লিবিয়ায় একসঙ্গে ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

দেশ বিদেশ

মানবজমিন ডেস্ক | ১৭ আগস্ট ২০১৮, শুক্রবার
লিবিয়ার একটি আদালত সহিংসতার দায়ে ৪৫ জনকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে। ২০১১ সালের উত্তাল সময়ে দেশটির রাজধানী ত্রিপোলিতে সংগঠিত এক গণহত্যার জন্য তাদেরকে এ শাস্তি দেয়া হয়। বুধবার দেশটির আইন মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে মৃত্যুদণ্ডের তথ্য জানানো হয়। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল-জাজিরা। খবরে বলা হয়েছে, লিবিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট মুয়াম্মার গাদ্দাফির ঘনিষ্ঠজন কর্তৃক সংগঠিত এক গণহত্যার সঙ্গে যুক্ত থাকার অপরাধে তাদেরকে এ শাস্তি দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি আরো ৫৪ জনকে ৫ বছরের জেল দেয়া হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ত্রিপোলিতে ২০ জনকে হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়েছে। এ রায়ে ২২ জন আসামিকে মুক্তি দেয়া হয়।
রায় দেয়ার সময় অভিযুক্তদের আইনজীবী ও স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু আসামিদের অনুপস্থিতিতেই রায় দেয়া হয়। উল্লেখ্য, মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল তার বার্ষিক প্রতিবেদনে লিবিয়ার বিচার ব্যবস্থাকে অকার্যকর বলে উল্লেখ করেছে। সংস্থাটি দাবি করেছে, ২০১১ সালে গাদ্দাফির পতনের পরে যথাযথ প্রমাণ ছাড়াই অনেককে গ্রেপ্তার ও সাজা দেয় দেশটির আদালত। এ সময় তাদেরকে আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানানোর সুযোগও দেয়া হয়নি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বিমানবন্দরে আত্মহত্যার চেষ্টা করা রুনা বললেন আমি মরতে চাই

দুর্নীতিবাজদের নিয়ে জোট করে সরকার উৎখাতের চেষ্টা হচ্ছে

সহস্রাধিক সাইট পেজে নজরদারি

সাধারণের ভোট ভাবনা

মেজর (অব.) মান্নানকে দুদকে তলব

ডিজিটাল আইন স্বাধীন সাংবাদিকতার অন্তরায়

২৯শে সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগের নাগরিক সমাবেশ

ঢাকায় বৃহস্পতিবার বিএনপি’র সমাবেশ

জগাখিচুড়ির ঐক্য টিকবে না

৫৭ ধারার মামলায় চবি শিক্ষক কারাগারে

পদ্মার ডান তীরে ভাঙন ফের আতঙ্ক

মালদ্বীপে বিরোধীদের অভাবনীয় জয়

চট্টগ্রামে গণধর্ষণের শিকার দুই কিশোরী

বিচারকের প্রতি দুই আসামির অনাস্থা

ভালো মানুষকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন: প্রেসিডেন্ট

শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচনে যাওয়ার কথা বলেননি ড. কামাল