প্রত্যাবাসনের জন্য রোহিঙ্গা শরণার্থীদের থেকে কোন আবেদন পায়নি মিয়ানমার

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৬ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৮:০৩
বাংলাদেশের শরণার্থী শিবিরে অবস্থানরত কোন শরণার্থী রাখাইনে প্রত্যাবাসনের জন্য আবেদন করেনি বলে দাবি করেছে মিয়ানমার। দেশটি বলেছে, রাখাইনে প্রত্যাবাসনের জন্য মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গা শরণার্থীদের কোন আনুষ্ঠানিক আবেদন পায় নি। সম্প্রতি দেয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন মিয়ানমারের প্রভাবশালী মন্ত্রী ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা উ থং তুন। এ খবর দিয়েছে মিয়ানমার টাইমস। খবরে বলা হয়, গত সপ্তাহে টোকিওতে এনএনএ’র মুখোমুখি হন উ থং তুন। এসময় তিনি বলেন, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রত্যাবাসনের জন্য ঢাকায় ‘প্রত্যাবাসনের আবেদন পত্র’ পাঠিয়েছিল নেপিডো। যাতে শরণার্থীর নাম, মিয়ানমারে বসবাসের ঠিকানা, ছবিসহ পরিচয়পত্র ও স্বাক্ষর প্রদান করতে বলা হয়েছে। কিন্তু কোন শরণার্থীই নির্ধারিত ওই ফর্মে আবেদন করেনি বলে দাবি করেন মন্ত্রী উ থং তুন।
এছাড়া, কেউ কেউ রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্বদেশে ফিরে যেতে বাধা দিচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন উ থং তুন। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু বলেননি তিনি।
উল্লেখ্য, গত বছরের নভেম্বরে মিয়ানমার রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সম্মত হয়। তবে পূর্বে মিয়ানমারে বসবাস করার বিষয়টি যারা প্রমাণ করতে পারবে, প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া শেষে শুধু তাদেরকেই ফিরিয়ে নেয়া হবে। এজন্য তাদের নাগরিক হওয়ার দরকার নেই।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে ইসির অনাপত্তি, মুহিতকে নিষেধ

নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের স্ট্যাটাস কী হবে জানতে চান কূটনীতিকরা

বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টের উদ্বেগ

কারাগারে থেকে ভোটের প্রস্তুতি

শহিদুল আলমের জামিন

ধানের শীষে লড়বে ঐক্যফ্রন্ট

নিপুণ রায় চৌধুরী গ্রেপ্তার

আতঙ্ক উপেক্ষা করে পল্টনে ভিড়

বিশ্ব ইজতেমা স্থগিত

কুলাউড়ায় সুলতান মনসুরের বিপরীতে কে?

ঢাকার প্রচেষ্টা ব্যর্থ

নির্বাচন পেছাবে না ইসির সিদ্ধান্ত

ঝিনাইদহে ৩৭৪ মামলায় আসামি ৪১ হাজার

বিএনপি আবার আগুন সন্ত্রাস শুরু করেছে

বড় জয়ে সিরিজে সমতা

উত্তেজনায় ফুটছে বৃটিশ রাজনীতি, চার মন্ত্রীর পদত্যাগ