‘চিকিৎসা করারও টাকা নাই’

বাংলারজমিন

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি | ১২ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার
৩০ বছর যাবৎ কাকডাকা ভোরে সংবাদপত্র হাতে নিয়ে ছুটে বেড়ানোই তার পেশা, রোদ বৃষ্টি ঝড় উপেক্ষা করে ছুটে চলা মানুষটি আজ অসুস্থ। নীলফামারীর সৈয়দপুরের পত্রিকা বিক্রেতা আবদুল গাফফারের বয়স এখন ৬০ বছর। ভাড়া-বাড়িতে থাকেন মুন্সিপাড়ায়। স্ত্রী, দু’কন্যা আর ১ ছেলেকে নিয়ে তার বসবাস। বয়স এবং অসুস্থতা তাকে গ্রাস করেছে আষ্টেপৃষ্ঠে। গত ফেব্রুয়ারি মাসে ব্রেইন স্ট্রোক করে ভর্তি হন পার্বতীপুর ল্যাম্ব হাসপাতালে। সেখানে কিছুটা সুস্থ হলেও অবশ হয়ে গেছে বাম হাত। চিকিৎসা ব্যয় বহন করতে না পেরে অসুস্থ শরীর নিয়ে চলে আসতে হয়েছে হাসপাতাল থেকে।
একমাত্র ছেলেটি খুব সামান্য আয় করে। সেই আয় থেকেই বাবার চিকিৎসা করিয়েছেন। এখন তার পক্ষে আর সম্ভব হচ্ছে না। নিজের শারীরিক অবস্থা ক্রমেই খারাপ হয়ে যাচ্ছে তার উপরন্তু দুটি অবিবাহিত মেয়েকে নিয়ে দিশাহারা হয়ে পড়েছে অসহায় মানুষটি। ডাক্তার বলেছে, দূত উন্নত চিকিৎসা করাতে না পারলে ব্রেইন পুরোপুরি ড্যামেজ হয়ে যেতে পারে।  পত্রিকা বিক্রেতা আবদুল গাফফার জানান, আমি ৩০ বছর যাবৎ সংবাদপত্র বিক্রি করে আসছি। আমি অন্য কোনো কাজ করতে পারি না। আমার বয়স হয়েছে এখন আর শরীরে শক্তি পাই না। পত্রিকা নিয়ে আর ছুটতে পারি না। চিকিৎসা করারও টাকা নেই। সমাজের বিত্তবানদের কাছে আহ্বান আমাকে চিকিৎসা করার জন্য আর্থিক সাহায্য করেন। আমি সুস্থ হয়ে আবার পত্রিকা বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করতে চাই।
বিকাশ: ০১৯৯২১৪৮৪৯৮।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘ভারত-পাকিস্তানের বর্তমান অবস্থা অত্যন্ত ভয়াবহ’

চট্টগ্রামে কাভার্ডভ্যান চাপায় প্রাণ গেল বাবা ও ছেলের

কাশ্মিরীদের সুরক্ষা দিতে ভারত সরকারের প্রতি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ

২০০ টাকায় ২২ কেজি পেঁয়াজ, গ্রামে গ্রামে মাইকিং

চকবাজার ট্র্যাজেডিতে জাতিসংঘ মহাসচিবের শোক বার্তা

কালিহাতীতে সড়ক দুর্ঘটনায় সুজনের চাপাইনবাবগঞ্জ সভাপতিসহ নিহত ২

আইএসের শামিমার ছেলেকে লন্ডনে নিতে চান পরিবারের সদস্যরা

অন্তরঙ্গ ভিডিও ফাঁস

তেরেসা মেকে ৩ মাসের মেয়াদ বেঁধে দিলেন মন্ত্রীরা

তিন মিনিট দেরি করায় তোপের মুখে জাপানের মন্ত্রী

‘দর্শক ছবিটি দেখতে আসছেন এবং কাঁদছেন’

লাশটাও যদি পাওয়া যায়

ভোট হয়েছে রাতেই, নেতাদের প্রতিও ক্ষোভ

নাটেশ্বরের ঘরে ঘরে কান্না

গাড়িতে গাড়িতে ‘গ্যাস বোমা’

রাসায়নিকের গোডাউন ওয়াহেদ ম্যানশন