্দিন মুন্না, নুর-ই মাওলা রাজু,  আওয়ামী লীগ নেতা বেলায়েত হোসেন বেলাল প্রমুখ।  



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

sujan

২০১৮-১০-১৯ ১৭:২৯:৩৯

hiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiiii

Kazi1983

২০১৮-১০-১৭ ১৬:৩৬:১২

Sir wicket 2 ta 19 number nd 20 number batsman oi ta opening e porle prb nai valo batsman shewag tendulkar dravid tamim gilcrist injamam akono ase

আপনার মতামত দিন