লিবিয়ায় একসঙ্গে ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

দেশ বিদেশ

মানবজমিন ডেস্ক | ১৭ আগস্ট ২০১৮, শুক্রবার
লিবিয়ার একটি আদালত সহিংসতার দায়ে ৪৫ জনকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে। ২০১১ সালের উত্তাল সময়ে দেশটির রাজধানী ত্রিপোলিতে সংগঠিত এক গণহত্যার জন্য তাদেরকে এ শাস্তি দেয়া হয়। বুধবার দেশটির আইন মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে মৃত্যুদণ্ডের তথ্য জানানো হয়। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল-জাজিরা। খবরে বলা হয়েছে, লিবিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট মুয়াম্মার গাদ্দাফির ঘনিষ্ঠজন কর্তৃক সংগঠিত এক গণহত্যার সঙ্গে যুক্ত থাকার অপরাধে তাদেরকে এ শাস্তি দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি আরো ৫৪ জনকে ৫ বছরের জেল দেয়া হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ত্রিপোলিতে ২০ জনকে হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়েছে। এ রায়ে ২২ জন আসামিকে মুক্তি দেয়া হয়।
রায় দেয়ার সময় অভিযুক্তদের আইনজীবী ও স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু আসামিদের অনুপস্থিতিতেই রায় দেয়া হয়। উল্লেখ্য, মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল তার বার্ষিক প্রতিবেদনে লিবিয়ার বিচার ব্যবস্থাকে অকার্যকর বলে উল্লেখ করেছে। সংস্থাটি দাবি করেছে, ২০১১ সালে গাদ্দাফির পতনের পরে যথাযথ প্রমাণ ছাড়াই অনেককে গ্রেপ্তার ও সাজা দেয় দেশটির আদালত। এ সময় তাদেরকে আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানানোর সুযোগও দেয়া হয়নি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভোট হয়েছে রাতেই, নেতাদের প্রতিও ক্ষোভ

নাটেশ্বরের ঘরে ঘরে কান্না

গাড়িতে গাড়িতে ‘গ্যাস বোমা’

রাসায়নিকের গোডাউন ওয়াহেদ ম্যানশন

সরকারকে দায়ী করে বিএনপির মন্তব্য দায়িত্বজ্ঞানহীন: তথ্যমন্ত্রী

চ্যালেঞ্জ ছুড়ে সিলেটে মাঠে ৫ বিদ্রোহী আওয়ামী লীগে দ্বিধাবিভক্তি

সড়কে মৃত্যুর মিছিল যেন স্বাভাবিক

বাংলাদেশের জনগণ ভালো থাকলে কিছু মানুষ অসুস্থ হয়ে যায়

গা ঢাকা দিয়েছেন গোডাউন মালিকরা

চার জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৫

কোথায় হারালো দুই বোন

আজিমপুরে শোকের মাতম

কান্নায় ভারি হয়ে উঠেছে বাতাস

কন্যার স্মৃতিতে পিতা

বাংলাদেশের জনগণ ভালো থাকলে কিছু মানুষ অসুস্থ হয়ে যায়

দরিদ্র্যতা নয় লোভের বলি