মামলার বেড়াজালে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের পাবলিক টয়লেট

এক্সক্লুসিভ

দীন ইসলাম | ১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৮:৪৯
ইজারা দেয়া নিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের পাবলিক টয়লেটগুলো মামলায় জর্জরিত। এজন্য দুর্গন্ধময় টয়লেটগুলো সংস্কার করতে পারছে না তারা। ফলে ইচ্ছা থাকলেও উত্তর সিটি করপোরেশনের মতো সুন্দর পাবলিক টয়লেট বানাতে পারছে না দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অধীনে টয়লেট রয়েছে ৪৭টি। সেগুলোর মধ্যে এ পর্যন্ত ১৭টি টয়লেটের নির্মাণ ও সংস্কার করা হয়েছে। এর মধ্যে ২০টি টয়লেটের বিপরীতে ১৭টি মামলা চলমান থাকায় ইচ্ছে থাকলেও কিছু করতে পারছে না সিটি করপোরেশন। গুরুত্বপূর্ণ বলে পরিচিত রাজধানীর নিউমার্কেট বনলতা কাঁচাবাজারের নিচতলা, দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলার পাবলিক টয়লেট, নিউমার্কেটের দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলার টয়লেট, ঢাকা নিউমার্কেট ডি ব্লকের টয়লেট, চন্দ্রিমা সুপার মার্কেটের নিচতলার টয়লেট, গুলিস্তান পুরাতন পাবলিক টয়লেট, সায়েদাবাদ পার্ক পাবলিক টয়লেট, বাবু বাজার পাবলিক টয়লেট, আজিমপুর, নবাবগঞ্জ, শহীদনগর, রায়েরবাজার এবং হাজারীবাগ পাবলিক টয়লেট, আরমানিটোলা পাবলিক টয়লেট, আগাসাদেক রোড পাবলিক টয়লেট, মালিটোলা মার্কেট পাবলিক টয়লেট, বাহাদুর শাহ পার্ক পাবলিক টয়লেট এবং মতিঝিল কলোনি মিডল সার্কুলার রোড পাবলিক টয়লেট নিয়ে মামলা রয়েছে। বিষয়টি সম্পর্কে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বিলাল মানবজমিনকে বলেন, পাবলিক টয়লেট নাগরিক জীবনে অতীব গুরুত্বপূর্ণ।
এসব টয়লেটের বিপরীতে থাকা মামলা নিষ্পত্তি করতে আমরা পদক্ষেপ নিয়েছি। সহসাই এ কাজটি দৃশ্যমান হবে বলে আশা করছি। রাজধানীর দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বেশ কয়েকটি পাবলিক টয়লেট ঘুরে দেখা গেছে, টয়লেটে ঢুকার আগে বেশ কয়েক গজ দূর থেকেই দুর্গন্ধ ভেসে আসে। ভেতরের কমোডগুলো বাদামি রঙ ধারণ করেছে। দেখেই বোঝা যাচ্ছে, এতে পরিচ্ছন্নতার ছোঁয়া পড়েনি অনেক দিন। দরজাগুলোও মেরামতের অভাবে আধভাঙা অবস্থায়। সবচেয়ে ভয়াবহ ব্যাপার হচ্ছে, মহিলা টয়লেটের ভেতর থেকে বেরিয়ে আসছে পুরুষরা। কখনো আবার চাপ সামলাতে না পেরে পুরুষ টয়লেটে ঢুকে পড়ছেন মহিলা। তবে পরিবেশ এবং পরিস্থিতি যা-ই হোক তা তদারকি করার জন্য কাউকে দেখা গেল না সেখানে। তবে সোহরাওয়ার্দী ?উদ্যানের পাবলিক টয়লেটের চিত্র পাল্টে যেতে দেখা গেছে। সেখানে দরজার সামনে বসে এক নারীকর্মী টিকিট দিচ্ছেন। সবাই লাইন ধরে টিকিট সংগ্রহ করে টয়লেটে যাচ্ছেন। ভেতরটা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন। পুরুষ, নারী ও প্রতিবন্ধীদের জন্য রয়েছে আলাদা ব্যবস্থা। টয়লেটের ভেতরে হাত ধোয়া, নিরাপদ খাবার পানি, সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য সোলার সিস্টেম ও গোসলের ব্যবস্থা রয়েছে। এমনকি ব্যবহারকারীদের মালামাল রাখার জন্য লকারের ব্যবস্থাও রয়েছে। আর নিরাপত্তার জন্য সামনে বসানো হয়েছে সিসি ক্যামেরা।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

যুবদল নেতাসহ ৯ নেতাকর্মী আটক

টেকনাফ ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত

বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানালেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী

নির্বাচন ঘনিয়ে আসায় বেড়েছে দমন-পীড়ন

‘আমার গানে তাদের উন্মাদনা দেখে অবাক হই’

প্রেস থেকে বিএনপি প্রার্থীর পোস্টার ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ

২০১৪ সালের আলোকে কৌশল প্রয়োজন

প্রতিটি ভোটই মূল্যবান

গুগল টপ সার্চলিস্টে বাংলাদেশিদের মধ্যে শীর্ষে খালেদা জিয়া

৩০ নির্বাচনী এলাকায় বাধা, হামলা, সংঘাত

তৃতীয় বেঞ্চের প্রতি খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের অনাস্থা

২৪শে ডিসেম্বর থেকে মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস আজ

রব-মান্নাকে বাধা

আওয়ামী লীগ ১৬৮-২২০ আসনে জয়ী হবে

ধরপাকড় অব্যাহত মিলন গ্রেপ্তার