নতুন কলরেট নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

শেষের পাতা

কাজী সোহাগ | ১৫ আগস্ট ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৪৯
মোবাইলের নতুন কলরেট নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। এ নিয়ে পাল্টাপাল্টি যুক্তিও দেখানো হচ্ছে। মোবাইল অপারেটররা বলছেন, নতুন নির্ধারিত কলরেট অনুযায়ী গ্রাহকরা সুবিধা পাবেন বেশি। আগের তুলনায় কলরেটও কমছে। তবে গ্রাহকদের অভিযোগ আগে যেখানে ২৫ পয়সায় কথা বলা যেত এখন তা ৪৫ পয়সা করা হয়েছে। মোবাইল ফোনের কলরেটের নতুন হার নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার। সোমবার রাত ১২টার পর এই হার কার্যকর হয়েছে। এরই মধ্যে অনেক মোবাইল অপারেটর গ্রাহকদের এসএমএস দিয়ে বিষয়টি জানাতে শুরু করেছে।

নতুন হার অনুযায়ী মোবাইল অপারেটরগুলো ৪৫ পয়সার নিচে কোনো  কলরেট নির্ধারণ করতে পারবে না।
এই কলরেট সর্বোচ্চ ২ টাকা পর্যন্ত হতে পারবে। এর আগে বিটিআরসির নির্ধারণ করে দেয়া সর্বনিম্ন অননেট চার্জ প্রতি মিনিট ২৫ পয়সা ও অফনেট ৬৫ পয়সা। সর্বোচ্চ চার্জ প্রতি মিনিট ২ টাকা। মোবাইল ফোন অপারেটররা এই সীমার মধ্যে থেকে নিজেদের অপারেটরের চার্জ নির্ধারণ করেছে। ফলে একেক অপারেটরের চার্জ ছিল একেক রকম।

সংশ্লিষ্টরা জানান, দেশে দুই ধরনের কলরেট চালু আছে, অননেট ও অফনেট। অননেট হলো একই মোবাইল নেটওয়ার্কে কল করার (কথা বলার) পদ্ধতি এবং অফনেট কল হলো এক নেটওয়ার্ক থেকে অন্য নেটওয়ার্কে ফোন করা। নতুন নিয়মে এই অননেট ও অফনেটের কলরেট পদ্ধতি আর থাকছে না। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ৪৫ পয়সা হলো নতুন কলরেটের ফ্লোর প্রাইস (ইউনিফায়েড ফ্লোর প্রাইস)। এই রেটের কমে কোনো মোবাইল নম্বরে কল করা যাবে না। তবে মোবাইল ফোন অপারেটররা তাদের পছন্দমতো রেট সাজিয়ে নতুন কলরেট গ্রাহকদের অফার করতে পারবে।

কলরেটের সর্বোচ্চ সীমা হবে ২ টাকা, যা আগেও ছিল। অপারেটররা বলেছে, নতুন নিয়ম কার্যকর হলে গ্রাহকরা সুফল পাবে। আগে অননেট কলের সর্বনিম্ন সীমা ২৫ পয়সা হলেও গ্রাহকদের গড় খরচ হতো ৩৯-৪০ পয়সা। আর অন্য অপারেটরে (অফনেটে) কলের সর্বনিম্ন সীমা ৬৫ পয়সা হলেও গ্রাহকের খরচ হতো ৮৯ পয়সা থেকে ১ টাকা ৪০ পয়সার মতো। নতুন কলরেট চালুর ফলে একই অপারেটরে কলের খরচ ৫ পয়সা বাড়লেও অন্য অপারেটরে কলের ক্ষেত্রে খরচ কমবে ৪৫ থেকে ৫০ পয়সা। মূলত গ্রাহক সংখ্যায় ছোট অপারেটরের গ্রাহকরা এই সুবিধা পাবেন বলে মনে করছে অপারেটররা। সংশ্লিষ্টরা জানান, দেশের মোট কলের মধ্যে অননেট হলো ৩৫ এবং অফনেটে ৬৫ শতাংশ। এর মধ্যে দামের পার্থক্য ছিল ১৪৫ শতাংশ।

নতুন কলরেটের কারণে কলরেট কমলো প্রায় ৬৫ শতাংশ। অফনেট ও অননেটের মধ্যে দামের যে বৈষম্য ছিল তা দূর হলো। মোবাইল নম্বর পোর্টাবিলিটি বা এমএনপি চালু হলে গ্রাহক আরো উপকৃত হবেন। নেটওয়ার্ক পছন্দে তাদের অবাধ স্বাধীনতা থাকবে। এদিকে সরকারের বেঁধে দেয়া ভয়েস কলের এই নতুন রেট লাভজনক কিনা তা খতিয়ে দেখছে অপারেটররা। তারা জানান, এখনও এ নিয়ে হিসাব করার সময় আসেনি। তবে অপারেটরদের এ যুক্তিকে আমলে নিতে চান না সাধারণ গ্রাহকরা। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এরই মধ্যে অনেকে বিষয়টি নিয়ে তির্যক মন্তব্য করেছেন। তারা বলছেন, ২৫ পয়সা থেকে ৪৫ পয়সা বাড়ানো একেবারে অযৌক্তিক। এতে ফোনে কথা বলার খরচ বাড়বে। এখন সর্বনিম্ন কল খরচ নির্ধারণ করা হয়েছে ৪৫ পয়সা।

এর সঙ্গে যোগ হবে ভ্যাট, ট্যাক্স। এই বাড়তি টাকা তো আমাদেরই দিতে হবে। মিরপুরের বাসিন্দা মোবাইল ফোন গ্রাহক আজিম বলেন, পূর্ব কোনো ঘোষণা না দিয়েই অপারেটররা মোবাইল কলের খরচ বাড়িয়ে দিয়েছে। এটা অন্যায়। তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে যেকোনো ফোন কলের দাম কমার কথা সেখানে আমাদের দেশে উল্টো ঘটনা ঘটছে। একই এলাকার আরেক গ্রাহক ফরিদ জানান, বলা হচ্ছে সরকার এটা নির্ধারণ করে দিয়েছে। মোবাইল অপারেটরদের সঙ্গে আলোচনা ছাড়াই কি এটা করেছে। আমার মনে হয়, অপারেটররা এখানে তাদের ব্যবসায়িক দিকটি বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন। আমাদের মতো সাধারণ গ্রাহকদের পকেট থেকে টাকা কাটতেই কলরেট বাড়ানো হয়েছে। ফার্মগেট এলাকার খাদেমুল ইসলাম বলেন, আমরা তো অফনেট অননেট বুঝতে চাই না। আমাদের কাছে দিন শেষে কল খরচ কত হলো সেটাই আসল বিষয়। মাস শেষে যদি দেখি কল খরচ বেড়েছে তাহলে বিষয়টি ভালোভাবে নিতে পারবো না।

এদিকে মোবাইল গ্রাহকদের এ ধরনের মিশ্র প্রতিক্রিয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছে মোবাইল অপারেটররাও। এ প্রসঙ্গে বাংলালিংকের চিফ কর্পোরেট ও রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান গতকাল মানবজমিনকে বলেন, নতুন কলরেট মাত্র একদিন হলো বাস্তবায়িত হয়েছে। গ্রাহকদের সঠিক অনুভূতি জানতে আরো সময় প্রয়োজন। তবে এটা ঠিক নতুন কলরেটের কারণে তাদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। কিছু ক্ষেত্রে বিভ্রান্তিও তৈরি হয়েছে। তিনি বলেন, আমি বিশ্বাস করি দীর্ঘমেয়াদে এটা গ্রাহকদের জন্য ভালো হবে। কারণ তারা কোনো নেটওয়ার্কে কথা বলছে সেটা নিয়ে আর ভাবতে হবে না। তবে বাংলালিংক তাদের গ্রাহকদের অর্থের সর্বোচ্চ মূল্য দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। প্রসঙ্গত বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় ১৪ কোটি মোবাইল গ্রাহক রয়েছেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

পলাশ

২০১৮-০৮-১৫ ২৩:৫৪:৪২

জনগনের লোকসান

Mosharraf

২০১৮-০৮-১৫ ১১:৪৪:৫১

কলরেট কমিয় অননেট অফনেট ২৫ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ১ টাকা করা হোক।

Jahangir

২০১৮-০৮-১৫ ০৬:৩৩:২২

Ai call rate poriborton kora hoke

কাজী মাহবুবুর রহমান

২০১৮-০৮-১৪ ২২:৩০:৪৩

কি ভাবে খরচ কমলো..? সবার কথা নাই বললাম, শুধু আমার কথাই বলছি, আমি যদি এক মাসে ১০০০ মিনিট কথা বলি তাহলে হিসাব করে দেখা যাবে যে সরবোচ্চো মাত্র ৮০ মিনিট কথা হবে অন্যান্য অপারেটরে, আর বাকি ৯২০ মিনিট হবে একি অপারেটরে, তাহলে আমার কি খরচ কমলো..? না বাড়লো..? তারাও এই ব্যাপার টা বুঝতে পেরেছে, আর বুঝতে পেরেছে বলেই কলরেট এতো বৃদ্ধি করা হয়েছে, খামোখ মিথ্যে বলার কি দরকার.? যে করেট আগের থেকে কমেছে। আর সিম কম্পানি ওয়ালারাও দেখছে যে এতে তাদেরও ফায়দা হচ্ছে, তাই তারা আগে থেকে কোনো নোটিশ না দিয়ে হুটকরে আইন কার্যকর করে দিয়েছে।

Jahangir Titu

২০১৮-০৮-১৪ ২১:৩৫:৩৪

এখন বেশিরভাগ মোবাইল সেটই দুই সীমের সুবিধাযুক্ত এবং অনেক গ্রাহকেরই একাধিক সীম আছে। গ্রাহকেরা কল করার ক্ষেত্রে অননেট কলই বেশি করত। ফলে পূর্বের কলরেটেই বেশিরভাগ গ্রাহক লাভবান হতো ।

Engr. kauser

২০১৮-০৮-১৪ ২০:৪৩:২৭

আমাদের লাভ লোকসান আমাদের থেকে সরকার ভাল বুঝা শুরু করছেন। কল রেট বাড়বে আর গ্রাহক দের লাভ হবে কি আজব দুনিয়া! এস এম এস এর মাধ্যমে সকল গ্রাহকের মতামত নিতেন....... তবেই দেখতাম কে কল রেট বেশী চায়????????

mohammad maksuder ra

২০১৮-০৮-১৪ ১৮:৫৩:২৫

এই কল রেট জনগণের জন্নে কসটের। কল রেট ২৫ পয়সা করা দরকার।

Md. Kawser Ahmed

২০১৮-০৮-১৫ ০০:১৭:৫৯

মানুষকে বোকা বানানো হচ্ছে।

আপনার মতামত দিন

গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে ‘ঢাকা পরিচ্ছন্নতা অভিযান’

৫৭ ধারায় গ্রেপ্তার চবি শিক্ষক

আড়াই বছরের শিশুকে ধর্ষণ

নিম্ম আদালতেও আমীর খসরুর জামিন

‘মিয়ানমারে হস্তক্ষেপের কোনোই অধিকার নেই জাতিসংঘের’

বাংলাদেশের ভিতর দিয়ে পানিপথ করিডোর নির্মাণ পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে ভারত

‘জনগণের কাছে ক্ষমা চাইলে আওয়ামী লীগের সঙ্গে ঐক্য হতে পারে’

আদালতের প্রতি দুই আসামীর অনাস্থা একজনের জামিন বাতিল

২৭শে সেপ্টেম্বর বিএনপির জনসভার ঘোষণা

আপিলেও বৃটিশ যুবতীর জেল বহাল

বাংলাদেশের ইতিহাসে যেখানে মাশরাফিই প্রথম

বিশ্বের সবচেয়ে দামি বাড়ি, আছে ৩টি হেলিপ্যাড, সিনেমা হল, ৬০০ কাজের লোক (ভিডিও)

‘সরকার উৎখাতে দুর্নীতিবাজরা জোট বেঁধেছে’

‘বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য’ টিকবে না

মেহেরপুরে অস্ত্র ও গুলিসহ জেলা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আটক

‘গাড়িপ্রস্তুতকারক প্রোটন সফল ছিল’