তারেকের মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত ছিল: আইনমন্ত্রী

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার, ৩:১৭ | সর্বশেষ আপডেট: ৩:১৮
একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে বিএনপি নেতা তারেক রহমানের মৃত্যুদণ্ডই হওয়া উচিত ছিল বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। মামলার রায়ের পর সচিবালয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার মূলহোতা খালেদা জিয়ার বড় পুত্র তারেক রহমান। এই হামলায় জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী লীগকে বাংলাদেশ থেকে একেবারে শেষ করে দেয়ার যে যড়যন্ত্র হয়েছিল, তার নায়ক ছিলেন তিনি। এ অবস্থায় তারেক রহমানকে আজকের রায়ে যাবজ্জীবন দেয়া হয়েছে। কিন্তু আমাদের ধারণা, তার মৃত্যুদণ্ডই হওয়া উচিত ছিল। কেননা, এই হামলা কার্যকর করার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন যারা, তাদের মৃত্যু- দেয়া হয়েছে। মন্ত্রী বলেন, তাই রায়ের কাগজপত্র পাওয়ার পর আমরা চিন্তা করবো, তারেক রহমানকে এবং আরও দু’জন যাদের যাবজ্জীবন দেয়া হয়েছে, সেটার জন্য আমরা উচ্চ আদালতে গিয়ে ফাঁসির জন্য আপিল করবো কি-না।
মন্ত্রী বলেন, আজকে আমরা মনে করি বিচার পেয়েছে দেশবাসী। কোনো মামলায়ই বিচার করেনি বিএনপি।
তাদের আমলে, এমনকি জিয়াউর রহমান হত্যা মামলায়ও কিন্তু তারা বিচার করতে পারেনি। বিএনপি কোন দিনই আইনের শাসন মানে না। আজকে আমরা দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করার পদক্ষেপ নিয়েছি, এখন সকল মামলার বিচার হচ্ছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ঢাকা-১৫ আসনে আওয়ামী লীগ অফিস ভাঙচুরের ঘটনায় ধানের শীষ প্রার্থীর নিন্দা

১৪ বছর পর আবার স্বামীকে বিয়ে করলেন নাদিয়া হোসেন

ভোটের দিনে ইন্টারনেটের গতি সীমিত রাখার পরিকল্পনা ইসির

মেহেরপুরে বিএনপির নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর

হিরো আলম পর্যন্ত ইসিকে হাইকোর্ট দেখায় : ইসি সচিব

লিঙ্গগত ফারাক বিশ্বে সবচেয়ে কম আইসল্যান্ডে, দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষে বাংলাদেশ

গাংনীতে বিএনপি-জামায়াতের ১৯ নেতাকর্মী আটক

হাসপাতালে ভর্তি লতিফ সিদ্দিকী

৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি

সেনাবাহিনীর সঙ্গে যোগসাজশ: মিয়ানমারে শতাধিক একাউন্ট মুছে দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ

নির্বাচনী প্রচারণায় কুমিল্লার পথে ঐক্যফ্রন্ট

জনগণের আস্থার জায়গা যেন ব্যাহত না হয় : সিইসি

হঠাৎ প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন মনমোহন সিং!

এনআরসিতে নাম না ওঠায় আসামে ফের আত্মহত্যা

নির্বাচন নিয়ে জনমনে অজানা ভয় ফুটে উঠেছে

শ্রীলঙ্কার রাজনৈতিক সঙ্কট সহজেই কাটছে না