মাধবদীতে জঙ্গী আস্তানায় "অপারেশন গর্ডিয়ান নট", নিহত ২

অনলাইন

মাধবদী (নরসিংদী) প্রতিনিধি | ১৬ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার, ১০:১২ | সর্বশেষ আপডেট: ৫:১৯
নরসিংদীর মাধবদী ও শেখের চরে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়ি দুটির মধ্যে একটিতে অভিযান চালাচ্ছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। এ অভিযানে নব্য জিএমবির দুই সদস্যের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতদের মধ্যে একজন নারীও রয়েছে।

সকাল থেকে দফায় দফায় উভয় পক্ষের মাঝে গুলি বিনিময় হলেও এখন পর্যন্ত কেউ হতাহত হয়নি। এমনকি কোন জঙ্গীকে আটক পর্যন্ত করা যায়নি। সব মিলিয়ে জঙ্গীরা আস্তানাটিতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চেয়ে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী। তিনি বলেন, সব মিলিয়ে এ অপারেশনটি একটি জটিল অপারেশন। তাই এ অপারেশনের নাম দেয়া হয়েছে "অপারেশন গর্ডিয়ান নট" বা জটিল গিঁট।

আজ মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে পুলিশের আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী সাংবাদিকদের সঙ্গে চলমান অভিযান সম্পর্কে ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, জঙ্গিদের প্রথমে আত্মসমর্পণের আহ্বান জানানো হয়।
কিন্তু জঙ্গিরা সে আহ্বানে সাড়া না দেয়ায় প্রথমে কাঁদানো গ্যাস নিক্ষেপ ও প্রটোকল অনুযায়ী পর্যায়ক্রমে বাকী কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। এসময় জঙ্গিরা ঘরের ভেতর থেকে গুলি করলে সোয়াত টিমও পাল্টা গুলি করে।  তবে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। আইজিপি আরও বলেন, শেখের চরে অভিযান শেষে মাধবদীতে অভিযান চালানো হবে। এসময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন ও কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলামসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাববৃন্দ। এছাড়াও এসময় নরসিংদীর জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন ও নরসিংদীর পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন উপস্থিত ছিলেন। সোমবার বিকেলে জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পাওয়ার পর মধ্যরাত থেকে পুলিশ সদর দফতরের এলআইসি শাখা, ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম ইউনিট ও বগুড়া জেলা পুলিশের সমন্বিত দল বাড়ি দুটি ঘেরাও করে রাখে। ওই সময় পর্যন্ত পুলিশের ধারণা, বাড়ি দুটিতে ৫ থেকে ৬ জন জঙ্গির অবস্থান থাকতে পারে। এবং তাদের কাছে প্রচুর পরিমানে অস্ত্রশস্ত্র থাকতে পারে । আস্তানা দুটি জেএমবি বা নব্য জেএমবির হতে পারে বলে পুলিশের ধারণা।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

কর্তৃত্ববাদী শাসনের অনিশ্চিত গন্তব্যে বাংলাদেশ: মাহবুব তালুকদার

রেকর্ড গড়া আমলার বিদায়ে কোণঠাসা দক্ষিণ আফ্রিকা

ফুলপুরের নিখোঁজ সেই ৩ যমজ বোন উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৬

ঝিনাইদহে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগ

দেশে ফিরছেন ভানুয়াতুতে পাচার হওয়া বাংলাদেশীরা

ছাত্রলীগের কমিটিই তো ফেসবুকে হয়, বললেন অব্যাহতি চাওয়া নেতা

লোকসভার নতুন স্পিকার ওম বিড়লা

‘পরকীয়ার কারণে খুন হন মুয়াজ্জিন সোহেল’

ভাণ্ডারিয়ায় মাদ্রাসা ছাত্র হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন

আজও বুয়েট শিক্ষার্থীরা রাজপথে

মুরসিকে হত্যার অভিযোগ, নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি জাতিসংঘের

‘মাদক ব্যবসায় না জড়ানোয় জান্নাতিকে পুড়িয়ে হত্যা’

বেনাপোলে বাসচাপায় ব্যবসায়ী নিহত

ঢাবি ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে ধর্ষণ, ভিডিও ধারণ, অত:পর.....

টীকার ওপর সবচেয়ে বেশি আস্থা বাংলাদেশ ও রোয়ান্ডার

শাহবাজপুরের ক্ষতিগ্রস্থ সেতুর সংস্কার শুরু হয়নি