লুমা রিমান্ডে, ১২ ছাত্রের জামিন নামঞ্জুর

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ আগস্ট ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৮:৪০
ইডেন কলেজের ছাত্রী ও কোটা সংস্কার আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক লুৎফুর নাহার লুমাকে (২২) ৩ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার তাকে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিট ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করে। শুনানি শেষে বিচারক ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এরপর কোটা সংস্কার আান্দোলনের নেত্রীকে নিরাপদ সড়কের দাবিতে হওয়া ছাত্র আন্দোলনে উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে পুলিশ হেফাজতে রিমান্ডে নেয়া হল। অপরদিকে গতকাল পৃথক আদালতে প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২ শিক্ষার্থীর পক্ষে জামিন চাওয়া হলে তা নামঞ্জুর হয়।

সাইবার ক্রাইম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) নাজমুল ইসলাম মানবজমিনকে বলেন, নিরাপদ সড়কের দাবিতে হওয়া ছাত্র আন্দোলনে লিমা ফেসবুকের মাধ্যমে উস্কানি দেয়। গত ৪ঠা আগস্ট লিমা ফেসবুকে দু’টি পোস্ট দেয়। তা হত্যা ও ধর্ষণের যে গুজব ছাড়ানো হয়েছিল তাকেই সমর্থন করে।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে কিছু কথা স্বীকার করেছে। বিস্তারিত জানতে তার ৫ দিনের রিমান্ড চাওয়া হলে ৩ দিন মঞ্জুর করেন আদালত। রিমান্ডে তাকে বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

জানা যায়, এর আগে সাইবার ক্রাইম ইউনিট কর্তৃক রমনা থানায় দায়ের করা তথ্য প্রযুক্তি আইনে ৫৭ (২)/৬৬ ধারায় দায়ের করা এক মামলায় ইডেন কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ২য় বর্ষের এই ছাত্রীকে আসামি করা হয়। বিষয়টি জানার পর সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার ক্ষিদ্রচাপরি চর এলাকায় দাদার বাড়ি চলে যান লুমা। সেখান থেকে গত বুধবার ভোরে ঘুমন্ত লুমাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এরপর ঢাকায় নিয়ে আসা হয়। তবে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে গতকাল বুধবার দিবাগত রাত ১০টায়। তারপর গতকাল বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হলো। লুমা গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী থানার বাঐখোলা গ্রামের মৃত প্রফেসর আব্দুল কদ্দুস সরকারের মেয়ে।

এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার একাধিক প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রেপ্তার হওয়া ১২ শিক্ষার্থীর জামিন চেয়ে আদালতে আবেদন করা হলে তা নামঞ্জুর হয়। যাদের পক্ষে জামিন আবেদন করা হয়েছিল তারা হলেন, শাখাওয়াত হোসাইন নিঝুম, শিহাব শাহরিয়ার, সাবের আহমেদ উল্লাস, আজিজুল করিম অন্তর, রাশেদুল ইসলাম, মো. হাসান, মুসফিকুর রহমান, রিদুয়ান আহমেদ, রেজা রিফাত আহমেদ, সীমান্ত সরকার, ইফতেখার হোসাইন ও মাসাদ মুর্তুজা বিন আহাদ। গতকাল ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট লস্কর সোহেল রানা ও অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কেশব রায় চৌধুরী শুনানির পর তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন। বাড্ডা ও ভাটারাসহ একাধিক থানায় দায়ের করা পৃথক মামলায় তারাসহ ২২ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী এখন কারাগারে। ইতিপূর্বে গত ৭ ও ৯ তাদের জামিন আবেদন বাতিল হয়। নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্র আন্দোলনে সরকার দলীয় নেতাকর্মী ও পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ ও উস্কানির অভিযোগে ইস্টওয়েস্ট, নর্থ সাউথ, সাউথ-ইস্ট, ব্র্যাক,আইইউবি ও আইইউবিএটি’এর এসব শিক্ষার্থী গ্রেপ্তার হন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বিমানবন্দরে আত্মহত্যার চেষ্টা করা রুনা বললেন আমি মরতে চাই

দুর্নীতিবাজদের নিয়ে জোট করে সরকার উৎখাতের চেষ্টা হচ্ছে

সহস্রাধিক সাইট পেজে নজরদারি

সাধারণের ভোট ভাবনা

মেজর (অব.) মান্নানকে দুদকে তলব

ডিজিটাল আইন স্বাধীন সাংবাদিকতার অন্তরায়

২৯শে সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগের নাগরিক সমাবেশ

ঢাকায় বৃহস্পতিবার বিএনপি’র সমাবেশ

জগাখিচুড়ির ঐক্য টিকবে না

৫৭ ধারার মামলায় চবি শিক্ষক কারাগারে

পদ্মার ডান তীরে ভাঙন ফের আতঙ্ক

মালদ্বীপে বিরোধীদের অভাবনীয় জয়

চট্টগ্রামে গণধর্ষণের শিকার দুই কিশোরী

বিচারকের প্রতি দুই আসামির অনাস্থা

ভালো মানুষকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন: প্রেসিডেন্ট

শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচনে যাওয়ার কথা বলেননি ড. কামাল