যৌন হেনস্থা করার অভিযোগে ইস্তফা দিচ্ছেন, এম জে আকবর?

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১১ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
'#মিটু' আন্দোলন দাবানলের মত ভারতে ছড়িয়ে পড়েছে। যৌন হেনস্থার শিকার হওয়ার অভিযোগ তুলে নারীরা এগিয়ে আসছেন। তবে এবার তা রাজনীতির অঙ্গনের ঢুকে পড়েছে।
সম্প্রতি ৬ জন মহিলা সাবেক সাংবাদিক ও সম্পাদক এম জে আকবরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগে সরব হয়েছেন। আকবর ২০১৪ সালে নির্বাচনের আগে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। পরে রাজ্যসভার সদস্য মনোনীত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি মোদী মন্ত্রিসভার পররাষ্ট্র মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী।

নয়াদিল্লি সুত্রের খবর আকবরকে নিয়ে অস্বস্তি তৈরি হয়েছে বিজেপিতে। ফলে তাকে ইস্তফা দিতে বলা হতে পারে।
বর্তমানে নাইজেরিয়া সফরে রয়েছেন আকবর। তাঁকে সফর কাটছাঁট করে ফিরে আসতে বলা হয়েছে বলেও কোনও কোন মহল থেকে বলা হচ্ছে।  

সংবাদসংস্থা এএনআইয়ের দাবি, এম জে আকবরকে নিয়ে বড় ঘোষণাও হতে পারে। আকবরের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রকাশ্যে আসতেই তার পদত্যাগের দাবিতে বিরোধীরা সরব হয়েছে। বিজেপির শরিক শিবসেনাও তদন্ত দাবি করেছে।
বৃহষ্পতিবার শিবসেনার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সরকার যদি স্বচ্ছ্বতায় বিশ্বাস করে তবে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা উচিত।

'#মিটু' আন্দোলনকে সমর্থন করে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী বলেছেন, প্রকাশ্যে যে তথ্য উঠে আসছে তা খুবই মারাত্মক। সিপিআইএমও আকবরের ইস্তফা দাবি করে বলেছে, আকবরের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে তাতে তার মন্ত্রিত্ব থেকে  ইস্তফা দেওযা উচিত।

গত মঙ্গলবার সাংবাদিক প্রিয়া রামানি ও প্রেমা সিং বৃন্দা অভিযোগ করেছেন, আকবরের অধীনে কাজ করার সময় তারা যৌন হেনন্থার শিকার হয়েছেন। এর পরই আরও কয়েকজন নারী সাংবাদিক আকবরের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ করেছেন।

রামানি প্রথম বলেন, একজন সম্পাদক তাকে মধ্যরাতে কাজ নিয়ে কথা বলার জন্য  হোটেলে ডেকে পাঠিয়েছিলেন। তিনি প্রত্যাখ্যান করায় আমাকে নানাভাবে হয়রাণির শিকার হতে হয়েছে। কিন্তু নানা বাধ্যবাধকতার জন্য তখন মুখ খুলতে পারিনি।

পরের দিনই রামানি টুইট করে জানান, সেই সম্পাদক হলেন এম জে আকবর। আকবর দীর্ঘ সময় কলকাতা থেকে প্রকাশিত ট্রেলিগ্রাফ পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন।  আরেক নারী সাংবাদিক অভিযোগ করেছেন, তাকে একবার আকবর আদর করার চেষ্টা করেছেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নিরাপত্তার অভাবে এলাকা ছাড়লেন রেজা কিবরিয়া

হামলার বিচার চেয়ে লতিফ সিদ্দিকীর অবস্থান

নির্বাচনের আগে চারটি জনসভা করবেন শেখ হাসিনা

ভারতীয় নেতারা বিজয় দিবসে মুক্তিযোদ্ধাদের স্বীকৃতি দেননি

নির্বাচন না হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে

অভিযোগের প্রতিকার নেই ইসিতে

নির্বাচনে বলপ্রয়োগ গ্রহণযোগ্য হবে না

পরিস্থিতি নো ইলেকশনের দিকেই যাচ্ছে

হাসিনা না খালেদা ভারতের উভয় সংকট

ঐক্যফ্রন্টের শোভাযাত্রায় জনতার ঢল

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহার আজ

নির্বাচনকে সামনে রেখে ভারত থেকে আসছে অস্ত্র

ভারতীয় নেতারা বিজয় দিবসে মুক্তিযোদ্ধাদের স্বীকৃতি দেন নি

বিজয় দিবসে দেশ গড়ার দৃপ্ত শপথ

সাতক্ষীরায় ধানের শীষ প্রার্থী নজরুল গ্রেপ্তার

'ধানের শীষে ভোট মানেই ৩০ লাখ শহীদের হত্যাকারীদের পক্ষে ভোট'