নেইমার-এমবাপ্পে ‘জোটে’ কোণঠাসা কাভানি

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১১ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
মৌসুম সবে শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই’র (পিএসজি) আক্রমণভাগ থেকে এসেছে ২৭ গোল। এই চিত্রই বলে দিচ্ছে কতটা ভয়ঙ্কর নেইমার, কিলিয়ান এমবাপ্পে ও এডিনসন কাভানিতে গড়া ফরাসি জায়ান্টদের এই আক্রমণভাগ। কিন্তু দুর্র্ধষ এই এই ‘ত্রয়ী’ ভাঙ্গনের আভাস দেখা দিচ্ছে। ফরাসি গণমাধ্যম জানিয়েছে, নেইমার-এমবাপ্পের নতুন রসায়নে ধীরে ধীরে একঘরে হয়ে পড়ছেন কাভানি। সম্প্রতি এই ‘ত্রয়ী’র খেলা দেখলেই স্পষ্ট বোঝা যায় উরুগুইয়ান এই ফরোয়ার্ডকে যেন অবহেলাই করছে বিশ্বের সবচেয়ে দামী দুই ফুটবলার। নেইমার মাঠে যত পাস দেন, তার ২৫ ভাগই দিচ্ছেন এমবাপ্পেকে। বিপরীতে নেইমারের কাছ থেকে মাত্র ০.৫ ভাগ পাস যায় কাভানির কাছে।
অন্যদিকে এমবাপ্পেও ৩১ ভাগ পাসই দেন নেইমারকে উদ্দেশ্য করে। আর তার ৫ ভাগ পাস বরাদ্দ থাকে কাভানির জন্য। চলতি মৌসুমে ৭ ম্যাচে ১০ গোল এমবাপ্পের। আর ১১ ম্যাচে ১১ গোল নেইমারের। অবহেলা সত্ত্বেও ৭ ম্যাচে ৬ গোল করেছেন কাভানিও। গত মৌসুমে স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে যোগ দেন নেইমার। এমবাপ্পেও যোগ দেন তার কিছু পর। দলে এসেই পেনাল্টি নিয়ে মাঠে কাভানির সঙ্গে বিবাদে জড়ান নেইমার। সেই থেকে কাভানির সঙ্গে সম্পর্কটা মোটেও ভালো যাচ্ছে না ব্রাজিলিয়ান এই তারকার। অন্যদিকে মাঠের বাইরেও এমবাপ্পের সঙ্গে খাতির ভালোভাবেই জমেছে তা বোঝা যায় নেইমারের একটি মন্তব্যে। নেইমার বলেন, আমার ছেলে এমবাপ্পেকে পছন্দ করে। যখন আমি তার সঙ্গে থাকি সে সবসময় এমবাপ্পের কথা বলে। সে সবসময় স্কুলের বন্ধুদের দেখানোর জন্য এমবাপ্পের সঙ্গে আমার ছবি চায়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ছাত্রের সঙ্গে শিক্ষিকার যৌন সম্পর্ক

বিদায় সোনালী কাবিন-এর কবি

প্রথম ধাপের আখেরি মোনাজাতে কল্যাণের ফরিয়াদ

অ্যামাজনকে টেক্কা দিতে চান বাংলাদেশি ইমরান

জীবন ভিক্ষা চাইলেন আমান

গণশুনানির জন্য হল পাচ্ছে না ঐক্যফ্রন্ট

মঞ্জু মুখ খুললেন

যানজটে বিশ্বের শীর্ষ শহর ঢাকা

আইসিসির সিদ্ধান্তকে স্বাগত প্রধানমন্ত্রীর

মেহেদীর রং না মুছতেই ঘাতক বাস কেড়ে নিলো তাসনিমকে

‘হঠাৎ বস বাড়ি চলে যেতে বলেন’

ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনা তুঙ্গে, সীমান্ত থমথমে

প্রার্থীর চেয়ে পরিবেশ নিয়েই আলোচনা বেশি

সংরক্ষিত আসনে ৪৯ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত

রাজধানীতে শিশুকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত আটক

এক ধর্ষিতার বাঁচার লড়াই