পতিতা নিয়ে হোটেলে মেতে ওঠে তারা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৩৯
ইংল্যান্ডের সলসবারিতে রাশিয়ান গুপ্তচর সের্গেই স্ক্রিপল ও তার মেয়ে ইউলিয়ার ওপর স্নায়ু গ্যাস প্রয়োগ করার অভিযোগে লন্ডনের সন্ত্রাস বিরোধী পুলিশ অভিযুক্ত করেছে দুই রাশিয়ানকে। তারা হলো রুশলান বশিরভ ও আলেকজান্দার পেট্রোভ। তবে তারা ওই অভিযোগে যুক্ত নয় বলে দাবি করেছে। ওদিকে কিভাবে তারা সের্গেই স্ক্রিপল ও মেয়ে ইউলিয়ার ওপর স্নায়ু গ্যাস প্রয়োগ করেছিল, তার আগেপরে কি ঘটেছিল তা আস্তে আস্তে বেরিয়ে আসছে। অনলাইন দ্য সান এ নিয়ে একটি প্রতিবেদনে বলেছে, ওই দুই রাশিয়ান স্নায়ুগ্যাস প্রয়োগের আগে মাদক ব্যবহার করেছিল। তারা একটি হোটেলে পতিতা নিয়ে কয়েক ঘন্টা সময় কাটিয়েছে আনন্দে। তারা পূর্ব লন্ডনে দুই তারকা হোটেল সিটি স্টে’তে প্রতি রাতে ৭৫ পাউন্ড ভাড়ার টুইন রুম ভাড়া নিয়েছিল। ঘটনার আগে তারা ওই হোটেলে পার্টি দিয়েছিল, যাতে রাতে হোটেলের অতিথিরা ঘুমাতে না পারেন।
ওই হোটেলের অতিথিরা বলেছেন, তারা যে রুমে ছিল সেই রুম থেকে ক্যানাবিসের গন্ধ বেরিয়ে আসছিল। এক পর্যায়ে তারা একজন পতিতাকে ভাড়া করে নেয় রুমে। তারপর তাদের রুম থেকে অশ্লীল শব্দ বেরিয়ে আসতে থাকে। শোনা যায় গোঙানির শব্দ। এতে উপস্থিত অনেকেই বুঝে যান তারা ভিতরে ওই পতিতা নিয়ে যৌন সম্পর্কে মেতে উঠেছে। ঘটনার পরের দিন সকালে হোটেল স্টাফদের সঙ্গে তারা উত্তেজিত হয়ে কথাবার্তঅ বলে। তারপর সেখান থেকে সলসবারিতে যাওয়ার জন্য ট্রেনের উদ্দেশে যাত্রা করে। সলসবারিতে তিয়ে সের্গেই স্ক্রিপল ও তার মেয়ে ইউলিয়ার ওপর স্নায়ুগ্যাস প্রয়োগ করে। কিন্তু এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছে তারা। কিন্তু সিসিটিভি ফুটেজ দেখে কমপক্ষে একজন অতিথি পেট্রোলকে চিনতে পেরেছেন। মেট্রোপলিটন পুলিশ ওই সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ করেছে। ওই অতিথি বলেছেন, আমি কাজ থেকে রুমে ফিরেছি। আমি রাতের খাবার রান্না করতে যাচ্ছিলাম। সেটা ছিল শনিবার রাত। কিন্তু ওই দুই রাশিয়ানের রুম থেকে আমি অদ্ভুত গন্ধ পাই। করিডোরেও তা ছড়িয়ে পড়ে। সেটা হবে সন্ধ্যা ৭টা। এরপর তাদের রুমে একজন যুবতী আসেন। আমার মনে হয়, তিনি একজন পতিতা। নিশ্চয়ই তার সঙ্গে তারা যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছিল। কারণ, আমি অনেকক্ষণ ধরে তাদের রুম থেকে যৌন উত্তেজনা প্রকাশের তীব্র শব্দ পাচ্ছিলাম।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এমন নির্বাচন হওয়া উচিত যাতে বৈধতার সংকট থেকে শাসনব্যবস্থা মুক্ত হয়

সেপ্টেম্বরে খাসোগি হত্যার নীলনকশা তৈরি হয়

খালেদা জিয়ার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড চায় দুদক

মানহানির মামলায় মইনুল হোসেন কারাগারে

মইনুলকে গ্রেপ্তার জরুরি ছিল- কাদের

ঢাবি’র ‘ঘ’ ইউনিটের উত্তীর্ণদের নিয়ে আবার পরীক্ষা

সরকারের সাম্প্রতিক পদক্ষেপে ড. কামালের উদ্বেগ

সেলিম ওসমানকে অব্যাহতি

কোটা আন্দোলনের চার নেতাকে ছাত্রলীগের মারধর

জয়-পরাজয়ে অন্তরায় কোন্দল

পার্বত্য অঞ্চলের শান্তিতে হুমকি ৯৬৯-এর তৎপরতা

সিলেটে রাতে ধরপাকড়ের অভিযোগ

সিলেটে মাজার জিয়ারতে ঐক্যফ্রন্টের নেতারা ( ভিডিও)

এবার মোবাইল অ্যাপ দেবে অ্যাম্বুলেন্সের সন্ধান

মধ্যরাতে তরুণীর সঙ্গে পুলিশের অশোভন আচরণ ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ

সৌদিতে ‘যৌনদাসী’ হিসেবে বিক্রি হচ্ছে বাংলাদেশি নারীরা