‘এটি সত্যি নয়’

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:১৮
এই সময়ের টিভি নাটকের অনেক অভিনেত্রী বড় পর্দায় কাজ করার জন্য দৌড় ঝাঁপ করছেন। বড় পর্দায় এসে তাদের কেউ সফল হয়েছেন। আবার কেউ ব্যর্থ হয়ে ছোট পর্দায় ফিরে যাচ্ছেন। এদের অনেকেই আবার হতাশায় শোবিজও ছেড়ে দিয়েছেন। বর্তমান সময়ের গ্ল্যামারাস অভিনেত্রী মৌসুমী হামিদ। লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার রানার্সআপ হিসেবে ২০১০ সালে শোবিজে পথচলা শুরু করেন তিনি। তারপর থেকে মেধা আর যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে ছোট পর্দায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী হিসেবে। ছোট পর্দা থেকে বড় পর্দায়ও আসেন এই অভিনেত্রী। ‘জালালের গল্প’, ‘ব্ল্যাক মানি’ ও ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী-২’সহ কয়েকটি ছবিতে তিনি অভিনয় করেন। ছবিগুলো বাণিজ্যিকভাবেও সফল ছিল। কিন্তু এই চলচ্চিত্রগুলো দিয়ে তিনি বড় পর্দায় নিজের আসন পাকাপোক্ত করতে পারেনি বলেই অনেকে মন্তব্য করেন। তবে এই অভিনেত্রী সম্প্রতি ‘কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র’ শিরোনামের একটি চলচ্চিত্রে বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এছাড়া সম্প্রতি গাজী রাকায়েতের ‘গোর’ শিরোনামের আরো একটি চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। এই মুহূর্তে চলচ্চিত্র নিয়ে তিনি কী ভাবছেন? কোন পথে হাঁটছেন তিনি? এমন নানা প্রশ্ন শোনা যায় তার কাছের মানুষদের কাছে। অনেকে বলেন বড় পর্দায় ব্যর্থ হয়ে তিনি ছোট পর্দায় ফিরে গেছেন। তবে এ প্রসঙ্গে মৌসুমী হামিদ জানালেন ভিন্ন কথা। তার ভাষ্য, আমি চলচ্চিত্রে জায়গা করতে পারিনি, এটি সত্যি নয়। আমার কাছে প্রায়শই চলচ্চিত্রের প্রস্তাব আসে। আমি যে ধরনের চলচ্চিত্রে কাজ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি তেমন গল্প পাচ্ছি না। ‘কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র’ ছবির চরিত্রটি ভালো লেগেছে বলেই কাজ করছি। এমন বৈচিত্র্যময় কোনো চরিত্র পেলে চলচ্চিত্রে কাজ করতে আমার কোনো আপত্তি নেই। এছাড়া এই সময়ে আমাদের চলচ্চিত্র নির্মাণের সংখ্যাও কমে গেছে। সেটিও আমাদের মনে রাখতে হবে। মৌসুমী হামিদ এখন ছোট পর্দার কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পূজা উপলক্ষে তিনি ‘পুতুল কথা’ শিরোনামের একটি টেলিছবিতে অভিনয় করেছেন। তার বিপরীতে এটিতে দেখা যাবে তৌসিফ মাহবুববকে। এটি নির্মাণ করেছেন রাকেশ বসু। এটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ধ্রুব টিভির ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ হবে। এছাড়া তার হাতে রয়েছে কয়েকটি ধারাবাহিক। উল্লেখযোগ্য ধারাবাহিকগুলো ইমরাউল রাফাতের ‘সিনেম্যাটিক’, রহমতুল্লাহ তুহিনের ‘যখন কখনো’, নজরুল ইসলাম রাজুর ‘ঘরে-বাইরে’ ও সুমন আনোয়ারের ‘সুখী মীরগঞ্জ’ এবং ‘ইডিয়েট’।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রূপপুরে বালিশসহ আসবাব কেনার তদন্ত প্রতিবেদন চেয়েছেন হাইকোর্ট

কৌশল নির্ধারণে কলকাতায় আসছেন চন্দ্রবাবু, বৈঠক করবেন মমতার সঙ্গে

মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন রুমিন ফারহানা

মির্জা ফখরুলের সংসদে যোগদান আবশ্যক ছিল: কাদের

মুসলিমদের ওপর সহিংসতা, স্থগিত শ্রীলংকা-পাকিস্তান বাণিজ্য

গ্লোবাল মিডিয়া এওয়ার্ড জিতলেন হেলসিঙ্গিন সানোমা

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রাজধানীতে যুবদলের মিছিল

ধানের ন্যায্য মূল্যের দাবিতে কৃষকদের মানববন্ধন

নায্যমূল্যে কৃষকদের কাছ থেকে ধান কিনতে ডিসিকে মাশরাফির নির্দেশ

তাজিক কারাগারে আইএস বন্দিদের দাঙ্গা, নিহত ৩২

ঈদযাত্রা নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করতে যাত্রী কল্যাণ সমিতির ২০ প্রস্তাব

সম্মান হারিয়েছে নির্বাচন কমিশন: রাহুল গান্ধী

পাকিস্তানে চীনাদের বিয়ের ফাঁদ, অতঃপর...

আশ্বাসে স্থগিত ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতদের আন্দোলন

ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞার পর হুয়াওয়ের অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহার সীমিত করল গুগল

রাঙ্গামাটিতে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা