রায় রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত: ৫০১ চিকিৎসক

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১২ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার
২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় দেয়া রায়কে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত আখ্যায়িত করে একটি যৌথ বিবৃতি দিয়েছেন ৫০১ জন বিশিষ্ট চিকিৎসক। বিবৃতিতে চিকিৎসকরা বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ও বিএনপির রাজনীতি নস্যাৎ করার হীন উদ্দেশ্যে ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় যে রায় দেয়া হয়েছে তা দেশের জনগণ ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে। জিয়া পরিবার তথা জাতীয়তাবাদী শক্তিকে ধ্বংস ও রাজনীতি এবং নির্বাচন থেকে দূরে রাখার জন্য সরকার একের পর একটা ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তারই অংশ হিসেবে সরকার মিথ্যা, বানোয়াট, গায়েবি মামলায় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারা অন্তরীণ করে রেখেছে। বিবৃতিতে বলা হয়, তারেক রহমানের অন্য একটি মামলায় বেকসুর খালাশ দেয়ায় বিচারককে দেশছাড়া করতে বাধ্য করেছে। অতি সম্প্রতি প্রধান বিচারপতি সরকারের পছন্দমতো রায় না দেয়ায় তাকেও দেশ ছাড়তে বাধ্য করেছেন। তারা বলেন, রায় ঘোষণার প্রায় ২ মাস আগে ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করেছিলেন মামলার রায় দেয়া হলে বিএনপি গভীর সংকটে পড়বে। তারই কথা এবং আজকের এই রায়ই প্রমাণ করে বিচার বিভাগ কতটুকু স্বাধীনভাবে কাজ করছে।
সরকার নির্দেশিত এই রায়ে বিএনপি কোনো সংকটে পড়েনি। বরং বিচারবিভাগের উপর সরকারের নগ্ন হস্তক্ষেপ দেশবাসীর কাছে প্রতীয়মান। আমরা এই সাজানো রায়ের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি ও ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি। বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন-বিএমএ’র সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ডা. এ কে এম আজিজুল হক স্বাক্ষরিত এ বিবৃতিতে স্বাক্ষরদাতারা হলেন- অধ্যাপক ডা. এ কে এম আজিজুল হক, অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার, অধ্যাপক ডা. রফিকুল কবির লাবু, ডা. মো. আব্দুস সালাম, ডা. হারুন-অর-রশীদ, ডা. মো. শহীদ হাসান, ডা. মো. শহীদুল আলম, অধ্যাপক ডা. এএমএসএম সারফুজ্জামান রুবেল,     অধ্যাপক ডা. মোস্তাক আহমেদ, ডা. এম এ সেলিম, ডা. জহিরুল ইসলাম শাকিল, ডা. মহিউদ্দিন ভুইয়া মাসুম, অধ্যাপক ডা. সাইফুল ইসলাম, অধ্যাপক ডা. মিনহাজ রহিম চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. মো. সিরাজুল ইসলাম, ডা. নাসির উদ্দিন আহমদে পনির, অধ্যাপক ডা. মো. ফজলুল হক, অধ্যাপক ডা. মো. সেলিম শাকুর, অধ্যাপক ডা. মলিহা রশিদ, অধ্যাপক ডা. জিন্নাত আরা, অধ্যাপক ডা. নিশাত বেগম, অধ্যাপক ডা. শাহীদুর রহমান, অধ্যাপক ডা. গাজী আব্দুল হক, অধ্যাপক ডা. আব্দুল মান্নান মিয়া, অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মাহবুবুর রহমান, অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মো. আকরাম হোসেন, অধ্যাপক ডা. মাহযহারুল ইসলাম দোলন, ডা. সামিউল হাসান বাবু, ডা. গোলাম সারোয়ার বিদ্যুৎ, ডা. জিয়াউল করিম জিয়া, ডা. এটিএম ফরিদউদ্দিন, ডা. মুশাররত শাহরিন, ডা. রিদওয়ানা আফরিন, ডা. মিজানুর রহমান, ডা. নিলুফার বেগম, ডা. জাকিয়া সুলতানা, ডা. এ বি এম আসাদুজ্জামান, ডা. তৌহিদুর রহমান ববি, ডা. মো. ওবায়দুল কবির খান, ডা. শহীদুল ইসলাম, ডা. হাসান জাফর রিফাত, ডা. মাহমুদ মাসুদ আক্তার চন্দন, ডা. মজিবুল হক দোয়েল, ডা. খবিরউদ্দিন আহমেদ, ডা. সৈয়দ মাহতাব-উল-ইসলাম, ডা. শেখ ফরহাদ, ডা. মাহবুবুর রহমান লাবু, ডা. মেহেদী হাসান, ডা. মো. আবুল কেনান ও ডা. আবু মোহাম্মদ আহসান ফিরোজসহ ৫০১ জন চিকিৎসকের নাম রয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নিজ আসন থেকেই প্রচার শুরু করছেন শেখ হাসিনা

নির্বাচন পর্যবেক্ষণে আগ্রহী ৩৪,৬৭১ স্থানীয় পর্যবেক্ষক

উচ্চ আদালতে হাজারো জামিনপ্রার্থী, দুর্ভোগ

পরিস্থিতির উন্নতি না হলে নির্বাচন নিয়ে প্রশ্ন উঠবে

হাইকোর্টেও বিভক্ত আদেশ

সব দলকে অবাধ প্রচারের সুযোগ দিতে হবে

পাঁচ রাজ্যে বিজেপির ভরাডুবি

নোয়াখালী ও ফরিদপুরে নিহত ২

ভুলের খেসারত দিলো বাংলাদেশ

চার দলের প্রধান লড়ছেন যে আসনে

কোনো সংঘাতের ঘটনা ঘটেনি

সিলেটে মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনী প্রচারণা শুরু আজ

দেশজুড়ে ধরপাকড়

টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের চার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব তিন জনের হাতে

আবারো বন্ধ হলো ৫৪টি নিউজ পোর্টাল

নারী প্রার্থীদের অঙ্গীকার