রাজশাহীতে বাস চাপায় স্কুলছাত্রীসহ নিহত তিন

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী থেকে | ১৫ আগস্ট ২০১৮, বুধবার, ৩:০৬ | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫৩
রাজশাহীতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি যাত্রীবাহী বাস দোকানের মধ্যে ঢুকে পড়লে ঘটনাস্থলেই দুই জন নিহত এবং হাসপাতালে এসে একজন স্কুলছাত্রী মারা যায়। আহত হয়েছেন আরো পাঁচজন। বুধবার সকাল ১১টার দিকে নগরীর নওদাপাড়া বাজার এলাকায় এই দূর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর উত্তেজিত জনতা প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে।

নিহত স্কুল ছাত্রীর নাম আনিকা (১৩)। সে নগরীর নওদাপাড়ার ভাড়ালিপাড়া এলাকার রুস্তমের মেয়ে এবং শাহ্ মখদুম স্কুলের ছাত্রী। গুরুতর আহত অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

নিহত অপর দুইজন হলেন- শাহ্ মখদুম থানার মোড় এলাকার ইসলামের ছেলে ইসমাইল হোসেন পিঙ্কু(২৪) এবং মোহাম্মদ আলীর ছেলে সবুজ ইসলাম (৩২)। তারা দু’জনেই ডিসের লাইনের কাজ করতেন। ডিস সংযোগকারী জহিরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সূত্র জানায়, বুধবার বেলা ১১ টার দিকে এ্যারো বেঙ্গল নামক যাত্রীবাহী বাস রাজশাহী থেকে নওগাঁর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাচ্ছিল।
পথে নওদাপাড়া এলাকায় এসে পৌঁছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লাবিবা লাইব্রেরী নামক দোকানের মধ্যে ঢুকে যায়। স্থানীয়রা বলছেন, ‘এ্যারো বেঙ্গল বাসের হেলপার বাসটি চালাচ্ছিলো। অদক্ষ হওয়ায় অসাবধানতায় দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।’
শাহ্ মুখদুম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিল্লুর রহমান বলেন, রাজশাহী থেকে নওগাঁগামী একটি বাস একটি মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি লাইব্রেরীর মধ্যে ঢুকে পড়ে। এতে তিনটি দোকান ক্ষতিগ্রস্থ হয় এবং ঘটনাস্থলেই দুই নিহত হন। আহত হন পাঁচজন। খবর পেয়ে পুলিশ ও দমকল কর্মীরা গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক স্কুল ছাত্রী মারা গেছে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে স্থানীয় লোকজন রাজশাহী-নওগাঁ সড়ক অবরোধ করে। এ সময় তারা একটি বাস ও একটি ট্রাকে ভাংচুর চালায়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

kazi

২০১৮-০৮-১৫ ০৩:০৪:২১

মানুষ মরবে। প্রতিবাদ কারিরা জেলেও যাবে। অত্যন্ত অসহায় মানুষ।

আপনার মতামত দিন

বানভাসি মানুষের দুর্ভোগ বাড়ছে

নৈরাজ্য

১৯ জনকে গণপিটুনি নিহত ৩

মার্কিন দূতাবাসের দুরভিসন্ধি

মিন্নির জামিন মেলেনি

পুঁজিবাজারে একদিনেই ৫ হাজার কোটি টাকার মূলধন হাওয়া

মশায় অতিষ্ঠ মানুষ ঘরে ঘরে ডেঙ্গু আতঙ্ক

অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্ব দিতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের আন্দোলনে অচল ঢাবি

যে কারণে সিলেটে মহিলা কাউন্সিলর লাকীর ওপর হামলা

৬ ঘণ্টা বিদ্যুৎ ও পানিবিহীন শাহজালাল বিমানবন্দর

সাত দিনের মধ্যে প্রথম কিস্তি পরিশোধের নির্দেশ

এ যেন খোঁড়াখুঁড়ির নগরী

বৃষ্টি হলেই জলজট

শিমুল বিশ্বাসের পাসপোর্ট প্রদানের নির্দেশ হাইকোর্টের

এক সিগন্যালেই ৬৭ মিনিট