ঢাবি’র ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা

ফের প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ

শিক্ষাঙ্গন

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার | ১২ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের অধীনে ১ম বর্ষ ¯œাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ভর্তি পরীক্ষায় আবারও প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ ওঠেছে। এ নিয়ে টানা তিনবার ইউনিটটিতে প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ ওঠে। যদিও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ প্রত্যাক্ষাণ করেছে।
এর আগে গতকাল সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত চলে এ ভর্তিযুদ্ধ। পরীক্ষা শুরুর এক ঘন্টা আগ থেকে হোয়াটস অ্যাপ, ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে হাতে লেখা প্রশ্ন সরবারহ করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে হাতে লেখা এসব প্রশ্নের নমুনা বিশ^বিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসে এক সহকারী প্রক্টরের হাতে জমাও দিয়েছে কয়েকজন সাংবাদিক। যেগুলো পরীক্ষায় আসা প্রশ্নের সঙ্গে হুবহু মিলে যায়।
বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, ফাঁস হওয়া হাতে লেখা প্রশ্নের বাংলায় ১৯টি, ইংরেজিতে ১৭টি, সাধারণ জ্ঞান ৩৬টিসহ (বাংলাদেশ ১৬, আন্তর্জাতিক ২০) মোট ৭২টি প্রশ্ন ‘ঘ’ ইউনিটের অনুষ্ঠিত প্রশ্নপত্রের সঙ্গে হুবহু মিলে যায়।
ভর্তি পরীক্ষা শেষে জানতে চাইলে সহকারী প্রক্টর সোহেল রানা বলেন, ‘পরীক্ষার আগে প্রশ্নগুলো বের হলে সেটি ফাঁস হওয়া বলা যেতে পারে। কিন্তু পরীক্ষা চলাকালে বের হলে সেটাকে প্রশ্ন ফাঁস বলা যাবে না। আমার মনে হয় কেউ পরীক্ষার হল থেকে ছবি তুলে এসব প্রশ্ন বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছে। এ চক্রকে আমরা ধরার চেষ্টা করছি। আর ‘ঘ’ ইউনিটে ক্যাম্পাসের বাইরে কেন্দ্র বেশি হওয়ার কারণে এটি নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না।’
অপরদিকে ভর্তি পরীক্ষা শেষে বিশ^বিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, ‘ভর্তি কর্তৃপক্ষের কাছে পরীক্ষা চলাকালে কেউ প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ করেনি। তবে আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখব।’
এছাড়াও ভর্তি পরীক্ষা শেষে বিশ^বিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে দাবি করা হয়।
এ বছর ঘ-ইউনিটে ১ হাজার ৬১৫টি (বিজ্ঞানে- ১ হাজার ১৫২টি, বিজনেস স্টাডিজে- ৪১০, মানবিকে- ৫৩টি) আসনের বিপরীতে ৯৫ হাজার ৩৪১জন ভর্তিচ্ছু ছাত্র-ছাত্রী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাইরের ৮১টি কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত

ঈদে সড়কেই প্রাণ গেল ২২৪ জনের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আদৌ শুরু হচ্ছে কি?

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৮

এখনো উচ্চ ঝুঁকি ২৪ ঘণ্টায় ১৭০৬ রোগী ভর্তি

পার্বত্য চট্টগ্রাম ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ

ডেঙ্গুর প্রজননস্থলে কতটা যেতে পারছেন মশক নিধন কর্মীরা?

বৈঠকের পর চামড়া বিক্রিতে সম্মত আড়তদাররা

জনগণকে সতর্ক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার পরামর্শ

ছিনতাইকারীর হাতে খুন হন কলেজছাত্র রাব্বী

শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের পর হত্যা

শহিদুল আলমের মামলা স্থগিতই থাকবে

ডেঙ্গুর ভয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ তবুও...

রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে ঢামেকে সংঘর্ষ, আহত ২৫

টার্গেট রাজনৈতিক সম্পর্ক দৃঢ়করণ

ইউজিসি প্রফেসর হলেন ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ