দুদকের বিরুদ্ধে নিউজ করলেও সাংবাদিকদের ভয় নেই: ইকবাল মাহমুদ

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৭ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৫৮
দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) প্রাতিষ্ঠানিক দুর্নীতি নিয়ে কোনো সংবাদ প্রকাশ করলেও সাংবাদিকদের ভয়ের কারণ নেই বলে জানিয়েছেন কমিশনটির চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। গতকাল বিকালে প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশে (পিআইবি) তিনদিন ব্যাপী অনুসন্ধানমূলক রিপোর্টিং প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। রিপোর্টার্স অ্যাগেইনেস্ট করাপশন (র‌্যাক) ও পিআইবির যৌথ উদ্যোগে তিন দিনের এই প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। এতে দুদক চেয়ারম্যান প্রশিক্ষণার্থীদের হাতে সনদ তুলে দেন। ইকবাল মাহমুদ বলেন, অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা ছাড়া দুদক টিকবে না। দুর্নীতির বিষয়ে যেকোনো সাংবাদিককে উৎসাহিত করা হবে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রসঙ্গে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ৫৭ ধারা বা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রসঙ্গে আমার তেমন ধারণা নেই। তবে আপনাদের ভয়ের কোনো কারণ নেই।
দুদকের প্রাতিষ্ঠানিক দুর্নীতির বিষয় নিয়ে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করবেন। দুদক এসব সংবাদকে স্বাগত জানাবে। দুদকের পক্ষ থেকে এসবের জন্য কোনো মামলা বা হয়রানি করা হবে না। এমনকি এখন পর্যন্ত কোনো প্রতিবাদও করা হয়নি। নির্ভয়ে আপনারা অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা করবেন। ইকবাল মাহমুদ আরো বলেন, অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে সত্য তথ্য প্রকাশ করবেন। আমি আপনাদের পক্ষে বলতে চাই, আমার বিরুদ্ধে হোক আর দুদকের বিরুদ্ধে হোক কিংবা কোনো কর্মকর্তার বিরুদ্ধে হোক আপনারা লিখবেন। অনুসন্ধানের তথ্য যদি আপনারা না দেন তাহলে প্রতিষ্ঠান চলবে না। আপনারা যদি আমাকে চ্যালেঞ্জ না করেন আমি শুধরাবো না। আমাকে প্রশ্ন করবেন। কিছু প্রশ্নের উত্তর দেবো। কিছু হয়তো দিতেও পারবো না। সাংবাদিকতার আসল বিষয় হচ্ছে অনুসন্ধান। সাংবাদিকতা চলমান থাকুক। আপনারা নিরুৎসাহিত হবেন না।
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে সাংবাদিকদের ভীতি প্রসঙ্গে পিআইবির মহাপরিচালক শাহ আলমগীর বলেন, সাংবাদিকতা কোনো আইন দিয়ে থেমে থাকেনি। আইন করে কোনো ভালো কাজকে আটকানো যাবে না। আইন হয় খারাপদের জন্য। কাজেই আইন নিয়ে ভীত হওয়ার কোনো কারণ নেই। সমাপনী অনুষ্ঠানে পিআইবি’র মহাপরিচালক শাহ আলমগীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, বাসসের প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ। অনুষ্ঠানে দুদক বিটের সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে স্বাগত বক্তব্য রাখেন র‌্যাকের সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন আহমেদ ও সাবেক সভাপতি মিজান মালিক প্রমুখ। এর আগে গত ১৪ই অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া এ প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষক হিসেবে অংশ নেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাইফুল আলম চৌধুরী ও নিউ ইয়র্ক টাইমসের স্ট্রিংগার জুলফিকার আলী মানিক। এতে প্রশক্ষণার্থী হিসেবে অংশ নিয়েছেন দেশের শীর্ষস্থানীয় ৩০টির বেশি সংবাদমাধ্যমে কর্মরত দুদক বিটের প্রতিবেদক।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন