মেদ ঝরাতে গাজর

শরীর ও মন

অনলাইন ডেস্ক | ২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:১৩
অতিরিক্ত মেদকে শরীরের জন্য অন্যতম শত্রু মনে করা হয়। তাই নিয়মিত শরীরচর্চা, কঠিন ডায়েট, জিম দৌঁডানো কিছুই প্রায় বাকি নেই। অনেকে আবার চটজলদি মেদ কমাতে ওষুধের শরণাপন্ন হয়ে থাকেন। অথচ আমাদের হাতের কাছেই এমন কিছু সব্জি আছে, যা দিয়ে খুব সহজেই ঝরিয়ে ফেলা যায় শরীরের মেদ। দরকার পড়ে না ডায়েটের। তার মধ্যে অন্যতম হলো গাজর।

গাজরের অসাধারণ পুষ্টিগুণ জানা যায় পুষ্টিবিদদের থেকে। তাদের মতে, ১০০ গ্রাম গাজরে শর্করা রয়েছে ১০.৬ গ্রাম মতো। তুলনায় ফ্যাটের পরিমাণ প্রায় নেই বললেই চলে, মাত্র ০.২ গ্রাম।
কাজেই নিত্য খাদ্যতালিকায় গাজর রাখলে মেদ ঝরবে।
 খাবার মেনুতে যেভাবে গাজর রাখা যেতে পারে-

  •     গাজরের স্যালাড: শশা, গাজর, টম্যাটো, পিঁয়াজ দিয়ে স্যালাড তো বানান, দ্রুত ওজন কমাতে সেই স্যালাডেই বাড়িয়ে দিন গাজরের পরিমাণ। অনেকটা গাজর কুঁচিয়ে লেবুর রস ও গোলমরিচ ছড়িয়ে নিয়মিত খান। তবে স্বাদ বাড়াতে স্যালাডে মাখন, মেয়োনিজ বা তেল মেশাবেন না।
  •    গাজরের স্যুপ: গাজর সিদ্ধ করে তা দিয়ে স্যুপ বানিয়ে ফেলুন। হালকা গোলমরিচ, অল্প মাখন যোগ করে এই স্যুপ দিয়ে পেট ভরান দুপুরে বা রাতে। পেট ভরাতে এর সঙ্গে অন্য সব্জিও যোগ করতে পারেন।
  •    গাজরের হালুয়া: সাধারণ উপায়ে যে ভাবে গাজরের সুজি বা হালুয়া বানান, সে ভাবে না বানিয়ে বরং মাখন, চিনি, বাদাম ছাড়া হালুয়া বানান। চিনি ছাড়া হালুয়া খেতে অসুবিধা হলে লঙ্কা ও নুন মেশানো ঝাল সুজির নিয়মেও বানিয়ে ফেলতে পারেন এই হালুয়া। তেলও দিন একেবারে নামমাত্র। 




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নির্বাচনের আগে সোস্যাল মিডিয়ার ওপর ‘ক্র্যাকডাউন’

মাঠ দখলে রাখতে টানা কর্মসূচিতে থাকবে আওয়ামী লীগ

ঐক্যফ্রন্টের গোড়াতেই গলদ

ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে সরকার বিচলিত

বি. চৌধুরী-মাহীকে অব্যাহতি দিয়ে বিকল্পধারার নতুন কমিটি

একটি কফিন ঘিরে ভালোবাসার মিছিল

সিলেট থেকেই ঐক্যযাত্রা, অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা

সমন্বিত অর্থনৈতিক অংশীদারিত্ব চুক্তির প্রস্তাব ভারতের

প্রার্থী নিয়ে চলছে যোগ-বিয়োগ

প্রতিমা বিসর্জনে শেষ হলো দুর্গোৎসব

কামাল হোসেনের সামর্থ্য জানা আছে

প্রধানমন্ত্রীর ওমরাহ পালন

মাওলানা হাবিবুর রহমানের ইন্তেকাল জানাজায় মানুষের ঢল

নতুন নম্বরে রাস্তায় নামছে পুরনো অটোরিকশা

উচ্চমূল্যে মালয়েশিয়াকে ফ্ল্যাট বানানোর কাজ, প্রতি বর্গফুটে খরচ লাগবে ৩৪৩৫ টাকা

‘মহেশখালীতে এবার শান্তি ফিরবে’