চারদিকে আওয়ামী লীগের পতনের শব্দ শোনা যাচ্ছে: রিজভী

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ আগস্ট ২০১৮, শনিবার, ১:৪২ | সর্বশেষ আপডেট: ৭:৫৪
ধমক দিয়ে প্রতিবাদী কণ্ঠকে স্তব্ধ করা যাবেনা বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ করে তিনি বলেছেন, যারা নাগরিক স্বাধীনতা কেড়ে নেয় তারা আগ্রাসী শক্তি,  যারা জনগনের দাবিকে রক্তাক্ত করে তারা দেশের শত্রু। যারা শিশু-কিশোরদের রক্ত নিঙড়ে নেয় ও প্রতারণা করে, তারা মনুষত্বহীন। তাদের দ্বারা দেশের সার্বভৌমত্ব দুর্বল হয়। তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ও নিরন্তর সংগ্রাম ন্যায় সঙ্গত। ধমক দিয়ে প্রতিবাদী কণ্ঠকে স্তব্ধ করতে পারবেন না। চারিদিকে আপনাদের পতনের শব্দ শোনা যাচ্ছে। আজ নয়াপল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে রিজভী এসব কথা বলেন।
বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, গত কয়েকদিন ধরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নানা রকম দুঃস্বপ্নে অস্থির ও শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। মানুষের বাকস্বাধীনতা, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, চলাফেরার স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনা গণতন্ত্রকে হরণ করে যে শুন্যতার সৃষ্টি করেছেন তাতে ধেয়ে আসা প্রতিবাদী মানুষের টর্নেডোতে ভয় পেয়ে ওবায়দুল কাদের সাহেবরা বেসামাল হয়ে পড়েছেন। তাই কখনও ভয়ের কথা বলছেন, কখনও ধমকের সুরে কথা বলছেন। রিজভী আহমেদ বলেন, শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে র্সবত্রই আজ সরকারের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে ধিক্কার তুলেছে। এ জন্যই সরকারের মানসিক যন্ত্রণা বেড়ে গেছে। খালেদা জিয়া যে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে প্রতিহিংসার শিকার তার প্রমাণ মিলছে কয়েকদিন পর-পর ক্ষমতাসীনদের উদ্ভট বক্তব্যে। দেশ নেত্রীকে বন্দী করার জন্যই প্রধানমন্ত্রী তাঁর বিরুদ্ধে অসত্য মামলায় সাজা দিয়েছে। এটা কোন আইনী প্রক্রিয়া নয়, দেশনেত্রীকে আটকে রেখে আনন্দ লাভ করা। সরকার নানা ফন্দী-ফিকিরের জাল বুনে সত্তোরোর্ধ্ব একজন জননন্দিত নেত্রীকে বন্দি করে এখন নানাভাবে তাঁর ওপর জুলুম চালাচ্ছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

আবুল হোসেন ভূইয়া

২০১৮-০৮-১৮ ০২:৩১:০১

আপনার প্রতিদিন টিভির ক্যামেরার সামনে কাগজের লেখা পরেন. এটাকে আমরা পদ্য না গদ্য বলব।

kazi

২০১৮-০৮-১৮ ০১:০৪:০২

বিএনপির উত্থানের শব্দ শোনা যাচ্ছেনা। কারণ সব একই চরিত্রের লোক ।

আপনার মতামত দিন

পালিয়ে বেড়াচ্ছেন সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মিলন

দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে নাগরিক ঐক্য

ভোট পর্যবেক্ষণের আবেদন ২১ নভেম্বরের মধ্যে

প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা রোববার থেকে শুরু

তলাফাটা নৌকা নিয়ে কতদূর যেতে পারেন দেখাতে চাই: কাদের সিদ্দিকী

‘লেভেল প্লেইংয়ের বিষয়টা এখন পুরোপুরি ইসির ওপর’

‘যতই ১০ নম্বরি করুক, নির্বাচন বয়কট করব না’

দুই বোনের এক প্রেমিক ও...

গণফোরামে রেজা কিবরিয়া, ঐক্যফ্রন্টের হয়ে লড়বেন হবিগঞ্জ-১ আসনে

‘জামাতা জড়িত, ১০ হাজার টাকায় চুক্তি হয় চালকের সঙ্গে’

২ খেমাররুজ নেতা দোষী সাব্যস্ত

ফেসবুক প্রধান মার্ক জাকারবার্গকে পদত্যাগের চাপ

ভারতে নারী অধিকারকর্মীদের নিয়ে তসলিমা নাসরিনের বিস্ময়

ত্রিপুরার সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের গাড়িবহরে হামলা, নিন্দা

‘ভোট লুট হোক, চায় না ভারত’

সিএমএইচে এরশাদ